পতনের তীব্রতা কমলেও লেনদেনে মন্দা অব্যাহত

ঢাকা, ১৮ জুলাই, ২০১৯ | 2 0 1

পতনের তীব্রতা কমলেও লেনদেনে মন্দা অব্যাহত

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৪:০৯ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৯, ২০১৯

পতনের তীব্রতা কমলেও লেনদেনে মন্দা অব্যাহত

বিনিয়োগকারীদের কঠোর আন্দোলনের মধ্যে ট্রেক হোল্ডারদের দফায় দফায় বৈঠকে পতনের তীব্রতা কমেছে পুঁজিবাজারে। কিন্তু সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর সার্বিক লেনদেন ও গড় লেনদেন কমেছে বাজারে। লেনদেন ও সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতার মধ্যেও সদ্য সমাপ্ত সপ্তাহে বাজারে ১৭৬টি কোম্পানি ও ফান্ডের দর বেড়েছে।

ডিএসইর সপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনায় এ তথ্য জানা গেছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, সদ্য সমাপ্ত সপ্তাহে (১৫-১৮ এপ্রিল) ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ২৩২ কোটি ৬২ লাখ ৪ হাজার ৪৭১ টাকা। এর আগের সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৬৭৩ কোটি ৪৯ লাখ ২৫ হাজার ৭৫৫ টাকা। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে লেনদেন কমেছে ২৬.৩৪ শতাংশ। সদ্য সমাপ্ত সপ্তাহে পহেলা বৈশাখের কারণে বাজারে ৪ কার্যদিবস লেনদেন হয়েছিল, এর আগের সপ্তাহে বাজারে ৫ কার্যদিবস লেনদেন হয়েছিল।

এদিকে, সদ্য সমাপ্ত সপ্তাহে ডিএসইতে দৈনিক গড় লেনদেন হয়েছে ৩০৮ কোটি ১৫ লাখ টাকা। এর আগের সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ৩৩৪ কোটি ৬৯ লাখ টাকা। এসময় ডিএসইতে শেয়ার সংখ্যায় লেনদেন কমেছে ১৮.৯১ শতাংশ। সদ্য সমাপ্ত সপ্তাহে ডিএসইতে ২৮ কোটি ৪৫ লাখ ২৮ হাজার ৫০টি শেয়ার ও ইউনিট।

সদ্য সমাপ্ত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৫৩টি কোম্পানি ও ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৭৬টির, দর কমেছে ১৪৩টির ও দর অপরিবর্তিত ছিল ২৯টি প্রতিষ্ঠানের। এর আগের সপ্তাহে ডিএসইতে দর বেড়েছে ৫২টির, দর কমেছে ২৮০টির ও দর অপরিবর্তিত ছিল ১৯টি প্রতিষ্ঠানের।

সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর সার্বিক মূল্যসূচক কমেছে ৪.৯৮ পয়েন্ট। এসময় ডিএসইর সার্বিক মূল্যসূচক ৫৩২৬ পয়েন্ট থেকে কমে ৫৩২১ পয়েন্টে স্থিতি পেয়েছে। এসময় শরীয়াহ্ সূচক কমেছে ৫.৬১ পয়েন্ট ও ডিএস-৩০ সূচক কমেছে ৫.৪০ পয়েন্ট।

সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে টার্নওভার তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে ফরচুন সুজ। এসময় কোম্পানিটির ৭৬ কোটি ৪৮ লাখ টাকার শেয়ার। যা ডিএসইর সর্বমোট লেনদেনের ৬.২০ শতাংশ। যদিও এসময় ডিএসইতে কোম্পানিটির শেয়ার দর কমেছে ৩.৫০ পয়েন্ট। টার্নওভার তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল সিরামিক খাতের মুন্নু সিরামিক, সদ্য সমাপ্ত সপ্তাহে কোম্পানিটির ৬৮ কোটি ৬৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ৬৪ কোটি ৪২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মধ্যে দিয়ে টার্নওভারের তৃতীয় অবস্থানে ছিল বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবলস।

টার্নওভার তালিকায় থাকা অন্যান্য কোম্পানিগুলো হলো— ইউনাইটেড পাওয়ার, স্কয়ার নিট, স্কয়ার ফার্মা, মুন্নু জুট স্টাফলার্স, গ্রামীণফোন, সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজ ও ব্র্যাক ব্যাংক।

জেডএস/এসবি

 

শেয়ারবাজার: আরও পড়ুন

আরও