অবশেষে চাঁদের পথে ভারতীয় চন্দ্রযান

ঢাকা, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

অবশেষে চাঁদের পথে ভারতীয় চন্দ্রযান

পরিবর্তন ডেস্ক ৮:২০ অপরাহ্ণ, জুলাই ২২, ২০১৯

অবশেষে চাঁদের পথে ভারতীয় চন্দ্রযান

প্রথমবারের চেষ্টা ব্যর্থ হওয়ার পর অবশেষে সোমবার চাঁদের উদ্দেশে রওনা দিয়েছে ভারতের চন্দ্রযান-২।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি জানায়, স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ৪৩ মিনিটে যাত্রা শুরু করে চন্দ্রযান-২। বাহুবলি নামে পরিচিত শক্তিশালী রকেট জিএসএলবি-মার্ক III -এম-I-এর সাহায্যে চাঁদের উদ্দেশে পাঠানো হয় এই যানকে।

রোববার সন্ধ্যা ৬টা ৪৩ মিনিট থেকে চন্দ্রযান-২ উৎক্ষেপণের কাউন্টডাউন শুরু করে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো।

এর আগে ১৫ জুলাই উৎক্ষেপণের কথা ছিল চন্দ্রযান-২-এর। উৎক্ষেপণের ঠিক ৫৬ মিনিট ২৪ সেকেন্ড আগে যান্ত্রিক ত্রুটি ধরা পড়ে রকেটে।

রকেটের একটি ভাল্ব থেকে লিক হচ্ছিল হিলিয়াম গ্যাস। এ কারণে ঝুঁকি নিতে চাননি বিজ্ঞানীরা। তাই উৎক্ষেপণ বাতিল করা হয়।

এরপর যুদ্ধকালীন তৎপরতায় শুরু হয় রকেটটির যান্ত্রিক ত্রুটি মেরামতের কাজ। নির্ধারিত সময়ের চেয়ে বেশি কাজ করে ত্রুটি সারিয়ে তোলেন ইসরোর বিজ্ঞানী ও প্রযুক্তিবিদরা।

শনিবার মহড়াও সম্পূর্ণ করে ইসরো। এরপর আজ উড়াল দিলো সেটি। চন্দ্রযান-২ এর তিনটি মডিউল রয়েছে— অরবিটার, ল্যান্ডার ও রোভার। ভেতরে থাকবে রোভার।

অরবিটার, ল্যান্ডার থাকবে একসঙ্গে। ল্যান্ডারটি চাঁদের মাটিতে অবতরণের পর খুলে যাবে দরজা। তখন ল্যান্ডারের ভেতর থেকে বেরিয়ে আসবে রোভার।

রোভারটি আসলে একটি গাড়ি, যা পৃথিবী থেকে রিমোট কন্ট্রোলে চালানো যায়। ওই গাড়ি চাঁদের মাটিতে চালিয়ে বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করবেন বিজ্ঞানীরা। ল্যান্ডারটির নাম দেয়া হয়েছে ‘বিক্রম’। আর রোভারের নাম ‘প্রজ্ঞান’।

গত কয়েক বছরে মহাকাশ গবেষণায় বিশেষ সাফল্য অর্জন করেছে ভারত। চন্দ্রযান-১ এর সফল অভিযানের পর বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে প্রথম চেষ্টায় মঙ্গলের কক্ষে যান পাঠায় দেশটি।

এমআর/আইএম

 

দক্ষিণ এশিয়া: আরও পড়ুন

আরও