ঈদ স্পেশাল ১৫টি কাবাব রেসিপি

ঢাকা, ৩১ জুলাই, ২০১৯ | 2 0 1

ঈদ স্পেশাল ১৫টি কাবাব রেসিপি

পরিবর্তন ডেস্ক ১:৩৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৭, ২০১৯

ঈদ স্পেশাল ১৫টি কাবাব রেসিপি

কোরবানের ঈদ মানেই মাংসের বাহার। আর মাংস মানেই নানা ধরনের স্পাইসি খাবার। এর মাঝে একটা হচ্ছে কাবাব। আর কাবাব খেতে কে না ভালবাসে? বাড়িতে মেহমান দাওয়াতে এলে কিংবা ঈদের দিনে অতিথি পরিবারের সবার জন্য কোনো স্পেশাল কিছু রান্না করতে চাইলে কাবাব রান্নার কথাই প্রথমে মাথায় আসে। তাই এবার রান্নায় ঈদে কাবাবের আয়োজনে ১৫টি নানা রকমের কাবাব রেসিপি।

১. পেশোয়ারি চাপলি কাবাব:

উপকরণ:

মাংসের কিমা-আধা কেজি

ডিম ২ টি (বিট করা)

বড় পেঁয়াজ কুঁচি- ২ টি

ধনিয়া পাতা কুঁচি- আধাকাপ

রসুনবাটা- ১ চা চামচ

আদাবাটা -১টেবিল

টমেটো কুঁচি- ২ টি

কাঁচামরিচ কুঁচি – ২/৩ টি

লবণ স্বাদ মতো

মরিচ গুঁড়ো-১ চা চামচ

গরম মসলা- আধা চা চামচ

জিরা গুড়া- ১ চা চামচ

বেসন – আধা কাপ একটু টেলে নেয়া

গোটা জিরা – ১ টেবিল চামচ

গোটা ধনিয়া – ১ টেবিল চামচ

চিলি ফ্লেক্স – ১ টেবিল চামচ

তেল – ডুবো তেলে ভাজার জন্য

প্রণালি : গোটা ধনিয়া, গোটা জিরা গুঁড়া করে নিন। এমনভাবে করবেন যেন আধা ভাঙা থাকে। এইবার ডিম বাদে সব উপকরণ ভালোভাবে মাংসের কিমার সাথে মাখিয়ে ফেলুন। এবার হাতের তালুতে নিয়ে গোল চ্যাপ্টা করে করে নিয়ে সময় নিয়ে ডুবো তেলে ভাজুন। পরিবেশনের সময় সালাদ ও লেবুর রস ছিটিয়ে পরিবেশন করুন। সাথে দিতে পারেন চাটনি।

২. ভুনা কাবাব :

উপকরণ :

মাংস ১ কেজি

তেল পরিমান মত

তেজপাতা ১টি

এলাচ ২টি

দারচিনি ২ সেঃমি ৩ টুকরা

লবঙ্গ ২টি

পেয়াজ স্লাইস ২ কাপ

জিরা বাটা ২ চা-চামচ

জয়ত্রি বাটা কোয়াটার চা-চামচ

আদা বাটা ২ চা-চামচ

রসুন বাটা ২ চা-চামচ

ধনে বাটা ২ চা-চামচ

গোলমরিচ বাটা ১ চা-চামচ

টক দই ১ কাপ

প্রণালি :

মাংস পাটায় ছেঁচে কিমা করুন। তেলে তেজপাতা, গরম মসলা ও পেয়াজ দিয়ে ভাজুন। পেঁয়াজ হারকা বাদামি রং হলে তুলে রাখুন। এক চা-চামচ জিরা তেলে অল্প ভেজে পেঁয়াজের সাথে তুলে রাখুন। ভাজা পেয়াজ ও জিরা বেটে রাখুন। এবার তেলে মাংস দিয়ে ভাজুন। মাংস ভাজা হলে অন্যান্য বাটা মসলা, দই, ও লবণ মাংসে দিন মাংস সেদ্ধ হওয়ার জন্য অল্প পানি দিন। ঢেকে মৃদু আঁচে রান্না করুন। পানি শুকালে মাংস কষান। নামাবার আগে বাটা পেঁয়াজ ও গরম মসলা দিয়ে অল্পক্ষন কষিয়ে তেল মাংসের উপরে উঠলে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন ভুনা কাবাব।

