সিলেটে শিশু নাঈম হত্যা মামলায় ৪ জনের ফাঁসি

ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ | ৪ কার্তিক ১৪২৬

সিলেটে শিশু নাঈম হত্যা মামলায় ৪ জনের ফাঁসি

সিলেট ব্যুরো ৪:০৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ০৯, ২০১৯

সিলেটে শিশু নাঈম হত্যা মামলায় ৪ জনের ফাঁসি

দীর্ঘ ৮ বছর পর সিলেটের দক্ষিণ সুরমায় চাঞ্চল্যকর শিশু নাঈম হত্যা মামলায় চার্জশিটভুক্ত ৫ আসামির মধ্যে ৪ জনকে ফাঁসি ও একজনকে খালাস দিয়েছেন সিলেট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল।

বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টায় ট্রাইব্যুনালের বিচারক জেলা জজ মো. মোহিতুল হক এ রায় দেন।

বাদি পক্ষের আইনজীবী গোলাম ইয়াহইয়া চৌধুরী সুহেল জানান, শিশু নাঈম হত্যা মামলায় চারজনকে ফাঁসি ও একজনকে খালাস দেয়া হয়েছে।

তারা হচ্ছেন- সিলেটে দক্ষিণ সুরমা উপজেলার পুরান তেতলী গ্রামের মো. ইসমাইল আলী, একই এলাকার মো. মিঠুন মিয়া, দক্ষিণ সুরমা থানার দক্ষিণ ভার্থখলা ডি ব্লকের বিপ্লব হোসেন বিপলু ও লক্ষীপুর জেলার রামগঞ্জ থানার নাদবুদ গ্রামের জুনেদ হোসেন। ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত মো. মিঠুন মিয়ার সহোদর রুবেলকে খালাস দেয়া হয়েছে। খালাস পাওয়া রুবেল ছাড়া বাকি সব আসামি কারাগারে রয়েছেন।

জানা গেছে, ২০১১ সালের ১৪ আগস্ট তারাবির নামাজ পড়তে বাড়ি থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হয় নাঈম। এর সাত দিন পর বাড়ির পাশের জঙ্গল থেকে তার বস্তাবন্দী গলিত লাশ উদ্ধার করা হয়। ২০১১ সালের ২০ আগস্ট নাঈমের বাবা আব্দুল হক বাদি হয়ে অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে দক্ষিণ সুরমা থানায় মামলা দায়ের করেন। আসামিরা তার ছেলেকে অপহরণ করে ১০ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।

এর মধ্যে জড়িতরা তার আত্মীয় থাকায় নাঈম তাদের চিনে ফেলে। পরে তাকে হত্যা করে বস্তাবন্দি অবস্থায় গ্রামের একটি জঙ্গলে ফেলে দেয়। দীর্ঘ আট বছর পর আজ এ মামলার রায় দেয়া হয়।

মামলার বাদি ও শিশু নাঈমের পিতা আব্দুল হক এ রায়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে উচ্চ আদালতে এ রায় বহাল ও ফাঁসি দ্রুত কার্যকরের দাবি জানান। মোজাম্মেল হোসেন নাঈম দক্ষিণ সুরমা বলদি লিটল স্টার কিন্ডারগার্টেনের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র ছিল।

ডিএস/আরপি

 

সিলেট: আরও পড়ুন

আরও