পাকিস্তানে নির্বাচনী সভায় আত্মঘাতী হামলা, প্রার্থীসহ নিহত ১২

ঢাকা, সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

পাকিস্তানে নির্বাচনী সভায় আত্মঘাতী হামলা, প্রার্থীসহ নিহত ১২

পরিবর্তন ডেস্ক ৯:৩৬ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১১, ২০১৮

পাকিস্তানে নির্বাচনী সভায় আত্মঘাতী হামলা, প্রার্থীসহ নিহত ১২

পাকিস্তানে আওয়ামী ন্যাশনাল পার্টির (এএনপি) এক নির্বাচনী সভায় আত্মঘাতী হামলা চালানো হয়েছে। এতে পিকে-৭৮ সংসদীয় এলাকার প্রার্থী হারুন বিলোয়ারসহ অন্তত ১২ জন নিহত এবং অর্ধশতাধিক লোক আহত হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে পেশোয়ারের ইয়াকাতুত এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এক সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তার বরাত দিয়ে পাক গণমাধ্যম ডন এ খবর দিয়েছে।

পেশেয়ার ক্যাপিটাল সিটি পুলিশের অফিসার কাজি জামিলের বরাত দিয়ে ডন ৩০ জনের বেশি আহতের কথা বলেছে। আর একই পুলিশ কর্মকর্তার বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স অন্তত ৫০ জন আহতের কথা বলেছে। আহতদের লেডি রিডিং হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওই কর্মকর্তা।

খবরে বলা হয়েছে, বিস্ফোরণে বিলোয়ার গুরুতর আহত হলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার মৃত্যু হয়। এ পর্যন্ত হামলার দায় কেউ স্বীকার করেনি।

ডন বলছে, হামলার ধরণ সম্পর্কে পুলিশ নিশ্চিত না করলেও এএনপি দলীয় স্থানীয় এক নেতা জানিয়েছেন, বিলোয়ার যখন সমাবেশস্থলে প্রবেশ করেন তখন এক আত্মঘাতী হামলাকারী বিস্ফোরণ ঘটায়।

পুলিশের এআইজি শাফকাত মালিক বলেছেন, ‘প্রাথমিক তদন্ত অনুযায়ী আমাদের কাছে মনে হয়েছে, এটি আত্মঘাতী হামলা এবং এর টার্গেট ছিলেন বিলোয়ার।’

উল্লেখ্য, হারুন বিলোয়ার হলেন এএনপির সিনিয়র নেতা বাশির আহমেদ বিলোয়ারের ছেলে। ২০১২ সালে পেশোয়ারে এক দলীয় বৈঠকে পাকিস্তানি তালেবানের চালানো আত্মঘাতী হামলায় নিহত হন বাশির আহমেদ বিলোয়ার।

এর পরের বছর ২০১৩ সালেও পেশোয়ারে দলটির এক সমাবেশে হামলা চালায় তেহরিক-ই-তালেবান পাকিস্তান। ওই সময়ই হারুন বিলোয়ারকে টার্গেট করা হয় বলে জানায় সংগঠনটি। ওই হামলায় অন্তত ১৫ জন নিহত হয়।

আরপি