বাজেয়াপ্ত হচ্ছে চোরাচালানী পণ্য ভর্তি ভারতীয় ট্রাক

ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ | ৪ কার্তিক ১৪২৬

বাজেয়াপ্ত হচ্ছে চোরাচালানী পণ্য ভর্তি ভারতীয় ট্রাক

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৯:২২ অপরাহ্ণ, মার্চ ২০, ২০১৯

বাজেয়াপ্ত হচ্ছে চোরাচালানী পণ্য ভর্তি ভারতীয় ট্রাক

চোরাচালানী পণ্য ভর্তি ভারতীয় ট্রাক জব্দের প্রক্রিয়া শুরু করেছে বেনাপোল কাস্টমস হাউজ।

বুধবার সন্ধ্যায় বেনাপোল কাস্টমস হাউজের কমিশনার বেলাল চৌধুরী পরিবর্তন ডটকমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, বেনাপোল কাস্টমস কমিশনারের কাছে গত ১৩ মার্চ গোপন সংবাদ আসে বেনাপোল স্থলবন্দরের ১নং শেডের সামনে একটি ভারতীয় ট্রাকে (ঘখ ০১ অঈ - ৬৬৫৪) নো-এন্ট্রির চোরাচালানের মাধ্যমে আনা পণ্য রয়েছে।

ট্রাকটি বাংলাদেশে প্রবেশের পর থেকেই নজরে রাখে কাস্টমসের ইনভেস্টিগেশন রিসার্চ এন্ড ম্যানেজমেন্ট (আইআরএম) টিম। ট্রাকটি ৯নং শেডে কিছু পণ্য খালাস করে বাকী পণ্য নিয়ে স্থলবন্দরের বিভিন্ন স্থানে অবস্থান করে।

কাস্টমস সূত্র জানায়, আইআরএম টিম নিশ্চিত হয় যে ট্রাকে রক্ষিত অবশিষ্ট পণ্যের কোনো কাগজপত্র নেই। পরবর্তীতে ড্রাইভার পরিস্থিতি টের পেয়ে ট্রাকটি ১নং শেডের সামনে রেখে পালিয়ে যায়। এরপর স্থানীয় ড্রাইভারের সহয়তায় আইআরএম টিম পণ্যসহ ভারতীয় ট্রাকটি আটক করে কাস্টম হাউসে নিয়ে আসে।

আটক পণ্যসহ ভারতীয় ট্রাকটি ইনভেন্ট্রি করার লক্ষ্যে একটি টিম গঠন করা হয়। স্থানীয় সাংবাদিকের উপস্থিতিতে তালা ভেঙ্গে ট্রাকটি খোলা হয়।

এসময় ট্রাকের ভেতর চোরাচালানের মাধ্যমে মিথ্যা ঘোষণায় আনা ৬৫১ কার্টনে মোট ৭৮১২টি জিলেট সেভিং ফোমের বোতল পাওয়া যায়। যার শুল্কায়ন যোগ্য ওজন ৩২৬৫.৪১৬ কেজি।

পরবর্তীতে ৯নং শেডে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ট্রাকটিতে একটি মেনিফেস্টের মাধ্যমে তিনটি পণ্যচালান আনা হয়। তিনটি পণ্যচালানের আমাদানিকারক প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল লি: এবং সিএন্ডএফ এজেন্ট রুমা ইন্টারন্যাশনাল।

আটক পণ্যের প্রতিটি কার্টনে Ship To : Procter & Gamble Bangladesh Pvt. Ltd. লেখা স্টিকার ছিল। তবে আমদানিকারকের সিএন্ডএফ এজেন্টের সাথে পণ্যগুলোর বিষয়ে জানতে চাইলে তারা পণ্যগুলো তাদের নয় বলে জানান। ট্রাকসহ পণ্য চালানের মূল্য প্রায় পঞ্চাশ লাখ টাকা।

বিষয়টি নিয়ে বেনাপোল কাস্টমসের কমিশনার বেলাল চৌধুরী পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, এ ঘটনায় আমি খুবই হতাশ। এভাবে একটি অসাধু চক্র অভিনব কৌশলে সরকারের রাজস্ব ফাঁকির অপচেষ্টা করছে। যার জন্য জাতীয় উন্নয়ন বাধাগ্রস্থ হচ্ছে।

তিনি বলেন, বেনাপোল কাস্টমসের আইআরএম টিম এই ধরনের রাজস্ব ফাঁকির অপচেষ্টাকে নস্যাৎ করে দিচ্ছে। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড নির্ধারিত রাজস্ব আহরণের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ২৪/৭ হিসেবে নিরলস কাজ করছে। বেনাপোলের পরিশ্রমী শুল্কদল চোরাচালান রোধ, শুল্কফাঁকি উদঘাটন, অবৈধ ও ক্ষতিকর পণ্য বহনকারীদের সনাক্তকরণ এবং শুল্ক আহরণের ধারাকে অব্যাহত রেখে বৈধ বাণিজ্যকে উদ্ধুদ্ধকরণে প্রতিনিয়ত বিশেষ ভূমিকা পালন করছে।

এফএ/এসবি

 

রাজস্ব: আরও পড়ুন

আরও