৩. দম কাবাব

উপকরণ :

মাংস বাটা আদা কেজি

আদা বাটা আদা চা-চামচ

রসুন বাটা ৪ ভাগের এক চা-চামচ

হলুদ বাটা ৪ ভাগের এক চা-চামচ

মরিচ বাটা আধা চা-চামচ

জিরা বাটা আধা চা-চামচ

ধনে বাটা আধা চা-চামচ

গোলমরিচ গুঁড়ো ৪ ভাগের এক চা-চামচ

এলাচ বাটা ২টি

দারুচিনি বাটা ২ টুকরা

লবঙ্গ বাটা ১টা

ডিম হালকা ফেটান একটা

টোস্টের গুঁড়ো আধা কাপ

দই বা সিরকা ১ টেবিল চামচ

ঘি ২ চা-চামচ

লবণ স্বাদ মতো

প্রণালি :

প্রথমে বাটা মাংসর সাথে সব মসলা ভালো ভাবে মিসিয়ে ৫-৬ ঘণ্টা রেখে দিন। এর পর একটি অ্যালোমেনিয়ামের পাত্রে ঘি মাখিয়ে মাংস দিয়ে তার উপর বাকি ঘি দিয়ে দিন এর পর একটি ঢাকনা দিয়ে ভালো ভাবে ঢেকে দিয়ে বড় একটি পাত্রে পানি দিয়ে তার উপর মাংসের পাত্রটি রেখে আবার ঢেকে দিন খেল রাখবেন পানি যেন মাংসের ভেতর চলে না যায়। এবার চুলায় আঁচ খুব কম রাখবেন। অথবা ওভেনে ১৮০সেঃ তাপে কাবাব ১ ঘণ্টা বেক করুন। মাঝে মাঝে একটু নেড়ে দেখবেন সেদ্ধ হয়েছে কিনা। ভালো ভাবে সেদ্ধ হয়ে গেলে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন দম কাবাব।

৪. শিক কাবাব

উপকরণ :

হাড্ডি ছাড়া গরুর মাংস কিউব করে কাটা ১ কেজি

ধনিয়া গুঁড়ো ১ টেবিল চামচ

জিরা গুঁড়ো ২ টেবিল চামচ

গরম মসলা গুঁড়ো ১ টেবিল চামচ

মরিচ গুঁড়ো ২ টেবিল চামচ পু

দিনা পাতা ৫০ গ্রাম

টক দই ৩ টেবিল চামচ

ধনেপাতা ৫০ গ্রাম

কাঁচামরিচ ৫টি

আদা-রসুন বাটা দুই টেবিল চামচ

পেপে বাটা ১/৪ কাপ

সরিষার তেল ৪ টেবিল চামচ

প্রণালি : গরুর মাংসের টুকরাগুলোর সাথে সব উপকরণ একসঙ্গে মাখিয়ে নিন।

কমপক্ষে ২ ঘণ্টা মেরিনেট করে রাখুন।

তারপর মাংসের টুকরাগুলোকে শিকে গেঁথে নিন।

বারবিকিউ এর চুলায় কয়লা জ্বালিয়ে নিন।

কয়লার উপর শিকগুলো দিয়ে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে সব পাশ সেদ্ধ করে হালকা পোড়া পোড়া করে নিন।

সেদ্ধ হয়ে গেলে নান রুটি বা পরোটার সাথে সালাদ দিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার শিক কাবাব।

৫. শামি কাবাব :

