অযোধ্যার দৃষ্টিসীমায়ও জুটবে না মসজিদের জমি

ঢাকা, শনিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

অযোধ্যার দৃষ্টিসীমায়ও জুটবে না মসজিদের জমি

পরিবর্তন ডেস্ক ৭:০২ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১২, ২০১৯

অযোধ্যার দৃষ্টিসীমায়ও জুটবে না মসজিদের জমি

১৯৯২ সালে ৪৬০ বছরের পুরনো বাবরি মসজিদ ভেঙে দেয় উগ্র হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাসীরা

মসজিদ নির্মাণের জন্য ভারতের সুপ্রিমকোর্ট নির্দেশিত ৫ একর জমি অযোধ্যায় ঐতিহাসিক বাবরি মসজিদ জমির কাছে কোথাও নাও দেয়া হতে পারে। এর বদলে জমি দেয়া হতে পারে সরযু নদীর অপর পাড়ের কোনো জায়গায়।

সুপ্রিমকোর্টের রায়ে সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডকে অযোধ্যায় একটি অভিজাত এলাকায় মসজিদ নির্মাণের জন্য ৫ একর জমি বরাদ্দ দিতে বলা হয়েছে।

তবে অযোধ্যার শহর কর্তৃপক্ষ বলছে, অযোধ্যা ঘনবসতিপূর্ণ একটি শহর। এখানে এত বিশাল আকারের একটা খালি জমি পাওয়া কঠিন। ফলে তাদেরকে যে জমি বরাদ্দ দেয়া হবে তা ওই বাবরি মসজিদের স্থান থেকে দৃষ্টিসীমার মধ্যে না-ও হতে পারে।

তবে সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড জানিয়েছে, ওই জমি নেয়া বা না নেয়ার বিষয়ে আগামী ২৬ নভেম্বর সিদ্ধান্ত নেবেন তারা। টাইমস অব ইন্ডিয়া এ খবর দিয়েছে।

সরযু নদীর দক্ষিণ পাড়ে অযোধ্যা জেলা অবস্থিত। নদীর অপর পাড়ে নিরিয়া ও নবাবগঞ্জ জেলা।

একটি সূত্র বলেছে, অযোধ্যা-ফয়জাবাদ রোডের পাশে কোনো স্থানে এই জমি বরাদ্দ করার সম্ভাবনা আছে। এমনটাও জানা যাচ্ছে, ওই মসজিদটি নির্মাণ করা হতে পারে শাহজানওয়া গ্রামে। এই গ্রামেই রয়েছে সম্রাট বাবরের কমান্ডার মীর বাকির সমাধি।

ওই গ্রামটি ১৫ কিলোমিটার ব্যাসার্ধের বৃত্তের মধ্যে। আদালত আরও বলেছে, সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডের সহযোগিতায় বিকল্প স্থানেও জমি দেখা যেতে পারে। কিন্তু অযোধ্যার ‘মন্দির ক্যাম্প’ নামে পরিচিত ধর্মীয় গোষ্ঠী বলে আসছে যে, রাম-জন্মভূমির ১১৫ কিলোমিটারের মধ্যে কোনো মসজিদ নির্মাণ করা যাবে না।

এমএফ/

 

দক্ষিণ এশিয়া: আরও পড়ুন

আরও