শ্রীমঙ্গলে ছেলেধরা সন্দেহে যুবক আটক, শিশু উদ্ধার

ঢাকা, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | 2 0 1

শ্রীমঙ্গলে ছেলেধরা সন্দেহে যুবক আটক, শিশু উদ্ধার

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি ৯:২৯ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৪, ২০১৯

শ্রীমঙ্গলে ছেলেধরা সন্দেহে যুবক আটক, শিশু উদ্ধার

শ্রীমঙ্গলে ছেলেধরা সন্দেহে হামিদ মিয়া (৪০) নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। এসময় তারেক নামে এক শিশুকে উদ্ধার করা হয়।

আটক হামিদ মিয়া জুড়ী উপজেলার উত্তর নোয়াগ্রাম গ্রামের আব্দুল বাতেনের ছেলে। সে আখাউড়া-সিলেট লাইনে ট্রেনের হকার ও পানি বিক্রেতা।

বুধবার বিকেলে স্থানীয়রা ভাড়াউড়া চা-বাগান থেকে ছেলেধরা সন্দেহে আটক করে শ্রীমঙ্গল থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক সুমন হাজরাসহ সঙ্গীয় পুলিশ সদস্যদের কাছে তুলে দেয়। এসময় স্থানীয়রা হামিদের কাছে একটি পলিথিনের ব্যাগে কয়েক হালি কলাও উদ্ধার করে।

শ্রীমঙ্গল থানার পুলিশ পরিদর্শক সোহেল রানা বলেন,‘আটক হামিদ আখাউড়া ট্রেনে পানি বেচে। সে ট্রেনে করে শ্রীমঙ্গল স্টেশনে নামে।

অনেকক্ষণ ঘোরাঘুরির পর শ্রীমঙ্গল রেল স্টেশনের টোকাই তারেক (৬)-কে পেয়ে টাকা-পয়সার লোভ দেখিয়ে তাকে শহরতলীর ভাড়াউড়া চা-বাগানের দিকে নিয়ে যায়। সেখানে স্থানীয়রা টোকাই ছেলের পেছনে তাকে ঘুরতে দেখে হামিদকে ছেলেধরা সন্দেহে আটকিয়ে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ খবর পেয়ে শিশু তারেককে উদ্ধার করে এবং ছেলেধরা সন্দেহে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

উদ্ধারকৃত শিশু তারেক হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার বাসিন্দা। তার মা ভিক্ষে করে শ্রীমঙ্গলে কলোনিতে ভাড়া থাকেন। তার বাবা নেই।

পুলিশ পরিদর্শক সোহেল রানা জানান, আটক হামিদের পিসিপিআর যাচাই চলছে, তদন্তে ছেলেধরা না হলে তাকে ছেড়ে দেয়া হবে।

এইচআর

 

সিলেট: আরও পড়ুন

আরও