২০১৭ সালের পর সর্বনিম্ন অবস্থানে সূচক

ঢাকা, ১৮ আগস্ট, ২০১৯ | 2 0 1

২০১৭ সালের পর সর্বনিম্ন অবস্থানে সূচক

পরিবর্তন প্রতিবদেক ৩:১৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৫, ২০১৯

২০১৭ সালের পর সর্বনিম্ন অবস্থানে সূচক

টানা দর পতন, বিনিয়োগকারীদের বিক্রয় চাপ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের নিষ্ক্রিয়তায় ২০১৭ সালের অবস্থানে ফিরে গেছে পুঁজিবাজার।  টানা ৭ দিনের দর পতনে পুঁজিবাজারের সার্বিক মূল্যসূচক কমেছে ২৯০ পয়েন্ট।

পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের নিষ্ক্রিয়তা ও বাজেট পুঁজিবাজার বান্ধব না হওয়ায় পুঁজিবাজারে তারল্য সংকট দেখা দিয়েছে। ফলশ্রুতিতে মুখে আশার বানী শুনালেও প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা পুঁজিবাজারে ফিরছে না। তাই তারল্য সংকটে তলানিতে ফিরেছে পুঁজিবাজার।

সোমবার  ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স কমেছে ৮৮.০১ পয়েন্ট। এদিকে, ডিএসইতে ৩০৬ কোটি ৬ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

অপরদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ মূল্যসূচক কমেছে ১৬৩.১৯ পয়েন্ট। এদিন সিএসইতে ১৪ কোটি ৪০ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। ডিএসই ও সিএসই’র বাজার পর্যালোচনায় এ তথ্য জানা গেছে।

বাজার বিশ্লেষনে দেখা যায়,সোমবার ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৫২টি কোম্পানির মধ্যে দর বেড়েছে ৩৭টির, কমেছে ৩০৩টির এবং দর অপরিবর্তিত ছিল ১২টি প্রতিষ্ঠানের। এসময় ডিএসইতে ১০ কোটি ৯৪ লাখ ৬৮হাজার ৬৪৯টি শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

এসময় ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ৮৮.০১ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ০৯১ পয়েন্টে। যা ২০১৭ সালের পহেলা জানুয়ারির পরে সর্বনিম্ন। অর্থাৎ আড়াই বছরের ব্যবধানে ডিএসই’র মূল্যসূচক সর্বনিম্ন অবস্থানে নেমে এসেছে। অপরদিকে, শরিয়াহ সূচক ২৪.৩৮ পয়েন্ট ও ডিএস-৩০ সূচক ৩৪.৭৫ পয়েন্ট কমে যথাক্রমে ১ হাজার ১৬৬ ও ১ হাজার ৮১৮ পয়েন্টয়ে দাঁড়িয়েছে।

এদিন ডিএসইতে ৩০৬ কোটি ৬ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এর আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৩৫৪ কোটি ৪ লাখ টাকার।

দিনশেষে ডিএসইতে টার্নওভার তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে গ্রামীণফোন। এদিন কোম্পানিটির ১২ কোটি ৩২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে ছিল মুন্নু সিরামিক, কোম্পানিটির ৯ কোটি ৫৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে এবং ৯ কোটি ৫৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে উঠে আসে ফরচুন সুজ।

ডিএসইর টার্নওভার তালিকায় থাকা অন্যান্য কোম্পানিগুলো হলো- স্কয়ার ফার্মা, ইউনাইটেড পাওয়ার, জেএমআই সিরিঞ্জ, ফেডারেল ইন্স্যুরেন্স, ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স, রানার অটোমোবাইল ও সিঙ্গার বাংলাদেশ।

অপরদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ সূচক সিএসসিএক্স এদিন ১৬৩.১৯ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৯ হাজার ৪৮২ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৭৮টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ৪৩টির, কমেছে ২১৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২১টির দর। আজ ১৪ কোটি ৪০ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

জেডএস/

 

শেয়ারবাজার: আরও পড়ুন

আরও