উপকরণ

হাড় ছাড়া গরুর মাংস আধা কেজি,

ডিম একটি,

পেঁয়াজ কুচি তিন টেবিল চামচ,

আদা বাটা এক চা চামচ,

রসুন বাটা এক চা চামচ,

ধনিয়া গুঁড়ো এক চা চামচ,

বুটের ডাল এক কাপ,

জিরা গুঁড়ো এক চা চামচ,

গরম মসলা গুঁড়ো এক চা চামচ,

কাঁচামরিচ কুচি চার/পাঁচটি,

মরিচের গুঁড়ো আদা চা চামচ,

হলুদের গুঁড়ো আধা চা চামচ,

তেল ভাজার জন্য

লবণ স্বাদ মতো

প্রণালি : প্রথমে একটি প্যানে গরুর মাংস, বুটের ডাল, (অর্ধেকটা পেঁয়াজ কুচি, আদা-রসুন বাটা, হলুদ, মরিচ, দারুচিনি গুঁড়ো, জিরা গুঁড়ো, ধনিয়া গুঁড়ো,) সামান্য লবণ ও দেড় কাপ পানি দিয়ে সেদ্ধ করুন। সেদ্ধ হয়ে গেলে শিলপাটায় বেটে নিন। এবার একটি বাটিতে এই মিশ্রণ নিয়ে বাকিটা পেঁয়াজ কুচি, বাকি অর্ধেক মসলা (ভাকি অর্ধেক গুঁড়ো মসলা) কাঁচামরিচ কুচি, ডিম ও লবণ দিয়ে ভালো করে মেখে গোল গোল টিকিয়ার মতো তৈরি করে নিন।

এবার প্যানে তেল দিয়ে তাতে টিকিয়াগুলো বাদামি করে ভেজে নিন। ব্যস, খুব সহজেই তৈরি হয়ে গেল বিফ শামী কাবাব।

৬. বিফ গ্রেভি কাবাবের রেসিপি

উপকরণ :

হাড় ছাড়া গরুর/খাসীর মাংস ৫০০ গ্রাম

আদা বাটা ১ টেবিল চামচ

রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ

গরম মসলা গুঁড়া ১ ১/২ টেবিল চামচ

মরিচ গুঁড়া ১ টেবিল চামচ(চাইলে আরো ঝাল বাড়ান)

ধনিয়া গুঁড়া ১ চা চামচ

ভিনেগার ১ টেবিল চামচ

টক দই অথবা মিষ্টি দই ১ ১/২ কাপ

সয়াসস ১ টেবিল চামচ

লবণ স্বাদ মতো(সয়াসসে লবন থাকে)

পরিমান মতো সরিষার তেল(ভাজার জন্য)

প্রণালি : প্রথমে মাংস নিজের ইচ্ছামত কেটে ধুয়ে ঝরিয়ে তাতে বড় বড় কিছু আচড় কেটে দিন। এবার মাংসতে উপরের সব উপকরন(তেল ছাড়া) ভালো করে মাখিয়ে ২ ঘন্টা ফ্রিজে রেখে দিতে হবে। ২ ঘন্টা পর একটি নন স্টিক প্যানে সরিষার তেল গরম করে মাখানো মাংস ছেড়ে দিতে হবে এবং চুলা কমিয়ে ঢেকে কম আচে রাখতে হবে। মাংস সিদ্ধ হয়ে গেলে চুলার আচ বাড়িয়ে ভালো করে ভুনা ভুনা করতে হবে। তারপর সার্ভিং ডিসে সাজিয়ে পরিবেশন করুন গরম গরম ভাত, রুটি, পোলাও, পরোটা, নান রুটি দিয়ে।

৭. স্পেশাল হাড়ি কাবাব

উপকরণ :

হাড় ছাড়া গরুর মাংস – ১ কেজি

টক দই – আধা কাপ

পেয়াজ বাটা – ১ কাপ

পেয়াজ কুচি – ২ টেবিল চামচ (বেরেস্তার জন্য)

রসুন বাটা – ২ টেবিল চামচ

আদা বাটা – ১ টেবিল চামচ

কাচামরিচ বাটা – ১/২ চা চামচ

জয়ত্রী বাটা – ১/৪ চা চামচ(ইচ্ছা)

জায়ফল বাটা – ১/৪ চা চামচ(ইচ্ছা)

গোল মরিচের গুঁড়া – ১/২ চা চামচ

লাল মরিচ গুঁড়া – ১ টেবিল চামচ

জিরা বাটা – ১ চামচ

ধনে গুঁড়া(টেলে গুড়া করা) – ২ চা চামচ

হলুদ গুঁড়া – ১ চা চামচ

কাচামরিচ – ২ টা(ইছামত)

