কাশ্মীরে বেশিরভাগ মসজিদে ঈদের নামাজের অনুমতি মেলেনি

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

কাশ্মীরে বেশিরভাগ মসজিদে ঈদের নামাজের অনুমতি মেলেনি

পরিবর্তন ডেস্ক ১:৪৩ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১২, ২০১৯

কাশ্মীরে বেশিরভাগ মসজিদে ঈদের নামাজের অনুমতি মেলেনি

বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় অধিকৃত কাশ্মীরের রাজধানী শ্রীনগরের বেশিরভাগ মসজিদে ঈদের নামাজ পড়ার অনুমতি দেওয়া হয়নি। এনডিটিভির খবরে বলা হয়, রোববার ফের কারফিউ জারির পর সোমবার ঈদের দিন জম্মু ও কাশ্মীরের পথঘাট ছিল থমথমে ও নির্জন। কড়া নিরাপত্তার মধ্যেই চলছে ঈদ উদযাপন।

তবে, জম্মু ও কাশ্মীরে আশেপাশের ছোট ছোট মসজিদে ঈদের নামাজ পড়া হয় বলে ভারত সরকারের তরফ থেকে দাবি করা হয়।

জম্মু-কাশ্মীরের রাজ্যের স্বায়ত্বশাসিত মর্যাদা কেড়ে নেওয়ার পর গত শুক্রবার কিছু সময়ের জন্য কারফিউ শিথিল করা হয়েছিল। সেদিন শ্রীনগরের রাস্তায় হাজার হাজার লোক বিক্ষোভ করেন। যদিও ভারতীয় কর্তৃপক্ষের দাবি, বিক্ষোভকারীর সংখ্যা ছিল মাত্র ২০।

 সৌজন্য: আনন্দবাজার পত্রিকা

আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, ঈদের দিন শ্রীনগর-সহ কিছু এলাকায় কারফিউ তুলে নেওয়া হয়। সর্ব সাধারণের জন্য খুলে দেওয়া ফোন লাইন। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লা, মেহবুবা মুফতি-সহ উপত্যকার বেশ কয়েকজন রাজনীতিবিদকেও স্থানীয় মসজিদে প্রার্থনার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়, পুলিশ লাউড স্পিকারের মাধ্যমে মানুষজনকে তাদের ঘরে ফিরে যেতে বলছে এবং দোকানপাট বন্ধ করে দিতে বলা হয়েছে।

হাজার হাজার নিরাপত্তা রক্ষী কাশ্মীর উপত্যকায় রয়েছেন এবং ফোন এবং ইন্টারনেট পরিষেবা এখনও ব্যাহত রয়েছে।

শ্রীনগরে ঈদ উদযাপনের জন্য কয়েকটি সাময়িক বাজার তৈরি করা হয়েছে এবং সবজি, এলপিজি সিলিন্ডার, হাঁস এবং ডিম ঘরে ঘরে মোবাইল ভ্যানের মাধ্যমে সরবরাহ করা হচ্ছে।

এআরই/এএসটি

 

দক্ষিণ এশিয়া: আরও পড়ুন

আরও