ক্রিকেট নিয়েও মোদির বিরুদ্ধে রাজনীতির অভিযোগ

ঢাকা, বুধবার, ২২ মে ২০১৯ | ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

ক্রিকেট নিয়েও মোদির বিরুদ্ধে রাজনীতির অভিযোগ

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:০৬ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৭, ২০১৯

ক্রিকেট নিয়েও মোদির বিরুদ্ধে রাজনীতির অভিযোগ

এবার ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে ক্রিকেট নিয়েও রাজনীতি করার অভিযোগ উঠেছে। দুই দিন আগে দেশটির ১৫ জনের বিশ্বকাপ দল ঘোষণা করা হয়েছে। কিন্তু এর মধ্যে মোদি বেছে বেছে একজনকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

দেশটির গণমাধ্যম বলছে, বিশ্বকাপের জন্য ঘোষিত ভারতীয় স্কোয়াডে সুযোগ পাওয়ার জন্য সেই ক্রিকেটারকে অভিনন্দন জানিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি। এখনও পর্যন্ত ১৫ জনের ভারতীয় স্কোয়াডের আর কাউকে শুভেচ্ছাবার্তা পাঠাননি তিনি। এর কোনো উত্তর পাওয়া যায়নি।

তবে নেটিজেনরা ক্রিকেটে রাজনীতির প্রবেশ হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছেন। এমনিতেই বিশ্বকাপের জন্য ভারতীয় স্কোয়াড ঘোষণার পর আলোচনা তুঙ্গে। কারণ অনেক নামিদামি ক্রিকেটারের বাদ পড়া নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে।

তার মধ্যেই একমাত্র রবীন্দ্র জাদেজাকে শুভেচ্ছাবার্তা পাঠালেন মোদি।

বিজেপির প্রতীক পদ্মফুলের একটি ছবি পোস্ট করে টুইটারে জাদেজা লিখেছিলেন, আমি বিজেপিকে সমর্থন করি। জয় হিন্দ। সেই পোস্টে তিনি নরেন্দ্র মোদিকে ট্যাগ করেন। এর পরই জাদেজাকে ধন্যবাদ জানান মোদি।

লিখেছেন, ২০১৯ বিশ্বকাপের জন্য ঘোষিত দলে নির্বাচিত হওয়ার জন্য অভিনন্দন। আমার শুভেচ্ছা রইল তোমার জন্য। জাদেজা ও মোদির এমন টুইট চালাচালির পর থেকেই নেট-দুনিয়ায় আলোচনা তুঙ্গে। অনেকেই বলেছেন, এবার ক্রিকেটেও রাজনীতির প্রবেশ অবাধ হচ্ছে।

খবরে বলা হচ্ছে, গত বছরের মার্চ মাস নাগাদ ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগ দেন রবীন্দ্র জাদেজার স্ত্রী রিভাবা। তবে জাদেজার বাবা অনিরুদ্ধ সিং ও বোন নয়নাভা কিন্তু কংগ্রেসে নাম লিখিয়েছেন।

এদিকে, জাদেজা বিজেপির প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন। ভারতীয় দলের একজন ক্রিকেটারের এভাবে প্রকাশ্যে কোনো একটি রাজনৈতিক দলের জন্য সমর্থন জানানোর ব্যাপারটিকে অনেকেই ভাল চোখে নেননি। নেটিজেনদের অনেকে বিশ্বকাপের জন্য নির্বাচিত দলে তার সুযোগ পাওয়ার ব্যাপারেও রাজনীতির প্রচ্ছন্ন প্রভাব রয়েছে বলে দাবি করেছেন।

আরপি