সেই অভিনন্দনকে নিয়ে এবার পাক-ভারত ভার্চুয়াল উত্তেজনা

ঢাকা, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | 2 0 1

সেই অভিনন্দনকে নিয়ে এবার পাক-ভারত ভার্চুয়াল উত্তেজনা

পরিবর্তন ডেস্ক ১০:৪২ পূর্বাহ্ণ, জুন ১৩, ২০১৯

সেই অভিনন্দনকে নিয়ে এবার পাক-ভারত ভার্চুয়াল উত্তেজনা

আবারো চরমে ভারত পাকিস্তান উত্তেজনা। তবে এবার চলছে ক্রিকেট নিয়ে। রোববার দুই দল একে অপরের মুখোমুখি হচ্ছে। স্বভাবতই এটি চলতি বিশ্বকাপের সবচেয়ে প্রত্যাশিত লড়াইয়ের মধ্যে একটি।

একটি টেলিভিশন বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে প্রথমে পাশার দান চেলেছে পাকিস্তান। যেখানে জাতীয় বীরের সম্মান পাওয়া ভারতীয় পাইলটকে বিদ্রূপ করা হয়েছে।

গত ফেব্রুয়ারিতে দুই দেশের উত্তেজনার সময়ে আটক হয়েছিলেন ওই পাইলট। পরে শান্তির পক্ষে অবস্থানের প্রতীক হিসেবে ওই পাইলটকে মুক্তি দেয় পাকিস্তান।

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে এক হামলায় ৪০ আধা-সামরিক বাহিনীর সেনা নিহত হওয়ার পর পাকিস্তানে হামলা চালাতে গিয়ে ওই পাইলট আটক হন।

ওই হামলার জেরে দুই দেশই যুদ্ধাবস্থার মুখে পড়ে এবং অনেক ভারতীয় এ নিয়ে আবেগ তাড়িত হয়ে পড়েন।

পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে মুক্তি দেয়ার পর ভারতে তাকে বীরের বেশে স্বাগত জানানো হয়।

বিজ্ঞাপনটিতে অভিনেতা, পাইলট অভিনন্দন বর্তমানের মতো গোঁফ এবং ভারতীয় ক্রিকেট দলের জার্সির অনুকরণে জার্সি পড়েন।

বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আটকের পর অভিনন্দন বর্তমানকে জিজ্ঞাসাবাদের যে ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছিলো, বিজ্ঞাপনটিও হুবহু ঠিক সে আদলেই তৈরি করা হয়েছে।

আসল ভিডিওটিতে, অভিনন্দন বর্তমান তার স্কোয়াড্রন এবং মিশন সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা প্রশ্নের উত্তর দিতে পারবেন না বলে জানান। তিনি বলেন, আমি দুঃখিত, আমি আপনাকে তা বলতে পারবো না।

টেলিভিশন বিজ্ঞাপনেও অভিনেতা একই ধরনের বাক্য ব্যবহার করে প্রশ্নের উত্তর দিতে অপারগতার কথা জানান।

তবে এবার অভিনেতা চা খাওয়ার সময় তাকে প্রশ্ন করা হয়, বিশ্বকাপে দুই দেশের আসন্ন ক্রিকেট ম্যাচের নানা কৌশল যেমন ভারতীয় দলের খেলোয়াড়দের বিন্যাস কেমন হবে- তা নিয়ে।

বিজ্ঞাপনটি শেষ হয়, অভিনেতা যাওয়ার অনুমতি দেয়ার মাধ্যমে।

তবে "কাপ" রেখে চলে যেতে বলা হয়। যা দিয়ে আসলে ক্রিকেট বিশ্বকাপ ট্রফিকেই বোঝানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপনটি ভারত-পাকিস্তানের মধ্যকার সাম্প্রতিক ওই ঘটনার একটি ব্যঙ্গচিত্র হলেও, ভারতীয়রা এর বিরুদ্ধে সমালোচনা করেছেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকে একে "অ-সংবেদনশীল" এবং "লজ্জাজনক" বলে উল্লেখ করেছেন।

হর্ষ গোয়েনকা এক টুইটারে বলেছেন, "ভারত বনাম পাকিস্তান ক্রিকেট ম্যাচের আগে আমাদের নায়ক বর্তমানকে পাকিস্তানের বিদ্রূপ করাটা লজ্জাজনক। আমরা প্রতিশোধ চাই।’

কিন্তু অনেক ব্যবহারকারী এই বিজ্ঞাপনকে বিদ্রূপাত্মক বলে এর নিন্দা জানালেও এতে কৌতুক রয়েছে বলেও উল্লেখ করেছেন।

অনেকে আবার, এই বিজ্ঞাপনকে আমলে নিয়ে ম্যাচ জিতে ভারতকে এর সমুচিত জবাব দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

টুইটার ব্যবহারকারী শ্রদ্ধা সিং বলেছেন, "আমরা এখনো পাকিস্তানিদের চেয়ে অনেক এগিয়ে আছি। নিজেদেরকে বড় করতে তাদেরকে অনেক নিচে নামতে হয়। আর বিশ্বকাপে ভারত কখনো পাকিস্তানের কাছে হারেনি।"

তানিয়া মেহতা নিজের টুইটে বলেছেন, "খেলাধুলার ক্ষেত্রে ভারত পাকিস্তান দুই দেশই একে অপরকে নিচু দেখিয়ে বিজ্ঞাপন নির্মাণ করে থাকে। তবে, পাকিস্তানকে দেখিয়ে দিতে হবে যে আমরা আসলে কী।"

আরেক ব্যবহারকারী রানার তার টুইটে বলেন, "ইমরান খান পিটি-আইয়ের আসলে নিজেদের আসল চরিত্রটিই তুলে ধরেছে। তবে অভিনন্দন আমাদের গর্ব।"

টুইটার ব্যবহারকারী দিলশান বলেছেন, অভিনন্দনকে নিয়ে পাকিস্তান এতোটাই আত্মতৃপ্তিতে ভুগছে যে, বিশ্বকাপ ট্রফির পরিবর্তে তার খাওয়া চায়ের কাপ নিয়েই সন্তুষ্ট হতে রাজি তারা।"

এটা পরিষ্কার যে, রোববার ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ড স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া আকাঙ্ক্ষিত ম্যাচ নিয়ে দুদেশের সমর্থকরাই বেশ উত্তেজনায় রয়েছেন।

ধারণা করা হচ্ছে, দুই দেশের হাজার হাজার দর্শক উপস্থিত থাকবেন এই ম্যাচ দেখতে।

আরপি

 

দক্ষিণ এশিয়া: আরও পড়ুন

আরও