গোল করার পরই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ল যুবক

ঢাকা, শনিবার, ২১ জুলাই ২০১৮ | ৬ শ্রাবণ ১৪২৫

গোল করার পরই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ল যুবক

পরিবর্তন ডেস্ক ১:২৪ অপরাহ্ণ, জুলাই ০৫, ২০১৮

print
গোল করার পরই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ল যুবক

গোল করার পরই মাটিতে উপুড় হয়ে লুটিয়ে পড়েছিলেন ১৮ বছরের এক যুবক। সতীর্থরা ভেবেছিলেন, গোলের আনন্দে এমন করছেন ওই যুবক। কিন্তু কয়েক মিনিট পরও তিনি না উঠায় বন্ধুরা কাছে গিয়ে দেখেন, অচেতন হয়ে গেছেন ওই যুবক। এর পরই তাকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকেরা মৃত বলে ঘোষণা করেন।

ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার বিকেলে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বেলঘরিয়ায়। পুলিশের বরাত দিয়ে আনন্দবাজার জানিয়েছে, মৃতের নাম সাগর দাস। উষুমপুর বটতলার বাসিন্দা ওই যুবক উচ্চ মাধ্যমিক পাস করে কয়েক দিন আগে কলেজে বাণিজ্য বিভাগে ভর্তি হয়েছিলেন।

স্থানীয় সূত্রের খবর, বটতলার বাসিন্দা, পেশায় রিকশাচালক বরুণ দাসের একমাত্র ছেলে সাগর ছোট থেকেই ফুটবল-পাগল। বাবার তেমন আর্থিক সামর্থ না থাকায় বড় কোনও ফুটবল প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ভর্তি হতে পারেননি তিনি। তবে ছোট থেকেই পাড়ার মাঠে বন্ধুদের সঙ্গে খেলতেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রের খবর, ওই দিন বিকেলে পাড়ার ক্লাবেই ক্যারম খেলছিলেন সাগর। সাড়ে ৪টা নাগাদ ফুটবল খেলতে যাওয়ার জন্য বন্ধুরা তাকে ডাকতে আসেন। তখন তাদের সঙ্গে স্থানীয় একটি মাঠে ফুটবল ম্যাচ খেলতে যান সাগর।

সেখানে গোল করার পর সকলে যখন হই-হুল্লোড় করছেন, তখন মাঠেই মাথা নিচু করে লুটিয়ে পড়েন সাগর। ফের খেলা শুরু করার জন্য বাঁশি বাজানো হলেও উঠে দাঁড়াননি তিনি। তখন অন্য সঙ্গীরা তাকে ডাকতে গিয়ে দেখেন, মুখ দিয়ে ফেনা বেরোচ্ছে ওই যুবকের। পড়ে আছেন সংজ্ঞাহীন অবস্থায়। স্থানীয় লোকজনই তাকে সাগর দত্ত হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোযণা করেন।

আনন্দবাজার এক প্রতিবেদনে বলেছে, ছোট থেকেই ডিফেন্সে খেলতেন সাগর। বিশ্বকাপের প্রতিটি খেলাই দেখছিলেন নিয়মিত। তবে আর্জেন্টিনা হেরে যাওয়ার পর কিছুটা মুষড়ে পড়েছিলেন। পাড়ার মাঠে ম্যাচ খেলে অনেক সুনামও কুড়িয়েছিলেন সদ্য কলেজে ভর্তি হওয়া ওই যুবক। বুধবার তার পিসতুতো দাদা দীপ কয়াল বলেন, ‘খুব ভাল ফুটবল খেলত। ওকে বলেছিলাম, ভাল রেজাল্ট করে কলেজে ভর্তি হলে তবে ফুটবল কোচিং ক্লাসে ভর্তি করে দেব।’

পরিজনরা জানান, অ্যালার্জির সমস্যা ছাড়া আর কোনো শারীরিক সমস্যা ছিল না সাগরের। এদিন তার পিসি পুতুল কয়াল বলেন, ‘গোল করে ছেলেটাই চলে গেল।’

আরপি

 
.



আলোচিত সংবাদ