যৌন হেস্তার প্রতিবাদে গুগল কর্মীদের ‘ওয়াকআউট ফর রিয়্যাল চেঞ্জ’

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮ | ২৯ কার্তিক ১৪২৫

যৌন হেস্তার প্রতিবাদে গুগল কর্মীদের ‘ওয়াকআউট ফর রিয়্যাল চেঞ্জ’

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:০৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ০২, ২০১৮

যৌন হেস্তার প্রতিবাদে গুগল কর্মীদের ‘ওয়াকআউট ফর রিয়্যাল চেঞ্জ’

গত দুই বছরে যৌন হেনস্তার অভিযোগে ৪৮ জন কর্মীকে ছাঁটাই করা হয়েছে বলে সম্প্রতি এক চিঠিতে কর্মীদের জানিয়েছিল তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা গুগল। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশে সেই গুগল থেকেই ‘ওয়াকআউট’-এ শামিল হলেন কয়েক শ কর্মী।

তাদের অভিযোগ, যৌন হেনস্তায় অভিযুক্ত কর্মীদের প্রতি নমনীয়তা দেখাচ্ছে সংস্থা।

বিক্ষুব্ধ কর্মীরা প্রতিবাদের নাম দিয়েছেন, ‘ওয়াকআউট ফর রিয়্যাল চেঞ্জ।’

কলকাতার আনন্দবাজার বলছে, গত মাসের শেষে একটি মার্কিন দৈনিকে গুগল-এর প্রাক্তন কর্মী ও অ্যানড্রয়েড-এর স্রষ্টা অ্যান্ডি রুবিনকে নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

সেখানে দাবি করা হয়, ২০১৪ সালে সংস্থা ছাড়ার সময়ে অ্যান্ডি ৯ কোটি ডলারের প্যাকেজ নিয়ে যান। তাই থেকে বিতর্কের সূত্রপাত। সেই সূত্রেই কর্মীদের খোলা চিঠি দিয়ে ছাঁটাইয়ের ওই খবর দেন সংস্থার সিইও সুন্দর পিচাই।

অ্যান্ডি প্রসঙ্গে কোনও মন্তব্য না করে তিনি বলেন, গুগল-এ যৌন হেনস্তার অভিযোগ অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হয়, যথাযথ তদন্ত হয়। অভিযোগ প্রমাণ হলে ব্যবস্থাও নেওয়া হয়।

বস্তুত ওই দৈনিকের প্রতিবেদনের জেরেই গতকাল বিশ্বজুড়ে গুগলের কর্মীরা প্রতিবাদ জানিয়েছেন বলে খবর বেরিয়েছে।

গুগলের কর্মীরা চাইছেন, যৌন হেনস্তার অভিযোগের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ কিছু বদল আনা হোক। সিলিকন ভ্যালির কর্মীদের চুক্তিতে সাধারণত লেখা থাকে, ‘সমস্যা মেটাতে হবে সংস্থার অন্দরেই। কোর্ট পর্যন্ত যেন সেটা না গড়ায়।’ গুগল-কর্মীদের এতে আপত্তি আছে। যৌন হেনস্তা বা পক্ষপাতের অভিযোগের ক্ষেত্রে তারা চুক্তির এই অংশ পাল্টাতে চান। প্রয়োজনে যাতে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে মামলা করা যায়।

সংস্থার সিইও বলেছেন, ‘আমরা প্রতিবাদের বিষয়টি জানতাম। গতকালই কর্মীদের তা জানিয়েছি। প্রতিবাদে যোগদানে যারা ইচ্ছুক, আমরা তাদের পাশে আছি।’

পরে তিনি বলেছেন, ‘আমরা কীভাবে সংস্থার নীতি এবং পদ্ধতি পাল্টাতে পারি, তা নিয়ে কর্মীরা পরামর্শ দিয়েছেন। তা কীভাবে কার্যকর করা যায়, দেখব।’

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জাপানের রাজধানী টোকিওতে প্রতিবাদ শুরু হয় সকাল ১১টা ১০টায়। ভারতেও হায়দরাবাদ, গুরুগ্রাম ও মুম্বাইয়ের অফিসে প্রতিবাদে অংশ নেন ১৫০ জন কর্মী। সোশ্যাল মিডিয়ায় #গুগলওয়াকআউট লিখে প্রতিবাদ চলছে।

গুগলের নিজস্ব সংস্থা অ্যালফাবেট-এর অধিকর্তা রিচার্ড ডেভলও যৌন হেনস্তার অভিযোগ উঠায় গতকাল সরে গেছেন পদ থেকে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠে কয়েক বছর আগে। তা সত্ত্বেও সংস্থায় কেন ছিলেন তিনি? প্রশ্ন তোলা হয় ওই প্রতিবেদনে। শেষমেশ মঙ্গলবার ইস্তফা দেন তিনি। গুগল সে খবর স্বীকার করে নিয়েছে।

সিইও প্রকাশ্যে বার্তা দেওয়া সত্ত্বেও কর্মীরা ক্ষুব্ধ কেন? গুগলে ও অ্যালফাবেট-এ এখন কাজ করেন অন্তত ৯৪ হাজার কর্মী। তাদের অনেকেরই বক্তব্য,  যৌন হেনস্তার অভিযোগ নিয়ে সংস্থা যথেষ্ট সক্রিয় নয়।  

আরপি