দু’পক্ষের সংঘর্ষের মধ্যেই মৃত্যুর কোলে যুবলীগ নেতা

ঢাকা, রবিবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮ | ১ পৌষ ১৪২৫

দু’পক্ষের সংঘর্ষের মধ্যেই মৃত্যুর কোলে যুবলীগ নেতা

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি ৮:৪৩ অপরাহ্ণ, জুন ১৮, ২০১৮

দু’পক্ষের সংঘর্ষের মধ্যেই মৃত্যুর কোলে যুবলীগ নেতা

হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষের মধ্যে আল আমিন (৩৫) নামে এক যুবলীগ নেতার মৃত্যু হয়েছে।

সোমবার বিকেলে উপজেলা পরিষদের হলরুমে এ ঘটনা ঘটে।

আল আমিন আজমিরীগঞ্জ উপজেলার প্রয়াত চেয়ারম্যান আতর আলী মিয়ার ছেলে।

পুরিশ ও স্থানীয়রা জানান, বাবার মৃত্যুতে উপজেলা পরিষদ শূন্য হয়। সেখানের উপনির্বাচনে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী ছিলেন আল আমিন।

হবিগঞ্জ-২ (বানিয়াচং-আজমিরীগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ খান পরিবর্তন ডটকমকে জানান, উপনির্বাচনে দলীয় প্রার্থী নির্ধারণের জন্য সোমবার বিকেলে উপজেলা পরিষদের হলরুমে স্থানীয় আওয়ামী লীগের সভা আহবান করা হয়। সভায় দলীয় প্রার্থী কিভাবে মনোনয়ন করা হবে, তা নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ শুরু হয়।

তিনি বলেন, ‘উপজেলা চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন প্রত্যাশী যুবলীগ নেতা আল আমিন হার্টের রোগী ছিলেন। বিবাদ চলাকালে হার্ট অ্যাটাকে তার মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে।’

আজমিরীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের মেডিকেল অফিসার ডা. শিউলীর বরাতে হবিগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. সুচিন্ত্য চৌধুরী জানান, স্বাস্থ্য কেন্দ্রে আল আমিনকে মৃত অবস্থায় আনা হয়েছে।

এদিকে, যুবলীগ নেতা আল আমিনের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে দাঙ্গা পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

হবিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শৈলেন চাকমা পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, ‘আল আমিনের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়া গেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে। এলাকায় দাঙ্গা পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।’

কেএটি/আইএম