একই দিনে উইম্বলডনেও মহাকাব্যিক ফাইনাল

ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ | ৪ কার্তিক ১৪২৬

একই দিনে উইম্বলডনেও মহাকাব্যিক ফাইনাল

পরিবর্তন ডেস্ক ১:৪৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৫, ২০১৯

একই দিনে উইম্বলডনেও মহাকাব্যিক ফাইনাল

গতকাল পুরো ক্রিকেট বিশ্বই বুদ হয়েছিল লর্ডসের বিশ্বকাপ ফাইনালে। একই দিনে লর্ডসের অদূরে লন্ডনের অল-ইংল্যান্ড ক্লাবের সেস্ট্রাল কোর্টে যে বিশ্ব টেনিসের সবচেয়ে মর্যাদার টুর্নামেন্ট উইম্বলডনেরও ফাইনাল ছিল, সেদিকে ভ্রুক্ষেপও ছিল না ক্রিকেটপ্রেমীদের।

তবে বিশ্বজুড়ে কোটি কোটি টেনিস ভক্তের চোখ ঠিকই বাঁধা ছিল অল-ইংল্যান্ড ক্লাবের সেন্ট্রাল কোর্টে। কাকতালীয় ব্যাপার হলো, লর্ডসের ক্রিকেট বিশ্বকাপের ফাইনালের মতো উইম্বলডনের পুরুষ এককের ফাইনালটিও হয়েছে মহাকাব্যিক।

যে নাটকের শেষ হাসিটা হেসেছেন নোভাক জোকোভিচ। ফেদেরারকে হারিয়ে উইম্বলডনে পঞ্চম শিরোপা জিতে নিয়েছেন সার্বিয়ান তারকা।

একই দিনে একই শহরে দুই খেলার ফাইনাল। এক খেলার দর্শকেরা স্নায়ুক্ষয়ী উত্তেজনার ফাইনাল দেখে হৃদয় তৃপ্তি করবে, আর অন্য খেলাটির দশকেরা মজা না পেয়ে পয়সা উসুল না হওয়ার আক্ষেপ করবে, তা কি হওয়া উচিত নাকি! তাই হয়তো অদৃশ্যে বসে ভাগ্যদেবী দুটি ফাইনালকেই মিলিয়ে দিলেন একবিন্দুতে।

লর্ডসে ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার ক্রিকেট বিশ্বকাপের ফাইনালের পরতে পরতে যেমন রোমাঞ্চ ছিল, একই রকম রোমাঞ্চকর ছিল নোভাক জোকোভিচ ও রজার ফেদেরারের মধ্যকার উইম্বলডনের শিরোপা দ্বৈরথও।

বিশ্ব টেনিসের ইতিহাসে কাব্যিক ফাইনালের নজির ভুরিভুরি। তবে গতকাল সর্বকালের অন্যতম সেরা দুই তারকার লড়াইটা সেই কাব্যিক ফাইনালগুলোর তালিকার ওপরের দিকেই থাকবে। তিন সেটের দ্বৈরথের সমাপ্তি হয়েছে ৫ সেটে। সেই ৫ সেটের তিনটিরই আবার নিষ্পত্তি হয়েছে টাইব্রেকে। শিরোপা নির্ধারণী শেষ সেটটাও নিষ্পত্তি হয়েছে টাইব্রেকে। যেন লর্ডসের ফাইনালের সুপার ওভার নাটকটাই শুধু রূপ বদলে অল-ইংল্যান্ড ক্লাবের সেন্ট্রাল কোর্টে প্রদর্শিত।

ফেদেরার-জোকোভিচের ফাইনাল গ্যালারি ও টিভি সেটের সামনে দর্শকদের দীর্ঘ ৪ ঘণ্টা ৫৫ মিনিট বেঁধে রেখেছিলেন জোকোভিচ-ফেদেরার। চরম স্নায়ু পরীক্ষার ম্যাচটিতে শেষ হাসিটা ৩২ বছর বয়সী জোকোভিচই হেসেছেন। জিতেছেন ৭-৬ (৭-৫), ১-৬, ৭-৬ (৭-৪), ৪-৬, ১৩-১২ (৭-৩) গেমে।

স্কোরকার্ড স্পষ্ট করেই বলছে, ফেদেরার দুটি সেটই জিতেছেন সরাসরি। অন্যদিকে, টাইব্রেকে গড়ানো ৩টি সেটই জিতেছেন জোকোভিচ।

ফাইনালে হারের কষ্ট আছে। তবে ৩৮ ছুঁইছুঁই বয়সে উইম্বলডনের ফাইনালে উঠা, এবং তাতে সমানে সমানে লড়াই করে ইতিহাসের পাতায় জায়গা করে নেওয়া, ফেদেরার এবং তার ভক্তদের এ জন্য এটাও কম তৃপ্তির নয়। উইম্বলডনে পঞ্চম হলেও এটা জোকোভিচের ক্যারিয়ারে ১৬তম গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপা। যেটিতে সর্বকালের সর্বোচ্চ গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপা জয়ীদের তালিকার তৃতীয় স্থানটি আরও পাকা হলো তার।

লর্ডসের ফাইনালে হারের পর নিউজিল্যান্ডকে সমবেদনা জানিয়েছেন অনেকেই। বিজয়ী ইংলিশরাও স্বীকার করেছে, ‘নিউজিল্যান্ডও বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের যোগ্য দাবিদার ছিল।’ ঠিক একই রকমভাবে উইম্বলডনের নতুন রাজাও বললেন, ‘এটা দুর্ভাগ্যের যে, এমন ম্যাচে কাউকে হারতে হয়!’

কেআর

 

টেনিস: আরও পড়ুন

আরও