বিদেশ যাওয়ার অনুমতি পেলেন নওয়াজ শরিফ

ঢাকা, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

বিদেশ যাওয়ার অনুমতি পেলেন নওয়াজ শরিফ

পরিবর্তন ডেস্ক ১:৩৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১১, ২০১৯

বিদেশ যাওয়ার অনুমতি পেলেন নওয়াজ শরিফ

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দিয়েছে দেশটির সরকার। গতকাল রোববার দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়।

পাক পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, নওয়াজ শরিফের বিদেশে চিকিৎসা নেওয়া দরকার বলে দেশের চিকিৎসকরা যে পরামর্শ দিয়েছেন তা আমলে নেওয়া হয়েছে। তার পরিবার এখন তাকে বিদেশে নিয়ে যেতে পারবে।

দেশটির গণমাধ্যম জানিয়েছে, চিকিৎসার জন্য আজ সোমবার লন্ডনের উদ্দেশে রওনা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে নওয়াজ শরিফের। তবে তার মেয়ে এবং রাজনৈতিক উত্তরাধিকারী মরিয়ম নওয়াজ বাবার সঙ্গে যেতে পারবেন না। চাইলে তার ভাই শাহবাজ শরিফ দেশের বাইরে যেতে পারেন।

কারাগারে থাকা অবস্থায় গত ২২ অক্টোবর হঠাৎ করেই অসুস্থ হয়ে পড়ায় নওয়াজ শরিফকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে দুই সপ্তাহ চিকিৎসা শেষে গত বুধবার তার বাসভবনে বিশেষ মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয় এবং তাকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

নওয়াজ শরিফের দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) মুখপাত্র মরিয়ম আওরঙ্গজেব এক বিবৃতিতে জানান, সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর চিকিৎসার জন্য তার বাসভবনেই আইসিইউ স্থাপন করা হয়েছে।

এর আগে চিকিৎসকরা জানান, নওয়াজ শরিফের শারীরিক অবস্থা এখনো সংকটাপন্ন। তাকে বিদেশে নিয়ে চিকিৎসার পরামর্শ দেওয়া হয়। প্রথমদিকে স্বাস্থ্যগত কারণে তাকে জামিন দেওয়া হলেও তার বিদেশ সফরে নিষেধাজ্ঞা ছিল।

এ ব্যাপারে পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশি বলেছেন, নওয়াজ শরিফের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয়েছে। যেহেতু চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তার জীবন বাঁচাতে বিদেশে চিকিৎসা করানোটা জরুরি, তাই তার বিদেশ সফরে আর কোনো বাধা থাকছে না।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালে তৃতীয় দফা ক্ষমতায় থাকাকালীন তিনি দুর্নীতির অভিযোগে পদত্যাগ করতে বাধ্য হন। ফাঁস হওয়া পানামা পেপারস কেলেঙ্কারিতে নাম আসার পর অপসারিত হন তিনি। পরে দুর্নীতি মামলায় তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

আরপি

 

দক্ষিণ এশিয়া: আরও পড়ুন

আরও