রাতে পর্দা উঠছে বিশ্বকাপ ফুটবলের

ঢাকা, বুধবার, ১৫ আগস্ট ২০১৮ | ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫

রাতে পর্দা উঠছে বিশ্বকাপ ফুটবলের

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:৫৯ অপরাহ্ণ, জুন ১৪, ২০১৮

print
রাতে পর্দা উঠছে বিশ্বকাপ ফুটবলের

অপেক্ষার পালা শেষ। এবার সময় বিশ্বকাপ উন্মাদনায় মেতে ওঠার। আর মাত্র কয়েক ঘন্টা পর পর্দা উঠছে রাশিয়ার বিশ্বকাপের। বাংলাদেশ সময় রাত ৮.৩০ মিনিটে মস্কোর লুজনিকি স্টেডিয়ামে জমকালো আয়োজনে থাকছে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। তারপরই একই ভেন্যুতে স্বাগতিক রাশিয়া ও সৌদি আরবের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে মাঠে গড়াবে বিশ্বকাপের ২১তম আসর।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের শুরুতেই থাকবে ৫০০ শিল্পীর অংশগ্রহণে রাশিয়ার ইতিহাস ও ঐতিহ্যের নান্দনিক প্রদর্শনী। তারপর মঞ্চ মাতাতে আসবেন বিখ্যাত ব্রিটিশ পপ স্টার রবি উইলিয়ামস ও রাশিয়ার উচ্চাঙ্গ সংগীত শিল্পী এইডা গারিফুলিনা। এরপর বিশ্বকাপের ট্রফি হাতে মঞ্চে আসবেন ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি ফুটবলার রোনাল্ডো। এরপরই বিশ্বকাপের থিম সং ‘লিভ ইট আপ’ নিয়ে একসঙ্গে মঞ্চ মাতাবেন উইল স্মিথ, নিকি জ্যাম ও এরা এস্ত্রাফি। সব শেষে থাকছেন কিংবদন্তি অপেরা শিল্পী প্লাসিদো ডমিঙ্গো ও পেরুর উচ্চাঙ্গ শিল্পী হুয়ান ডিয়েগো ফ্লোরেজ।

এবারকার আসরে ইউরোপের ১৪টি, এশিয়া, আফ্রিকা ও লাতিন আমেরিকা থেকে ৫টি করে এবং উত্তর, মধ্য আমেরিকা ও ক্যারিবিয়ান অঞ্চল থেকে ৩টি দেশ অংশ নিচ্ছে। আইসল্যান্ড ও পানামা প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে অংশ নিচ্ছে।

রাশিয়ায় এবারই প্রথম বিশ্বকাপ ফুটবল অনুষ্ঠিত হচ্ছে যাচ্ছে। এর আগে অনুষ্ঠিত ২০ বিশ্বকাপের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ১০টি আসরই অনুষ্ঠিত হয়েছে ইউরোপে। এরপর লাতিন আমেরিকায় ৭টি। উত্তর আমেরিকা, আফ্রিকা ও এশিয়ায় একবার করে বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই প্রথমবার এমন একটি দেশে বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হচ্ছে যা এশিয়া ও ইউরোপ মহাদেশ জুড়ে অবস্থিত।

এবারের বিশ্বকাপে ফেভারিট হিসেবে সবচেয়ে বেশি উচ্চারিত হচ্ছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জার্মানি, ৫বারের চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল ও একবারের শিরোপাজয়ী ফ্রান্সের নাম। জার্মানির সামনে সুযোগ ব্রাজিলের পর দ্বিতীয় দেশ হিসেবে টানা দ্বিতীয়বার বিশ্বকাপ জেতার। এদিকে নেইমার, কুতিনহোদের আলোয় উজ্জ্বল হয়ে ‘হেক্সা’ জয়ের স্বপ্ন দেখছে সবচেয়ে বেশিবার বিশ্বকাপ জয়ী লাতিন দলটি। অন্যদিকে আঁতোয়া গ্রিজমান, এন’গোলো কান্তা, কিলিয়ান এমবাপেদের নিয়ে গড়া দারুণ ভারসাম্যপূর্ণ ফরাসিরাও বিশ্বকাপের বড় দাবিদার এবার। এছাড়া ২০১০ চ্যাম্পিয়ন স্পেন আর ১৯৭৮ ও ১৯৮৬ সালের বিশ্বজয়ী আর্জেন্টিনাও বিশ্বকাপের অন্যতম দাবিদার।

পিএ

 
.


আলোচিত সংবাদ