ডিএসইতে লেনদেন বাড়লেও সিএসইতে কমেছে

ঢাকা, বুধবার, ১৬ জানুয়ারি ২০১৯ | ৩ মাঘ ১৪২৫

ডিএসইতে লেনদেন বাড়লেও সিএসইতে কমেছে

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৬:৪১ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ০৯, ২০১৯

ডিএসইতে লেনদেন বাড়লেও সিএসইতে কমেছে

সপ্তাহের চতুর্থ কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন বাড়লেও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) কমেছে। কিন্তু দিনশেষে উভয় স্টক এক্সচেঞ্জের মূল্যসূচক বেড়েছে।

বুধবার ডিএসইতে ১ হাজার ২৫ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

অপরদিকে, সিএসইতে ৬২ কোটি ৯৫ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

ডিএসই ও সিএসইর বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, বুধবার দিনশেষে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানি ও ফান্ডগুলোর ১৪৮টির দর বেড়েছে, দর কমেছে ১৬১টির ও দর অপরিবর্তত ছিল ৩৭টির। এসময় ২৭ কোটি ৮৬ লাখ ৮০ হাজার ১৮৬টি শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

এদিন ডিএসইতে ১ হাজার ২৫ কোটি ৭৩ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

এর আগের কার্যদিবসে ডিএসইতে ১ হাজার ১০ কোটি ৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল। অর্থাৎ বুধবার ডিএসইতে ১৫ কোটি টাকার লেনদেন বেড়েছে।

দিনশেষে ডিএসইর সার্বিক মূল্যসূচক ডিএসইএক্স বেড়েছে ২৭.৮১ পয়েন্ট। এসময় ডিএসইর সার্বিক মূল্যসূচক ৫৭৯৮ পয়েন্ট স্থিতি পয়েছে। লেনদেন শেষে শরীয়াহ ভিত্তিক কোম্পানিগুলোর মূল্যসূচক বেড়েছে ৭.৯২ পয়েন্ট ও ডিএস-৩০ সূচক বেড়েছে ৯.৯৩ পয়েন্ট।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে অলেম্পিকের শেয়ার। এদিন কোম্পানির ৩৫ কোটি ৯২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা একটিভ ফাইন কেমিক্যালের ২৯ কোটি ৪৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ২৯ কোটি ৩৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে বিবিএস ক্যাবলসের।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- সিঙ্গার বিডি, ঢাকা ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক, স্কয়ার ফার্মা, জেএমআই সিরিঞ্জ, বেক্সিমকো ও ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্স।

অপরদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ মূল্যসূচক সিএসইএক্স ৪৫.৯০ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৭৪৫ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৬৫টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১২৬টির, কমেছে ১২১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৮টির দর। আর ৬২ কোটি ৬৫ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

জেডএস/এসবি