আস্থা সংকটে ৫ হাজার পয়েন্টের নিচে সূচক

ঢাকা, ১৮ আগস্ট, ২০১৯ | 2 0 1

আস্থা সংকটে ৫ হাজার পয়েন্টের নিচে সূচক

পররিবর্তন প্রতিবেদক ৪:২৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ২২, ২০১৯

আস্থা সংকটে ৫ হাজার পয়েন্টের নিচে সূচক

চরম আস্থা সংকট বিরাজ করছে পুঁজিবাজারে। ফলে অব্যাহত পতনে পুঁজিবাজারের সার্বিক মূল্যসূচক ৩৩ মাসের মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন ৫ হাজার পয়েন্টের নিচে নেমে এসেছে।

সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস রোববারের মতো সোমবারও বিক্রয় চাপ অব্যাহত ছিল পুঁজিবাজারে।

এরই ধারাবাহিকতায় ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সার্বিক মূল্যসূচক কমেছে ৬৭.৩০ পয়েন্ট। এদিন ডিএসইতে ৪৬৪ কোটি ১৮ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

অপরদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ মূল্যসূচক কমেছে ১১৫.৭২ পয়েন্ট। এদিন সিএসইতে ২১ কোটি ১৭ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

ডিএসই ও সিএসই’র বাজার পর্যালোচনায় এসব তথ্য জানা গেছে।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, সোমবার ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৫৩টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৬০টির, কমেছে ২৭৭টির এবং দর অপরিবর্তিত ছিল ১৬টি প্রতিষ্ঠানের। এসময় ডিএসইতে ১৬ কোটি ৬০ লাখ ২৯ হাজার ৬০৫টি শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

এসময় ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ৬৭.৩০ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৯৬৬ পয়েন্টে। ২০১৬ সালের ২২ ডিসেম্বর ডিএসই’তে সূচক ছিল ৪৯৯৬ পয়েন্ট। অর্থাৎ পুঁজিবাজারে আজ সোমবার ৩৩ মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন অবস্থানে রয়েছে।

অপরদিকে, শরিয়াহ সূচক ১৮.৩৩ পয়েন্ট ও ডিএস-৩০ সূচক ২৩.২৬ পয়েন্ট কমে যথাক্রমে ১ হাজার ১৩৯ ও ১ হাজার ৭৭৬ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

এদিন ডিএসইতে ৪৬৪ কোটি ১৮ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এর আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৩৬৮ কোটি ৬৪ লাখ টাকার।

দিনশেষে টাকার অংকে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে ফরচুন সুজের। এদিন কোম্পানিটির ২০ কোটি ৯৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসা স্কয়ার ফার্মার ১২ কোটি ৫৪ লাখ টাকার এবং ১০ কোটি ৫০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে উঠে আসে ইউনাইটেড পাওয়ার।

ডিএসইর টপটেন লেনদেনে উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে ফেডারেল ইন্স্যুরেন্স, সী পার্ল, সিনো বাংলা, মুন্নু সিরামিক, ন্যাশনাল ইন্স্যুরেন্স, গ্রামীণফোন ও বিট্রিশ আমেরিকান টোব্যাকো।

অপরদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সাধারণ মূল্যসূচক সিএসইএক্স ১১৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৯ হাজার ২৫৭ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২৮৬টি কোম্পানির ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৫১টির, কমেছে ২১৬টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৯টির। আর দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ২১ কোটি ১৭ লাখ ৩৬ হাজার টাকা।

জেডএস/এইচআর

 

শেয়ারবাজার: আরও পড়ুন

আরও