৩৭০ ধারা বাতিলে ক্ষুব্ধদের সাজা দেওয়া উচিত: মোদি

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

৩৭০ ধারা বাতিলে ক্ষুব্ধদের সাজা দেওয়া উচিত: মোদি

পরিবর্তন ডেস্ক ৯:০৯ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২০, ২০১৯

৩৭০ ধারা বাতিলে ক্ষুব্ধদের সাজা দেওয়া উচিত: মোদি

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বাতিলে যারা ক্ষুব্ধ তাদেরকে সাজা দেয়া উচিত এবং রাজনীতি থেকে বিদায় করে দেয়া উচিত।

গতকাল শনিবার হরিয়ানা বিধানসভার নির্বাচন উপলক্ষে তিনি সেখানকার হুদা ময়দানে এক নির্বাচনী সমাবেশে ভাষণ দেয়ার সময় এমন মন্তব্য করেন বলে খবর দিয়েছে পার্সটুডে।

মোদি বলেন, ‘চেয়ারের জন্য নয়, দেশের জন্য বাঁচি। ১২৫ কোটি ভারতীয়দের জন্য বাঁচি। আমরা কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বিলুপ্ত করায় কংগ্রেসের ক্ষোভ সপ্তম আকাশে রয়েছে। এ ধরনের লোকদের শাস্তি দেয়া উচিত ও রাজনীতি থেকে অব্যাহতি দেয়া উচিত।’ 

দেশটির প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসের সমালোচনা করে নরেন্দ্র মোদি বলেন, ‘কংগ্রেস সরকার সন্ত্রাসীদের ভয় পেয়েছিল। কাশ্মীর ইস্যু বিগত ৭০ বছর ধরে আটকে ছিল। কংগ্রেস এর সমাধান করতে পারেনি। আমরা ৩৭০ ধারা বাতিল করে কাশ্মীরে বাবাসাহেব ভীমরাও আম্বেদকরের সংবিধান কার্যকর করেছি।’

তিনি বলেন, ‘আমি প্রতিশ্রুতি পালন করি। যারা আমাদের ভয় দেখিয়েছিল, তাদেরকে আজ ভীত দেখাচ্ছে। আজ ভারতের সেনাবাহিনী শক্তিশালী হয়েছে। আমরা ক্ষমতায় আসার পর সেনাবাহিনীর ক্ষমতা বাড়াতে একটি অভিযান চালিয়েছি। আজ আধুনিক সাবমেরিন এবং রাফায়েলের মতো আধুনিক যুদ্ধবিমান আমাদের সেনাবাহিনীর একটি অংশ।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমি আগেই বলেছিলাম যে, দেশে এমন সরকার হওয়া উচিত, ভারতে এমন একটি সরকার হওয়া উচিত যা বিশ্বের সঙ্গে চোখ রেখে কথা বলতে পারে। ভারত আজ বিশ্বের সাথে চোখ নত করে নয়, চোখে চোখ রেখে কথা বলে।’ 

উল্লেখ্য, হরিয়ানায় আগামী ২১ অক্টোবর বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ফল ঘোষণা হবে ২৪ অক্টোবর।

আরপি

 

দক্ষিণ এশিয়া: আরও পড়ুন

আরও