বিচ হ্যাচারির কর সঞ্চিতি ঘাটতি, নেই ঋণের সত্যতা

ঢাকা, বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

বিচ হ্যাচারির কর সঞ্চিতি ঘাটতি, নেই ঋণের সত্যতা

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৭:৩৬ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৫, ২০১৮

বিচ হ্যাচারির কর সঞ্চিতি ঘাটতি, নেই ঋণের সত্যতা

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বিচ হ্যাচারির কাছে বকেয়া কর বাবদ ১ কোটি ৯৩ লাখ টাকা চেয়ে ২০১৫ সালে চিঠি দিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। কিন্তু কোম্পানি কর্তৃপক্ষ সেই কর এখনো প্রদান করেনি এবং দেওয়ার লক্ষ্যে সঞ্চিতিও গঠন করেনি।

কোম্পানিটির ২০১৭-১৮ অর্থবছরের আর্থিক হিসাব নিরীক্ষায় নিরীক্ষক এই পর্যবেক্ষণ দিয়েছেন। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

নিরীক্ষক জানায়, ২০১১ সালের ৩১ ডিসেম্বর শেষ হওয়া সময়ে বিচ হ্যাচারির কাছে ১ কোটি ৯৩ লাখ টাকা কর চেয়ে এনবিআর ২০১৫ সালে চিঠি দেয়। এরপরে দীর্ঘ সময় পার হয়ে গেলেও সেই কর প্রদান করা হয়নি।

এলক্ষ্যে সঞ্চিতিও গঠন করা হয়নি। তবে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ এনবিআর এর উক্ত দাবির বিপরীতে আপিল করার প্রক্রিয়ায় রয়েছে বলে নিরীক্ষক জানিয়েছেন।

এদিকে, ২০১৮ সালের ৩০ জুনে বিভিন্ন গ্রাহকের কাছে বিচ হ্যাচারির পাওনা রয়েছে ২৭ কোটি ৯৯ লাখ টাকা। এর মধ্যে ১০ কোটি ৮ লাখ টাকা পাওনা নিশ্চিত করেছে নিরীক্ষক। এমতাবস্থায় বাকি অর্থের জন্য অনাদায়ি পাওনা সঞ্চিতি গঠন করা প্রয়োজন হলেও কোম্পানি কর্তৃপক্ষ তা করেনি।

অন্যদিকে অ্যাডভান্স, ডিপোজিট ও প্রিপেমেন্টস হিসাবে ১ বছরের বেশি সময় ধরে ৩৮ লাখ টাকা পাওনা থাকলেও কোম্পানি কর্তৃপক্ষ সঞ্চিতি গঠন করেনি। যেসব পাওনা থেকে কোম্পানির লোকসানের সম্ভাবনা রয়েছে।

এদিকে কৃষি ব্যাংক থেকে বিচ হ্যাচারির প্রজেক্ট লোন হিসাবে ১ কোটি ৫২ লাখ টাকা ও ওয়ার্কিং ক্যাপিটাল হিসাবে ৩ কোটি ৯৫ লাখ টাকার ঋণ রয়েছে। কিন্তু ২০১৭-১৮ অর্থবছরে উক্ত ঋণ পরিশোধে কোন অর্থ প্রদান করা হয়নি। এ নিয়ে ব্যাংকও পূণ:তফসিল করেনি।

তবে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ উক্ত ঋণের বিপরীতে সুদজনিত ব্যয় দেখিয়েছে। যদিও উক্ত ঋণের বিপরীতে বিচ হ্যাচারি কর্তৃপক্ষ নিরীক্ষককে প্রমাণ দেখাতে পারেননি। যে কারনে উক্ত ঋণের সত্যতার বিষয়ে নিরীক্ষক সন্তুষ্ট হতে পারেননি।

জেডএস/