সু চি’র বিরুদ্ধে আইনি প্রক্রিয়ায় অস্ট্রেলিয়া

ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫

সু চি’র বিরুদ্ধে আইনি প্রক্রিয়ায় অস্ট্রেলিয়া

পরিবর্তন ডেস্ক ৭:১৪ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৭, ২০১৮

সু চি’র বিরুদ্ধে আইনি প্রক্রিয়ায় অস্ট্রেলিয়া

মিয়ানমারের রাখাইনে রোহিঙ্গা নিধনের ঘটনায় দেশটির নেত্রী অং সান সু চিকে দায়ী করে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলা দায়েরের জন্য অস্ট্রেলিয়ার কয়েকজন আইনজীবী আবেদন করেছেন। শুক্রবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান এক প্রতিবেদনে জানায়, মেলবোর্নের একটি বিচারিক আদালতে আইনজীবীরা মামলার এই আবেদন করেন।

মানবতাবিরোধী অপরাধের জন্য যারা সু চি’র বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের আবেদন করেছেন তারা হলেন, ম্যারিয়ন আইসোবেল, রন মের্কেল কিউসি, রায়েলিন শার্প, অ্যালিসন ব্যাটিসন এবং ড্যানিয়েল টেইলর।

প্রতিবেদনে  বলা হয়, আদালত আবেদনটি মূল্যায়ন করেছেন এবং আগামী সপ্তাহে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানাবেন। তবে সু চি’র বিরুদ্ধে মামলা শুরু করতে হলে অ্যাটর্নি জেনারেলের অনুমোদন লাগবে।

চলতি সপ্তাহে সু চি অস্ট্রেলিয়ায় সফর করবেন। আগামী ১৭ মার্চ আসিয়ানের একটি বিশেষ সম্মেলনে যোগ দিতে তার সিডনি পৌঁছানোর কথা রয়েছে।

অস্ট্রেলিয়া এমনিতেই আন্তর্জাতিক বিচারিক ক্ষেত্রের নীতিকে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃতি দিয়েছে। যার ফলে দেশটির আদালতে আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী গণহত্যা, মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে যে কোনও দেশের নাগরিকের বিরুদ্ধে শুনানি হতে পারে।

গত বছরের ২৫ আগস্ট নিরাপত্তা চৌকিতে আরসার হামলার ঘটনার পর রোহিঙ্গাবিরোধী অভিযানে নামে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী।  জাতিগত নিধনযজ্ঞ থেকে বাঁচতে প্রতিবেশী বাংলাদেশে পালিয়ে আসে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর প্রায় ৭ লাখ মানুষ।

জাতিসংঘসহ অধিকাংশ সংস্থা ঘটনায় পেছনে মানবতাবিরোধী অপরাধের আলামত পেলেও তা অস্বীকার করে আসছে মিয়ানমার। দেশটির রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা অং সান সু চি’ও রোহিঙ্গাদের বিপক্ষে অবস্থান নেয়ায় বিশ্বজুড়ে তার সমালোচনা শুরু হয়। বিশ্বজুড়ে বিতর্কিত হওয়ায় হারাতে হয় বিশ্বের বিভিন্ন দেশের দেয়া সম্মান।

কেবিএ