ভারতের আধার নিয়ে মুখ খুললেন স্নোডেন

ঢাকা, সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮ | ৭ শ্রাবণ ১৪২৫

ভারতের আধার নিয়ে মুখ খুললেন স্নোডেন

পরিবর্তন ডেস্ক ৫:১৯ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ০৯, ২০১৮

print
ভারতের আধার নিয়ে মুখ খুললেন স্নোডেন

ভারতের জাতীয় পরিচয় পত্র বা আধার কার্ডের তথ্য ভাণ্ডার নিয়ে সম্প্রতি দেশটির সংবাদমাধ্যম ‘দ্য ট্রিবিউনে’ প্রতিবেদন প্রকাশের পর তা বিতর্কের জন্ম দেয়। অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে বলা হয়, রাষ্ট্রীয় গোপন তথ্য ভাণ্ডারটি নাকি মাত্র ৫শ’ টাকাতেই পাওয়া সম্ভব। প্রতিবেদনটি পড়ে ভারত সরকারও নড়েচড়ে বসে।

তবে প্রকল্পের কর্তাব্যক্তিদের বিরুদ্ধে নয়, বরং পত্রিকার ওই সাংবাদিকের বিরুদ্ধেই এফআইআর দায়ের করে আধার কর্তৃপক্ষ। যা নিয়ে নানা মহলে নিন্দা তো বটেই, প্রশ্নেরও জন্ম দেয়।

সম্প্রতি মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার সাবেক সদস্য এডওয়ার্ড স্নোডেন বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন। প্রতিবেদকের বিরুদ্ধে তদন্তের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে তার টুইটার পাতায় বার্তা দিয়েছেন মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার তথ্য ফাঁস করা আলোচিত এই ব্যক্তি।

টুইটারে স্নোডেন মোদি সরকারের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আধারের তথ্য নিয়ে খবর করার জন্য ওই পত্রিকার সাংবাদিকের বিরুদ্ধে তদন্ত নয়, বরং তাকে পুরস্কৃত করা উচিত। আর গ্রেফতার করা উচিত আধার কর্তৃপক্ষের শীর্ষস্থানীয়দের।

স্নোডেন বলেন, ভারতের সাধারণ মানুষের তথ্য নিয়ে এভাবে ছিনিমিনি খেলার জন্যে শুধু গ্রেফতারই নয়, কর্তৃপক্ষকে জরিমানা করা উচিত।

সম্প্রতি ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দি ট্রিবিউনের সাংবাদিক রচনা খায়রা আধার কার্ডের তথ্য ফাঁস নিয়ে বিশেষ প্রতিবেদন প্রকাশ করেন। যেখানে বলা হয়, ভারতীয় নাগরিকদের ব্যক্তিগত গোপনীয় তথ্য সামান্য টাকার বিনিময়ে কী ভাবে সহজেই ফাঁস হয়ে যাচ্ছে।

খবরটি প্রকাশের পরই বিব্রতকর অবস্থায় পড়ে ভারতের ইউআইডিএআই (Unique Identification Authority of India) কর্তৃপক্ষ। নিজেদের দুর্বলতা ঢাকতে ওই সাংবাদিকের বিরুদ্ধেই তদন্ত শুরু হয়।

টুইটারে তাই স্নোডেনের দাবি হচ্ছে, সরকারের উচিত নিরপেক্ষ আচরণ করা। ওই সাংবাদিকের মাধ্যমে একটি বড় সত্য সামনে এসেছে। এখন ভারত সরকারের উচিত দেশবাসীর ব্যক্তিগত তথ্যের গোপনীয়তা বজায় রাখার জন্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া।

যদিও ইউআইডিএআই বলছে, এই খবর সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। এরপরই ওই পত্রিকা এবং সাংবাদিকের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়।

কেবিএ

 
.



আলোচিত সংবাদ