শ্রীলংকায় গোতাবায়া রাজাপাকসে নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত

ঢাকা, শনিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

শ্রীলংকায় গোতাবায়া রাজাপাকসে নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:২৬ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৮, ২০১৯

শ্রীলংকায় গোতাবায়া রাজাপাকসে নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত

গোতাবায়া রাজাপাকসে। ছবি: এনডিটিভি

শ্রীলংকায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী হয়েছেন সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী গোতাবায়া রাজাপাকসে। রোববার দেশটির নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, ৫২ দশমিক ২৫ শতাংশ ভোট পেয়েছেন গোতাবায়া।

তার ভাই মাহিন্দা রাজাপাকসেও শ্রীলংকার প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শনিবারের ভোটে ৮৩ দশমিক ৭ শতাংশ ভোট পড়েছে। প্রয়োজনীয় ৫০ শতাংশের বেশি ভোট পেয়ে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন গোতাবায়া। আজ তার দায়িত্ব গ্রহণের কথা রয়েছে।

ভোটে জয়ের পরপরই এক টুইট বার্তায় দেশের জনগণকে একত্রিত হয়ে নতুন যাত্রা শুরুর আহ্বান জানিয়েছেন গোতাবায়া রাজাপাকসে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ও ক্ষমতাসীন মন্ত্রী সাজিথ প্রেমাদাসা পরাজয় মেনে নিয়ে রাজাপাকসেকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, জনগণের রায়কে সম্মান জানাচ্ছি। গোতাবায়ার জয়ে তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও। তিনি বলেন, দুই দেশ তাদের সহযোগিতামূলক সম্পর্ককে আরও এগিয়ে নিয়ে যাবে। মোদির অভিনন্দনে তাকে শুভেচ্ছা জানিয়ে টুইট করেছেন গোতাবায়াও।

এবারের নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ছিলেন ৩৫ জন। এর মধ্যে গোতাবায়ার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী লিবারেল ইউনাইটেড ন্যাশনাল পার্টির (ইউএনপি) সাজিথ প্রেমাদাসা পেয়েছেন ৪১ দশমিক ৯৯ শতাংশ ভোট। তিনি দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট রানাসিং প্রেমাদাসার ছেলে।

ভোট গণনা শুরুর পর প্রথম থেকেই সুস্পষ্ট ব্যবধানে এগিয়ে ছিলেন ৭০ বছর বয়সী গোতাবায়া রাজাপাকসে। চীনপন্থী গোতাবায়া শ্রীলংকা পিপলস ফ্রন্টের (এসএলপিপি) প্রধান হিসেবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। তার ভাই মাহিন্দা রাজাপাকসে ১০ বছর শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট ছিলেন।

তার ২০০৫ থেকে ২০১৫ সালের শাসনামলে সামরিক বাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত লেফটেন্যান্ট কর্নেল গোতাবায়া প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তাদের সময়েই তামিল বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সামরিক পরাজয় ঘটার মধ্যে দিয়ে বহু বছর ধরে চলা রক্তাক্ত গৃহযুদ্ধের অবসান হয়।

এবার ১ কোটি ৬০ লাখ ভোটারের জন্য ২২টি নির্বাচনী জেলায় খোলা হয় প্রায় ১৩ হাজার ভোট কেন্দ্র। ভোটের ফল বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, বৌদ্ধ সংখ্যাগরিষ্ঠরা গোতাবায়াকে সমর্থন দেন। সিংহলী অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে তিনি স্পষ্ট ব্যবধানে জয়লাভ করেছেন। অন্যদিকে তামিল অধ্যুষিত উত্তরাঞ্চলে প্রেমাদাসা বেশি ভোট পেয়েছেন।

উগ্রবাদীদের হামলায় ২৬৯ জন নিহত হওয়ার ৭ মাস পর শনিবার অষ্টমবারের মতো শ্রীলংকায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হল। ওই হামলার জেরে দেশটির পর্যটন শিল্প ও বিনিয়োগে স্থবিরতা নেমে এসেছে। ১৫ বছরেরও বেশি সময়ের মধ্যে সবচেয়ে কঠিন অর্থনৈতিক পরিস্থিতিতে পড়েছে শ্রীলংকা।

এ অবস্থায় ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা এবারের নির্বাচনে প্রার্থী হননি। ২০০৯ সালে গৃহযুদ্ধ শেষ হওয়ার পর এটি শ্রীলংকার তৃতীয় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন।

এমএফ/

 

দক্ষিণ এশিয়া: আরও পড়ুন

আরও