শ্রীলঙ্কায় সন্ত্রাসী হামলায় আইএসের দায় স্বীকার

ঢাকা, সোমবার, ২০ মে ২০১৯ | ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

শ্রীলঙ্কায় সন্ত্রাসী হামলায় আইএসের দায় স্বীকার

পরিবর্তন ডেস্ক ৬:৩০ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৩, ২০১৯

শ্রীলঙ্কায় সন্ত্রাসী হামলায় আইএসের দায় স্বীকার

শ্রীলঙ্কায় রোববারের আত্মঘাতী বোমা হামলার দায় স্বীকার করেছে কথিত ইসলামিক স্টেট (আইএস)। শ্রীলঙ্কার রাজধানী ও তার আশেপাশের গির্জা ও হোটেলে সমন্বিত এই সন্ত্রাসী হামলায় ৩২০ জনেরও বেশি নিহত হয়েছে বলে মঙ্গলবার জানায় মার্কিন গণমাধ্যম সিবিএস নিউজ।

দেশটির প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী রুয়ান ভিজেভার্দেনে পার্লামেন্টে বলেছেন, প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দু'টি মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার 'প্রতিশোধ' নিতে শ্রীলংকায় হামলা চালানো হয়েছে।

সিবিএস জানায়, শ্রীলঙ্কার অন্য কোনও কর্মকর্তা গোয়েন্দাদের এই দাবীর পুনরাবৃত্তি করেন নি এবং ভিজেভার্দেনে কিসের ভিত্তিতে এই মতামত দিয়েছেন তা পরিষ্কার নয়।

মার্চ ১৫ তারিখে ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে হামলায় ৫০ জন নিহত হন। একজন শ্বেতাঙ্গ জঙ্গি মসজিদগুলোয় হামলা চালিয়ে তা ফেসবুকে সরাসরি সম্প্রচার করেন।

শ্রীলঙ্কার সন্ত্রাসী হামলায় জাতীয় শোক দিবস পালন করা হচ্ছে।

এই বোমা হামলার দায় স্বীকার করে মঙ্গলবার আইএসের প্রোপাগান্ডা বিভাগ একটি সংক্ষিপ্ত বার্তা দিয়েছে। তাদের সংবাদদাতা সংস্থা আমাকের প্রচারিত বার্তায় বলা হয়, 'হামলাকারীরা ইসলামিক স্টেটের যোদ্ধা ছিল'।

যদিও, আইএসের সঙ্গে হামলায় জড়িত জঙ্গিদের যোগাযোগ ছিল বা জঙ্গিগোষ্ঠীটি আগে থেকে এই হামলার কথা জানত এমন কোনও প্রমাণ দিতে পারেনি।

তবে, আগে বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় হামলার দায় স্বীকার করার কিছু সময় পর আইএস কিছু ভিডিও প্রকাশ করেছিল যাতে হামলাকারীদেরকে সন্ত্রাসী সংগঠনটির বশ্যতা স্বীকার করতে দেখা গেছে।

বর্তমানে ইরাক ও সিরিয়ার কোনও জায়গা আইএসের নিয়ন্ত্রণে নেই।

হামলার দশদিন আগে দ্য ন্যাশনাল তৌহিদ জামাত (এনটিজে) সম্পর্কে একটি সতর্কবার্তা দিয়েছিল দেশটির গোয়েন্দা সংস্থা। প্রাথমিকভাবে এনটিজেকে দায়ী করা হয়েছে এই সন্ত্রাসী হামলার জন্য।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম মেইল অনলাইন জানায়, আইএসের উম্মত্ত সমর্থকরা কিছু ছবি প্রচার করছে যাতে দেখা যায় এনটিজের সন্দেহভাজন নেতা মৌলভি জাহরান হাশিম আইএসের বশ্যতা স্বীকার করছেন। এসব ছবির উৎস কী তা জানা যায়নি এবং এগুলো আইএসের নিজস্ব প্রচার ব্যবস্থার মাধ্যমে মুক্তি দেয়া হয়নি।

ভিজেভার্দেনে বোমা হামলার পর জামাত-উল-মুজাহিদিন ইন্ডিয়া (জেএমআই) নামের আরেকটি স্থানীয় দলেরও নাম উল্লেখ করেন বলে জানিয়েছে সিবিএস।

এমআর/এএসটি

আরও পড়ুন...
‘হামলায় ন্যাশনাল তাওহিদ জামাত জড়িত’
শ্রীলঙ্কায় ৩ মিনিটের নীরবতায় জাতীয় শোক শুরু
আন্তর্জাতিক সহায়তায় সন্ত্রাস নির্মূলের ঘোষণা বিক্রমাসিংহের
হামলা নিয়ে সেনা গোয়েন্দাকে সতর্ক করেন মুসলিম নেতা
আরও হামলা হবে, শ্রীলঙ্কাকে সতর্ক করল ভারত