নদীর চাঁদাবাজিকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধ ভ্যানচালকের মৃত্যু

ঢাকা, ১২ জুলাই, ২০১৯ | 2 0 1

নদীর চাঁদাবাজিকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধ ভ্যানচালকের মৃত্যু

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি ৯:৫৬ পূর্বাহ্ণ, মে ১৫, ২০১৯

নদীর চাঁদাবাজিকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধ ভ্যানচালকের মৃত্যু

সুরমা নদীতে চাঁদাবাজিকে কেন্দ্র করে সুনামগঞ্জের ছাতকে দুই পক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ শাহাব উদ্দিন (৫০) নামের এক ভ্যানচালকের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার দিনগত রাতে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. বরকতুল্লাহ খান ভ্যানচালক শাহাব উদ্দিনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ছাতক শহরে অভিযান চালিয়ে অন্তত ২০ জনকে সংঘর্ষে জড়িত থাকা সন্দেহে আটক করা হয়েছে।

তাৎক্ষণিকভাবে আটকদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার দিনগত রাত ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত ছাতক বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ছাতক পৌর কাউন্সিলর তাপস চৌধুরী ও একই  পৌরসভার মেয়র কালাম চৌধুরীর ভাই ছাতক লাইমস্টোন ইমপোর্টাস এন্ড সাপ্লাই গ্রুপের প্রেসিডেন্ট সেলিম চৌধুরীর লোকজনের মধ্যে সুরমা নদীতে চাঁদাবাজিকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ বাধে।

এতে ছাতক থানার ওসি মোস্তফা কামাল ও ৫ পুলিশ সদস্যসহ ৩০ জন আহত হয়। এর মধ্যে গুলিবিদ্ধ ভ্যানচালাক শাহাব উদ্দিন নিহত হয়েছেন।

সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ বেশ কিছু টিয়ার শেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে।

আহতদের ছাতক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ছাতক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা. আজাদ জানান, গুলিবিদ্ধ ৭ জনকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

তাৎক্ষণিকভাবে আহতদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।

স্থানীয়রা ও পুলিশ জানায়, বেশ কয়েক দিন ধরে সুরমা নদীর ছাতক এলাকায় চাঁদাবাজিকে কেন্দ্র করে ছাতক পৌরসভার কাউন্সিলর তাপস চৌধুরী ও একই পৌরসভার মেয়র কালাম চৌধুরীর ভাই ছাতক লাইমস্টোন ইমপোর্টাস এন্ড সাপ্লাই গ্রুপের প্রেসিডেন্ট সেলিম চৌধুরীর লোকজনের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। মঙ্গলবার দিনগত রাত ৯টার দিকে ছাতক বাসস্ট্যান্ড এলাকায় উভয় পক্ষের লোকজন অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ টিয়ার শেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে।

ছাতক সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মো. বিল্লাল হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, ওসিসহ আহত পুলিশ সদস্যদের ছাতক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এসসি/আরপি 

 

সিলেট: আরও পড়ুন

আরও