অনলাইন ব্যাংকিং করেন, ভুলেও এই অ্যাপ নয়

ঢাকা, ১৮ জুন, ২০১৯ | 2 0 1

অনলাইন ব্যাংকিং করেন, ভুলেও এই অ্যাপ নয়

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:৫২ অপরাহ্ণ, জুলাই ০৫, ২০১৯

অনলাইন ব্যাংকিং করেন, ভুলেও এই অ্যাপ নয়

ব্যস্ত দুনিয়ায় সবই এখন অ্যাপ নির্ভর। অনলাইন ফুড ডেলিভারি থেকে শুরু করে জিনিসপত্র কেনাকাটা- সময় বাঁচাতে সবার ভরসা গুগল প্লে বা অ্যাপ স্টোর।

কিন্তু, আপনি কি জানেন এর আঁড়ালে লুকিয়ে রয়েছে এমন এক ফাঁদ, যা আপনাকে করে দিতে পারে সর্বশান্ত!

হ্যাকারদের হাতে চলে যেতে পারে আপনার ব্যক্তিগত নথি, পাসওয়ার্ড। লুট হয়ে যেতে পারে আপনার অনলাইন ব্যাংক অ্যাকাউন্টের জমানো সব অর্থ।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পক্ষ থেকে ‘এনি ডেস্ক’ নামে এমনই এক অ্যাপের ব্যাপারে জনসাধারণকে সতর্ক করা হয়েছে।

রিজার্ভ ব্যাংকের সাইবার সিকিউরিটি বিভাগের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এই অ্যাপটি মূলত দূর নিয়ন্ত্রিত। একবার এই অ্যাপটি নামানোর সঙ্গে সঙ্গেই সেটি ব্যবহারকারীর নেট ব্যাংকিং সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্য তার সিস্টেমে নিয়ে নিতে পারে।

আর সেটারই সুযোগ নিচ্ছে প্রতারকরা। চোখের নিমেষেই হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা।

সম্প্রতি ভারতের এইচডিএফসি ব্যাংকও এই অ্যাপের ব্যাপারে ব্যবহারকারীদের সতর্কবার্তা দিয়েছে।

এক বিবৃতিতে ব্যাংকটি জানায়, প্রতারকরা প্রথমে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতে অ্যাপটি ব্যবহারের জন্য নোটিফিকেশন পাঠাবে। অ্যাপ ডাউনলোড হয়ে গেলে একটি নয় সংখ্যার সিকিউরিটি ডিজিট যাবে ব্যবহারকারীদের কাছে। সেটা কোনোভাবে ভেরিফাই হলেই আপনার যাবতীয় তথ্য চলে যাবে হ্যাকারদের নিয়ন্ত্রণে!

শুধু তাই নয় আপনার যে মোবাইল নম্বরটি ব্যাংক অ্যাকাউন্টের সঙ্গে সংযুক্ত সেখানেও ফোন করে নানা কৌশলে চাওয়া হতে পারে আপনার ডেবিট কার্ড নম্বর এবং ব্যক্তিগত তথ্য।

তাই এখনই সচেতন হন। যদি ‘এনি ডেস্ক’ ডাউনলোড করে থাকেন অবিলম্বেই তা আনইনস্টল করুন। কোনো বিষয়ে সন্দেহ হলে এখনই আপনার ব্যাংক ম্যানেজারের সঙ্গে যোগাযোগ করুন। প্রয়োজনে মোবাইল ব্যাংকিং সংক্রান্ত অ্যাপগুলোতে ‘অ্যাপ লক’ পরিসেবা চালু করুন। দেরি হওয়ার আগেই নিন উপযুক্ত ব্যবস্থা।

জেডএস/আইএম

 

প্রযুক্তির খবর: আরও পড়ুন

আরও