৪ আর ৮-এর চক্করে ক্রোয়েশিয়া!

ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৪ আশ্বিন ১৪২৫

৪ আর ৮-এর চক্করে ক্রোয়েশিয়া!

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:৪৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ১২, ২০১৮

৪ আর ৮-এর চক্করে ক্রোয়েশিয়া!

সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে প্রথম বারের মতো বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠার ইতিহাস গড়েছে ক্রোয়েশিয়া। অসাধারণ এই অর্জনের মধ্যদিয়ে ক্রোয়েশিয়ার সামনে এখন দুটি পথ খোলা। একটি ৪-এ মেলার পথ, অন্যটি ৮-এ মেলার। মানে ফাইনালে উঠে ক্রোয়েশিয়া পড়ে গেছে ৪ আর ৮-এর গোলকধাধায়। দুই গোলকের একটিতে তাদের মিলতেই হবে। তা কোনটিতে মিলবে ক্রোয়েশিয়া, ৪-এ নাকি ৮-এ?

এতো সাধনা, এতো লড়াই, এতো ঝাম ঝরিয়ে ফাইনালে যখন উঠেছে, ক্রোয়াটরা নিশ্চিতভাবেই চাইবেন ৮-এর গোলকের মিলতে। কিন্তু আরও একটি দল যেহেতু ফাইনালে উঠেছে, সেই ফ্রান্সও যেহেতু শিরোপা স্বপ্নে বিভোর, কাজেই ইতিহাস ক্রোয়েশিয়াকে মিলিয়ে দিতে পারে ৪-এর সঙ্গেও।

আর ভনিতা না করে এবার ৪ আর ৮-এর গোলকধাঁধার রহস্য উন্মোচন করা যাক। ফুটবল ইতিহাসে ৪টি দল আছে, যারা বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠলেও শিরোপা জিততে পারেনি কখনোই। মানে ফাইনালে হারার হতাশাই তাদের চির সঙ্গী হয়ে আছে। ফাইনালে কপাল পোড়া সেই ৪টি দল হলো চেকোস্লোভাকিয়া (বর্তমানে চেক প্রজাতন্ত্র), হাঙ্গেরি, হল্যান্ড ও সুইডেন।

এর ৪ দলের মধ্যে সুইডেনের হতাশাটাই হয়তো তুলনামূলকভাবে একটু কম। কারণ, তারা মাত্র একবারই ফাইনালে উঠেছিল। ১৯৫৮ সালে নিজেদের ঘরের মাটির সেই বিশ্বকাপের ফাইনালে সুইডেন ৫-২ গোলে হেরে যায় ব্রাজিলের কাছে। এছাড়া চেকোস্লোভাকিয়া ও হাঙ্গেরি এই হতাশায় পুড়েছে দুবার করে। ১৯৩৪ সালের পর ১৯৬৬ সালেও বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠেছিল চেকোস্লোভাকিয়া।

দুবারই তাদের মাঠে কান্নায় ভেঙে পড়তে হয় স্বপ্নভঙ্গের হতাশায়। তবে এদের চেয়েও বেশি কপাল পোড়া হল্যান্ড তথা নেদারল্যান্ডস। একবার, দুবার নয়, টোটাল ফুটবলের জনকেরা বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠেছে তিন বার। ১৯৭৪, ১৯৭৮ ও ২০১০ সালে। কিন্তু তিনবারই হার। চির কপাল পোড়া ডাচ’রা যুগে যুগে অবিশ্বাস্য সব দল গড়েও স্বপ্নের সোনার ট্রফিটা ছুঁতে পারেনি কখনোই।

আগামী রোববারের ফাইনালে হারলেই এই ৪ দলের কাতারে নাম উঠে যাবে ক্রোয়েশিয়ার। ইতিহাসের পঞ্চম দল হিসেবে পুড়তে হবে ফাইনালে উঠেও শিরোপা জিততে না পারার হতাশায়। লুকা মড্রিচরা নিশ্চিতভাবেই এই ‘অভিশপ্ত ৪’-এর খপ্পরে পড়ে তালিকাটা ৫-এ উন্নীত করতে চাইবে না। কায়মনো বাক্যে তারা হয়তো একটা স্বপ্নই দেখছেন, ৮-এর সঙ্গে মিলে নয় নম্বর দেশ হওয়ার।

বিশ্বকাপের ইতিহাস বলছে, এ পর্যন্ত ৮টি দল বিশ্বকাপ শিরোপার স্বাদ পেয়েছে। সেই দেশ গুলো হলো উরুগুয়ে, ইতালি, জার্মানি, ব্রাজিল, ইংল্যান্ড, আর্জেন্টিনা, ফ্রান্স ও স্পেন। এর মধ্যে ব্রাজিল জিতেছে ৫ বার। জার্মানি ও ইতালি ৪ বার করে। উরুগুয়ে ও আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ জয়ের উৎসবে মেতেছে দুবার করে। ইংল্যান্ড, ফ্রান্স ও স্পেন একবার করে।

একবার যেহেতু বিশ্বকাপ জয়ের উৎসব করে ফেলেছে, তাই রোববারের দুই ফাইনালিস্টের একটি, ফ্রান্সের ৪-এর গোলকের মেলার সুযোগ নেই। তবে হারলে ফরাসিদের ফাইনালে হারার হতাশাটা দ্বিগুণ হবে। ১৯৯৮ সালে প্রথম বার ফাইনালে উঠে জিতলেও ২০০৬ বিশ্বকাপের ফাইনালে ঠিকই তারা হেরে যায় ইতালির কাছে।

যাই হোক, ফ্রান্সের গল্পটা অন্য। ক্রোয়েশিয়ার সামনে ৪ আর ৮-দুটি গোলকেরই হতাছানী। হারলে হবে ফাইনালে হারা পঞ্চম পোড়া দল। জিতলে ইতিহাসের নবম দেশ হিসেবে পাবে বিশ্বকাপ জয়ের অমৃত স্বাদ। ক্রোয়েশিয়া কোন ধারায় মিলবে, মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়াম উত্তরটা দেবে আগামী রোববার রাতেই। সে পর্যন্ত আপনাকে অপেক্ষা করতেই হবে।

কেআর