পর্যটকে মুখর সিলেটের বিনোদন কেন্দ্র

ঢাকা, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | 2 0 1

পর্যটকে মুখর সিলেটের বিনোদন কেন্দ্র

সিলেট ব্যুরো ৯:০৮ অপরাহ্ণ, জুন ০৬, ২০১৯

পর্যটকে মুখর সিলেটের বিনোদন কেন্দ্র

পবিত্র ঈদুল ফিতরে সিলেটের বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্রে দর্শনার্থীদের উপচেপড়া ভিড় জমেছে। সকাল থেকে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি থাকলেও বেলা ১২টার পর থেকে আকাশে সূর্য উঁকি দেয়। আবহাওয়া পরিস্থিতি একটু অনুকূল হওয়ায় ভিড় বাড়ে সিলেটের বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে। কিশোর, তরুণ-তরুণী, শিশুদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠে বিনোদন কেন্দ্রগুলো।

ঈদের দিন সকাল থেকেই গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি মন খারাপের বার্তা দেয় সিলেটে। বেলা বাড়ার সাথে সাথে বৃষ্টি কমে আকাশে উঁকি দেয় সূর্য। কোলাহলমুখর হয়ে উঠে ঈদ আনন্দ। আবাল বৃদ্ধ বণিতা ছুটতে থাকেন সিলেটের বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্রে। সিলেট নগরীর ওসমানী শিশু উদ্যান, ড্রিমল্যান্ড, অ্যাডভেঞ্চার ওয়ার্ল্ড, এক্সেলসিওরসহ বিভিন্ন বিনোদন পার্কে জড়ো হন সিলেটবাসী। এ ছাড়াও সুরমা নদীরে তীরেও বিনোদন প্রত্যাশীরা ভিড় করেন। ঈদের পর দিন বৃহস্পতিবারও নগরীর বিনোদন কেন্দ্রগুলো ছিল পর্যটকে ঠাসা।

ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করতে বিভিন্ন উপজেলা থেকেও অনেকে বেড়াতে আসেন সিলেট নগরী ও আশপাশের বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে। ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে সকলে মিলে একটু ঘুরে বেড়ান। বিশেষ করে, শিশুদের মধ্যে ঈদ আনন্দ ছড়িয়ে দিতে অভিভাবকরা তাদের নিয়ে ছুটছেন বিনোদন কেন্দ্রে।

সিলেট নার্সিং অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ইসরাইল আলী সাদেক বলেন, মূলত বাচ্চাদের আনন্দ দিতেই ঈদের দিন ও পরের দিনগুলোতে বিনোদন কেন্দ্রে এসেছি। সিলেট নগরীতে বিনোদন কেন্দ্রের অভাব রয়েছে। আরো কিছু বিনোদন কেন্দ্র দরকার।

এদিকে, ঈদে পর্যটকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ পুরোপুরি প্রস্তুতি সেরে রেখেছে। পর্যটকদের যেকোনো সমস্যা নিরসনে কন্ট্রোল রুমও খোলা হয়েছে বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত উপ-কমিশনার জেদান আল মূসা।

তিনি বলেন, পর্যটকরা যেকোনো সমস্যার মুখোমুখি হলে আমরা দ্রুত তা থেকে রক্ষার পদক্ষেপ নিতে পারব।

ঈদের দিন মূলত সিলেট নগরীর বিনোদন কেন্দ্রগুলো জমজমাট হলেও প্রতিবছর ঈদের পর দিন থেকে জাফলং, বিছনাকান্দি, পান্তুমাই, রাতারগুল, লালাখালে পর্যটক নামে।

ডিএস/আরপি

 

সিলেট: আরও পড়ুন

আরও