সর্দার প্যাটেল, স্ট্যাচু অফ ইউনিটি

ঢাকা, বুধবার, ১৬ জানুয়ারি ২০১৯ | ৩ মাঘ ১৪২৫

সর্দার প্যাটেল, স্ট্যাচু অফ ইউনিটি

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:১০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ০৩, ২০১৯

সর্দার প্যাটেল, স্ট্যাচু অফ ইউনিটি

ভারতের গুজরাতে এখন স্ট্যাচু অফ ইউনিটি একটি দর্শনীয় বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। ভারতের সর্দার বল্লভ ভাই প্যাটেলের ১৪৩ তম জন্মদিবসে স্ট্যাচু অফ ইউনিটি’র উদ্বোধন করেছিলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কয়েক বছরের চেষ্টায় ২৩৮৯ কোটি রুপি খরচ করে ১৮২ মিটার উঁচু এই ভাস্কর্যতৈরি হয়েছে।

বর্তমানে এটিই বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভাস্কর্য। উদ্বোধনের দিন ভাস্কর্যটির দুটি পায়ের ফাঁকে একটা মঞ্চ গড়া হয়েছিল, যেখান থেকেই নরেন্দ্র মোদি জন মানসের উদ্দেশ্যে ভাষণ দিয়েছলেন। প্যাটেলের ভাস্কর্যউচ্চতায় নিউ ইয়র্কের স্ট্যাচু অফ লিবার্টির দ্বিগুণ।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে আগেই জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল যে, অনুষ্ঠানে একটি পাত্রে লবণ এবং নর্মদা নদীর পানি ঢেলে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করবেন মোদি। সেটাই করেছিলে তিনি।

পাঁচ বছর আগে ২০১৩ সালের ৩১ অক্টোবর গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী থাকার সময় ভাস্কর্যনির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন মোদি।

ভারতে সর্দার প্যাটেলকে লৌহ মানব বলা হতো। আর তাই এই ভাস্কর্য(Statue of Unity) নির্মাণ করতে ভারতের বিভিন্ন জায়গা থেকে লোহা নিয়ে আসা হয়েছে। এখানে ধুতি এবং শাল পরিহিত সর্দারের রূপ দেওয়া হয়েছে।

পদ্মভূষণ প্রাপ্ত শিল্পী রাম ভি সুতার এই ভাস্কর্যর নকশা তৈরি করেছেন। ২৫০ জন ইঞ্জিনিয়ার এবং ৩৪০০ জন শ্রমিক ৩৩ মাসের চেষ্টায় ভাস্কর্যটি তৈরি হয়েছে।

এরপর ভারতে বা গুজরাতে বেড়াতে গেলে সর্দার বল্লভ ভাই প্যাটেলের সাথে দেখা করে আসতে ভুলবেন না কিন্তু।

ইসি/