শিশু তুহিন হত্যায় বাবা-চাচারা ফের রিামান্ডে 

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

শিশু তুহিন হত্যায় বাবা-চাচারা ফের রিামান্ডে 

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি ৫:৫৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২১, ২০১৯

শিশু তুহিন হত্যায় বাবা-চাচারা ফের রিামান্ডে 

সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে শিশু তুহিন হত্যা মামলায় তুহিনের বাবা আব্দুল বাছিরসহ ৩ আসামির আবারও রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

সোমবার দুপুরে সুনামগঞ্জ চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শ্যাম কান্দ সিনহা তাদের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

তুহিন হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মো. আবু তাহের মোল্লা তুহিনের বাবা আব্দুল বাছির, চাচা আব্দুল মোছাব্বির ও জমসেদকে সোমবার দুপুরে সুনামগঞ্জ চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শ্যাম কান্দ সনিহার আদালতের হাজির করে প্রত্যেকে ৭ দিন করে রিমান্ড প্রার্থনা করলে আদালত তুহিনের বাবা আব্দুল বাছিরকে ৫ দিন এবং চাচা আব্দুল মোছাব্বির ও জমসেদকে তিনদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে গত শুক্রবার বিকেলে তিনদিনের রিমান্ড শেষে তুহিনের বাবা আব্দুল বাছির, চাচা আব্দুল মোছাব্বির  ও জমসেদকে সুনামগঞ্জ চিফ ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের (দিরাই জোন) বিচারক মো. খালেদ মিয়ার আদালতে হাজির  করে পুলিশ। আদালত আসামিদের জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

সুনামগঞ্জের কোর্ট ইন্সপেক্টর আশেক সুজা মামুন জানান, সোমবার তুহিনের বাবা ও চাচাদের আদালতে হাজির করলে  সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শ্যাম কান্ত সিনহা তুহিনের বাবা আব্দুল বাছিরকে ৫ দিনের এবং চাচা আব্দুল মোছাব্বির ও জমসেদকে তিনদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, গত ১৩ অক্টোবর রাত ১টার দিকে জেলার দিরাই উপজেলার রাজানগর ইউনিয়নের  কেজাউড়া গ্রামে তুহিন হত্যার ঘটনা ঘটে। ১৪ অক্টোবর ভোরে গাছের সঙ্গে ঝুলানো অবস্থায় শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ সময় তুহিনের কান, লিঙ্গ কাটা ও পেটে দুটি ধারালো ছুরিবিদ্ধ ছিল। ওইদিন তুহিনের বাবাসহ ৭ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে নেয় পুলিশ। ১৫ অক্টোবর তুহিরে চাচা নছির ও চাচাতো ভাই শহিরিয়ার আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয় এবং পুলিশ নিহত তুহিনের বাবা আব্দুল বাছির, চাচা আব্দুল মছব্বির ও জমসেদের রিমান্ড চায় পুলিশ।

এইচআর

 

সিলেট: আরও পড়ুন

আরও