পূজায় ‘শুক্তো’ রেসিপি

ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ | ৪ কার্তিক ১৪২৬

পূজায় ‘শুক্তো’ রেসিপি

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:৪০ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৯

পূজায় ‘শুক্তো’ রেসিপি

পূজার সময় বাড়িতে বাঙালীয়ানা থাকবে না, সেটা কি হয়? পূজা-পার্বণ আসলে সাজগোজের পাশাপাশি খাওয়া দাওয়াও চলে বেশ ধুমধামে। আর সনাতন ধমালম্বীদের কাছে শুক্তো একটি জনপ্রিয় খাবার। তবে জিভে পানি আনা লুচি ও শুক্তো হলে তো আর কথাই নেই। তাই আজকের আয়োজনে থাকছে শুক্তো তৈরির রেসিপি-

উপকরণ:
করলা বড় ১ টা
সজনে ডাটা ২ টি
সিম বড় আকারের ২ টি
রাঙা আলু বা সাধারণ আলু বড় ১ টি
কাঁচকলা অর্ধেক
বেগুন ছোট আকারের ২ টি
ডালের বড়ি ১০-১২ টা ( চাইলে কম দেওয়া যেতে পারে।)
আদা বাটা ১ চা চামচ
সাদা সর্ষে বাটা ১/২ চা চামচ
কালো সর্ষে বাটা ১ চা চামচ
পোস্ত বাটা ২ চা চামচ
নারকোল বাটা ১ টেবিল চামচ
রাঁধুনি বাটা ১ চা চামচ
কাঁচা দুধ ১ কাপ
পাঁচফোড়ন ১/২ চা চামচ
ঘি ১ টেবিল চামচ
চিনি ১,১/২ টেবিল চামচ
লবণ ১ টেবিল চামচ
সর্ষের তেল আন্দাজ মতো

ফোড়ণের উপকরণ:
রাঁধুনি ১/২ চা চামচ
তেজপাতা ১ টা

প্রণালি:
প্রথমে সবজিগুলো শুক্তোর অনুযায়ী কেটে নিন। শুকনো খোলায় পাঁচফোড়ন অল্প ভেজে গুঁড়ো করে নিতে হবে। এবার কড়াইতে বেশি পরিমাণ তেল গরম করে সব সবজি সামান্য লবণ দিয়ে আর বড়িগুলো আলাদা আলাদাভাবে ভেজে নিন।

এবার ওই তেলে ফোড়ণগুলো দিয়ে দিতে হবে।

এরপর এর মধ্যে আদা বাটাটা দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করতে হবে।

এবার এর মধ্যে রাঁধুনি বাটা দিয়ে আবার কিছুক্ষণ ভাজতে হবে।

এরমধ্যে এবার সর্ষে বাটাটা দিয়ে কিছুক্ষণ কষাতে হবে।

তারপর নারকেল আর পোস্ত বাটাটা দিয়ে দিতে হবে।

মশলাটা কিছুক্ষণ কষানোর পর ভাজা সবজি এবং বড়িগুলো দিয়ে দিতে হবে।

মশলার সাথে সবজি ও বড়িগুলো কিছুক্ষণ সাঁতলানোর পর দুধ এবং সামান্য লবণ ও বেশ খানিকটা চিনি দিয়ে দিতে হবে।

অল্প আঁচে কিছুক্ষণ রান্নার পর যখন দুধ টা কমে আসবে তখন পাঁচফোড়ন গুঁড়ো আর ঘি ছড়িয়ে গ্যাস বন্ধ করে দিতে হবে এবং খানিকক্ষণ কড়াইটা ঢেকে রাখতে হবে।

এরপর কড়াইয়ের ঢাকা খুলে বাটিতে বেড়ে শুক্তো পরিবেশন করতে হবে।

টিপস:
সর্ষে বাটা বেশিক্ষণ ধরে কষানো যাবে না, তাহলে শুক্তো তিতা হয়ে যেতে পারে।

‎ইসি/

 

রেসিপি ও রেস্তোরা: আরও পড়ুন

আরও