ইংল্যান্ড থেকে মুখ ঘুরিয়ে নিল আধ্যাত্মিক বিড়াল!

ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৪ আশ্বিন ১৪২৫

ইংল্যান্ড থেকে মুখ ঘুরিয়ে নিল আধ্যাত্মিক বিড়াল!

পরিবর্তন ডেস্ক ৬:১৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ১১, ২০১৮

ইংল্যান্ড থেকে মুখ ঘুরিয়ে নিল আধ্যাত্মিক বিড়াল!

১৯৯০ সালের পর আবার বিশ্বকাপের সেমি ফাইনালে রাতে খেলবে ইংল্যান্ড। ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপে। প্রতিপক্ষে ক্রোয়েশিয়া। বৃটিশ রাজ্য উন্মাতাল। ফুটবল ছাড়া আর কিছুই নেই আলোচনায়। তাদেরই একটি টেলিভিশন প্রোগ্রামে হাজির করা হয়েছিল একটি আধ্যাত্মিক বিড়ালকে। এ নাকি আবার ভুল করে না ভবিষ্যদ্বাণীতে। কিন্তু প্রথমে ইংলিশ দর্শকদের মুখে হাসি ফুটিয়ে ফের তাতে রাজ্যের অন্ধকার এনে দিয়েছে ফিনিক্স নামের তান্ত্রিক বিড়ালটি। সংশয়ে পড়ে গেছেন সবাই। আসলে কি বলতে চাইল ফিনিক্স? ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে বুধবার রাতে ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে ইংল্যান্ড জিতবে নাকি হারবে? নাকি টাইব্রেকার আছে ভাগ্যে? নাকি বিদায়!

লরাইন কেলির অনুষ্ঠানটি ব্যাপক জনপ্রিয়। বিশ্বকাপ ফুটবলের ডামাডোলে ওখানেও বিস্তর ফুটবল। মঙ্গলবার রাতে বিড়ালটিকে অনুষ্ঠানে আনা হলো। একটি টেবিলের উপর দুইপাশে দুটি পাত্র। তার মধ্যে খাবার। আর একটি পাত্রে দাঁড়িয়ে ইংল্যান্ডের পতাকা, অন্যটিতে ক্রোয়েশিয়ার। সেই টেবিলে উঠিয়ে দেওয়া হয় ফিনিক্সকে। সবাই আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষায় কি করে সে।

ওই অনুষ্ঠানের দর্শকরা প্রথমে সোল্লাসে লাফিয়ে উঠলেন। হেলে দুলে ইংল্যান্ডের পাত্র ও পতাকার দিকে গেল ফিনিক্স। খাবার দেখল। তারপর কি ভেবে হঠাৎ ওই খাবারে মুখ না দিয়ে মুখ ও শরীর ঘুরিয়ে ফেলল। টুকটুক করে এগিয়ে গেল ক্রোয়েশিয়ার পাত্রের দিকে। তারপর একটু কি ভেবে মুখ ডুবালো ওই পাত্রে, খাবার খেতে শুরু করল।

ফিনিক্সের এই কাণ্ডে দর্শকরা কি ভেবে নেবেন? ১-১ এ সেমি ফাইনাল ড্র হওয়ার পর খেলা যাবে টাইব্রেকে? ১৯৬৬ বিশ্বকাপ জয়ের ফাইনালে ওঠার পর আবার ফাইনালে উঠতে তাহলে হ্যারি কেনের দলকে টাইব্রেক নামের ভাগ্যের পরীক্ষায় নামতে হবে?

এ নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে যথারীতি আলোচনা। ইংলিশ মাধ্যমেও খবরটা দ্রুত ছড়িয়েছে। একজন লিখেছেন, 'আধ্যাত্মিক বিড়ালটা তো ইংল্যান্ডের জয়ের ব্যাপারে সংশয়ে ফেলে দিল।' আরেকজন লিখেছেন, 'লরাইন কেলি ও ফিজিক ক্যাট আমার চোখে পানি এনে দিল।' আরেকজনের পোস্ট, 'নার্ভাস হয়ে গেলাম তান্ত্রিক বিড়ালের অনুমানে।' একটি পোস্ট এমন, 'লরাইনের আধ্যাত্মিক বিড়ালের সাথে আমি একমত, ও কখনো ভুল করে না। তান্ত্রিক বিড়ালটা মিউ মিউ করছে!'

সূত্র : দ্য সান, আইরিশ মিরর।

ক্যাট