ব্যাংকিং খাতের বিশেষ সুবিধায় কমবে ঋণের সুদ: এফবিসিসিআই সভাপতি

ঢাকা, রবিবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮ | ১ পৌষ ১৪২৫

ব্যাংকিং খাতের বিশেষ সুবিধায় কমবে ঋণের সুদ: এফবিসিসিআই সভাপতি

পরিবর্তন প্রতিবেদক ২:৪৯ অপরাহ্ণ, জুন ০৯, ২০১৮

ব্যাংকিং খাতের বিশেষ সুবিধায় কমবে ঋণের সুদ: এফবিসিসিআই সভাপতি

করপোরট কর হার কমলে রাজস্ব কমে না। বরং করপোরেট কর হার কমলে মুনাফার অংশ ব্যবসায়ী বিনিয়োগের মাধ্যমে অথবা লভ্যাংশ বিতরণের মাধ্যমে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে আপেক্ষিকভাবে বেশি অবদান রাখবে বলে মন্তব্য করেছেন এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন।

শনিবার রাজধনীর ফেডারেশন ভবনে আয়োজিত ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত জাতীয় বাজেটের ওপর এফবিসিসিআই'র আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া শীর্ষক সংবাদ সম্মলনে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, শিল্পায়ন ও বিনিয়োগ আকর্ষণের পাশাপাশি কর প্রদানে স্বচ্ছতা আনা এবং সরকারের রাজস্ব বৃদ্ধির লক্ষ্যে করপোরেট কর হার ২.৫ শতাংশ হ্রাস করার জন্য আমরা প্রস্তাব করেছিলাম।

এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, প্রস্তাবিত বাজেটে পাবলিক ট্রেডেড ব্যাংক, বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে করপোরেট করের হার ৪০ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৩৭.৫ শতাংশ করা হয়েছে এবং নন-পাবলিকলি ট্রেডেড ব্যাংক বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে কর্পোরেট কর ৪২.৫ শতাংশ থেকে ৪০ শতাংশ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘ব্যাংকিং সেক্টরে করপোরেট কর কমানোর প্রতিফলন ব্যাংকিং সেক্টরে সুদের 'স্প্রেড' যৌক্তিক পর্যায়ে কমানো তথা সুদের হার সিঙ্গেল ডিজিটে নামিয়ে আনতে সহায়ক হবে বলে আমরা আশা করি। এখানে উল্লেখযোগ্য যে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ব্যাংকের সুদ হার সিঙ্গেল ডিজিটে নামিয়ে আনার ব্যাপারে বদ্ধপরিকর।’

সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বলেন, অর্থ মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ ব্যাংক তদারকি প্রতিষ্ঠান হিসেবে অবশ্যই এ ব্যাপারে কার্যকর ও বাস্তবভিত্তিক পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। আমরা এটার সুফল দেখার প্রত্যাশা করছি। কর্মসংস্থান ও বিনিয়োগের স্বার্থে আমরা অন্যান্য উৎপাদনশীল খাতে তালিকাভুক্ত কোম্পানির কর্পোরেট কর হার ২.৫ শতাংশ কমানোর জন্য পুনরায় দাবি করছি।

সংবাদ সম্মেলনে এফবিসিসিআই'র সিনয়র সহ-সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম, সহ- সভাপতি মুনতাকিম আশরাফ, এফবিসিসিআই'র পরিচালক শমী কাইসারসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

এফএ/আরপি