শেখ হাসিনার দেখাদেখি মোদিকে মিষ্টি পাঠান মমতা

ঢাকা, ১৮ জুলাই, ২০১৯ | 2 0 1

শেখ হাসিনার দেখাদেখি মোদিকে মিষ্টি পাঠান মমতা

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:০১ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৪, ২০১৯

শেখ হাসিনার দেখাদেখি মোদিকে মিষ্টি পাঠান মমতা

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে নিয়মিত মিষ্টি পাঠান, আর তা জানার পর মমতা দিদিও তাকে মিষ্টি পাঠানো শুরু করেন। সেইসঙ্গে নিজে পছন্দ করে কুর্তা পাঠান পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী।

বলিউড সুপারস্টার অক্ষয় কুমারকে দেওয়া ‘অরাজনৈতিক’ সাক্ষাৎকারে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেছেন।

তবে আনন্দবাজার বলছে, ‘অরাজনৈতিক’ সাক্ষাৎকার বলে যতই প্রচার করা হোক, রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা অবশ্য এর মধ্যেও অন্য রাজনীতির গন্ধ পাচ্ছেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাজনীতির ময়দানে যুযুধান দুই প্রতিপক্ষ বিজেপি ‍ও তৃণমূল কংগ্রেস। ২০১৪ সালের লোকসভা ভোটের আগে মোদির ‘কোমরে দড়ি পরানো’র হুঙ্কার ছেড়েছিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গত পাঁচ বছরেও বহুবার কেন্দ্র ও রাজ্যের সংঘাত চরমে উঠেছে। সেই সব চড়াই-উতরাই পেরিয়ে ফের লোকসভা ভোট। তিন দফা হয়ে গেছে। বাকি আরও চার দফার ভোটগ্রহণ। ফের উত্তপ্ত রাজনৈতিক বাতাবরণ। কেউ কাউকে এক ইঞ্চি জমিও ছাড়তে নারাজ মোদি-মমতা।

বাংলায় নির্বাচনী প্রচারে এসে মোদি যেমন মমতাকে তীব্র আক্রমণ করছেন, তেমনই মমতাও পাল্টা তোপ দেগে যাচ্ছেন। মোদি যেমন ‘স্পিডব্রেকার দিদি’বলেছেন, সারদা, নারদা, সিন্ডিকেট নিয়ে নিশানা করছেন মমতাকে। তেমনি মমতাও পাল্টা ব্যবহার করছেন ‘হিটলার আঙ্কল’, ‘এক্সপায়ারি বাবু’, ‘দাঙ্গাবাজ’, ‘নোটবন্দি কেলেঙ্কারির নায়ক’-এর মতো শব্দবন্দ। এমনই তপ্ত রাজনৈতিক আবহে মোদি ফাঁস করলেন মমতার সঙ্গে তার ‘বন্ধুত্বে’র কথা।

অক্ষয় কুমারের প্রশ্ন ছিল, বিরোধীদের মধ্যে আপনার কোনো বন্ধু আছে? মোদির জবাবে উঠে এসেছে মমতার নাম। বলেন, ‘আপনারা শুনে আশ্চর্য হবেন এবং ভোটের মৌসুমে এটা বলা আমার উচিত নয়। কিন্তু মমতা দিদি আমার জন্য প্রতি বছর উপহার পাঠান। একটি বা দুটি কুর্তা পাঠান এবং সেটা উনি নিজে পছন্দ করে কেনেন।’

যদিও পরক্ষণেই তিনি জানান, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতি বছর নিয়ম করে তার জন্য নতুন নতুন ধরনের মিষ্টি পাঠান। ‘মমতা দিদি সেটা যখন জানতে পারলেন, তখন উনিও আমাকে বছরে এক বার বা দুই বার মিষ্টি পাঠানো শুরু করলেন।’

অক্ষয়ের সঙ্গে মোদির এই সাক্ষাৎকারকে বলা হচ্ছে ‘সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক’। প্রধানমন্ত্রী নয়, ‘ব্যক্তি’মোদি মুখোমুখি সুপারস্টার অক্ষয়ের। কিন্তু মোদির মতো ধুরন্ধর এবং কথার মারপ্যাঁচে সিদ্ধহস্ত রাজনীতিবিদ যে কথার জালে রাজনীতির বার্তা দেবেনই, সেটা বোঝার জন্য বিশেষজ্ঞ হওয়ার দরকার নেই। পর্যবেক্ষরাও তাই মমতার সঙ্গে বন্ধুত্বের বার্তা প্রকাশ্যে নিয়ে আসার পেছনে রাজনীতির ইঙ্গিত পাচ্ছেন। ভোট শেষ হওয়ার আগেই ভোট পরবর্তী রাজনৈতিক সমীকরণও নিয়েও কি ছক কষতে শুরু করে দিয়েছেন মোদি। সম্ভাবনা উড়িয়ে দিচ্ছেন না রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।

আরপি

 

দক্ষিণ এশিয়া: আরও পড়ুন

আরও