পুঁজিবাজারে ফের দরপতন

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

পুঁজিবাজারে ফের দরপতন

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৫:০৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৬, ২০১৯

পুঁজিবাজারে ফের দরপতন

পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক খায়রুল হোসেনের পদত্যাগের গুজবসহ ৩ ইস্যুতে সপ্তাহের চতুর্থ কার্যদিবসে সূচকের উল্লম্ফন দেখা গেছে বাজারে। কিন্তু এক দিনের ব্যবধানে আজ বুধবার আবারো বড় পতনের মধ্যে দিয়ে শেষ হয়েছে লেনদেন।

বুধবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সার্বিক মূল্যসূচক ডিএসইএক্স কমেছে ৪০.০১ পয়েন্ট। এসময় ডিএসইর সার্বিক লেনদেন কমেছে।

অপরদিকে, চট্টগাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ মূল্যসূচক কমেছে ৫৪.৩৭ পয়েন্ট। এসময় সিএসইতে ১৫ কোটি ৫০ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। ডিএসই ও সিএসইর তথ্য বিশ্লেষণে এ তথ্য জানা গেছে।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ইনভেস্টমেন্ট কর্পোরেশন অব বাংলাদেশের (আইসিবি) বিনিয়োগের খবর ও ব্যাংকগুলো পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ শুরু করেছে এবং বিএসইসি চেয়ারম্যানের পদত্যাগের গুজবে মঙ্গলবার পুঁজিবাজারের মূল্যসূচক বেড়েছে ১০০ পয়েন্টের বেশি। আইসিবি ও ব্যাংকের নতুন বিনিয়োগের খবরের সত্যতা মিললেও চেয়ারম্যান পদত্যাগের খবর সত্য না হওয়ায় আজ আবারো বিক্রয় চাপ দিয়েছে বিনিয়োগকারীরা।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৫৪টি কোম্পানি ও ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৬৫টির, কমেছে ২৫৯টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩০টি প্রতিষ্ঠানের। এসময় ডিএসইতে ৯ কোটি ৪৭ লাখ ৬৭ হাজার ৮৭৭টি শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

এদিন ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ৪০.০১ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৭৮১ পয়েন্টে স্থিতি পেয়েছে। এসময় শরীয়াহ্ ভিত্তিক কোম্পানিগুলোর মূল্যসূচক ডিএসইএস ও ডিএস-৩০ সূচক যথাক্রমে ৯.৯২ ও ১৮.৬৫ পয়েন্ট কমেছে।

দিনশেষে ডিএসইতে ৩২৪ কোটি ৫৭ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এর আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৩২৮ কোটি ৫০ লাখ টাকার।

দিনশেষে ডিএসইতে টার্নওভার তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন। এদিন কোম্পানিটির ২১ কোটি ৪১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে ছিল ন্যাশনাল টিউবস, কোম্পানিটির ১৩ কোটি ৬০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে এবং ১৩ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে সামিট পাওয়ার।

ডিএসইর টার্নওভার তালিকায় থাকা অন্যান্য কোম্পানিগুলো হলো- গ্রামীণফোন, স্টান্ডার্ড সিরামিক, ফরচুন সুজ, মুন্নু স্টাফলার্স, স্কয়ার ফার্মা, প্যারামাউন্ট ও মুন্নু সিরামিক লিমিটেড।

অপরদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ সূচক সিএসসিএক্স এদিন ৫৪.৩৭ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৮ হাজার ৮৪৫ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৪৭টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ৫৯টির, কমেছে ১৫৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৯টির দর। দিনশেষে সিএসইতে ১৫ কোটি ৫০ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

জেডএস/এসবি

 

শেয়ারবাজার: আরও পড়ুন

আরও