চিনি – ১ চা চামচ(স্বাদ অনুযায়ী)

ভিনেগার (অথবা লেবুর রস) – ১ টেবিল চামচ

তেল – দেড় কাপ

তেজপাতা – ২ টি

এলাচ – ৩ টি

দারুচিনি – ৪ টুকরা

লবঙ্গ – ৪/৫ টি

লবণ স্বাদ মতো

প্রণালি :

হাড়ি কাবাব করতে হবে দুই ধাপে। ১ম ধাপে প্রস্তুতি পর্ব, মাংস মেরিনেট করে ২য় ধাপে রান্না করতে হবে।

১ম ধাপ - মাংস ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। এবার বাটিতে মাংসের টূকরাগুলোতে আস্ত কাচামরিচ আর ভিনেগার বাদে বাকী সমস্ত মশলা এবং অন্য উপকরণগুলো দিয়ে ভাlO করে মেখে নিন মেরিনেট করার জন্য। ভাল করে মশলা মাখানো হলে এবার ভিনেগার (অথবা লেবুর রস) মেশান। এ অবস্থায় মাখানো মাংস ২ ঘন্টা (৫-৬ ঘণ্টা রাখলে আরো ভালো)ফ্রিজে রাখুন (ডিপ ফ্রিজে রাখবেন না)।

২য় ধাপ – রান্নার জন্য এবার হাড়িতে দেড় কাপ তেল দিয়ে গরম হলে পেয়াজ কুচি দিয়ে বাদামী করে ভেজে বেরেস্তা করুন।হাফ বেরেস্তা আলাদা একটি পাত্রে তুলে রাখুন পরে কাবাবের উপর ছড়িয়ে দিতে হবে।

এবার হাড়িতে বাকি তেলের উপর মেরিনেট করা মাংস ছেড়ে দিয়ে খানিকক্ষন নাড়ুন। কয়েক মিনিট পরে আস্ত কাচামরিচ ও সামান্য পানি দিয়ে দিন। নেড়ে ভালো করে মিশিয়ে দিয়ে পাতিলে ঢাকনা তুলে দিয়ে চুলার আচঁ কমিয়ে দিন। এ অবস্থায় রান্না হয়ে মাংস সিদ্ধ হবে। মাঝে মাঝে ঢাকনা তুলে নেড়ে দিবেন। মাংস সিদ্ধ হয়ে পানি শুকিয়ে এলে আরেকবার নেড়ে দিন, তুলে রাখা বেরেস্তা দিয়ে কিছুক্ষন দমে রাখুন। কিছুক্ষন পর মাংসের উপর তেল উঠে এলে কাবাবের হাড়ি চুলা থেকে নামিয়ে রাখুন। হাড়ি কাবাব তৈরি। দারুন স্বাদের এই হাড়ি কাবাব নান দিয়ে খেতে বেশি স্বাদ লাগে।

৮. বিহারি বিফ কাবাব

উপকরণ :

চর্বি ছাড়া ১ কেজি গরুর মাংস কিউব করে কাটা,

আধা কাপ টক দই,

গরম মসলা গুড়া ১ চামচ,

ধনে পাতা ১ চামচ,

জিরা ১ চা চামচ,

লাল মরিচ গুড়া ২ চা চামচ,

হলুদ আধা চা চামচ,

লবণ পরিমাণ মতো,

সরিষার তেল ২ চামচ,

সয়াবিন তেল আধা কাপ,

আদা বাটা ১ চা চামচ,

রসুন বাটা ১ চা চামচ,

মেথি পাউডার ১ চা চামচ।

প্রণালি : সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে নিতে হবে। এর মধ্যে মাংস আর টক দই দিয়ে আবার মেখে নিন। ভালোভাবে মাখার পর ১ ঘণ্টা ফ্রিজে রেখে দিতে হবে। এবার নামিয়ে এনে শিকের মধ্যে মাংসের টুকরোগুলো গেঁথে নিতে হবে। তারপর গ্রিলে দিয়ে মাঝারি আঁচে ১৫ মিনিট রাখুন। মাঝে মধ্যে ঘুরিয়ে তেল দিতে হবে। বাদামি রং হওয়ার পর নামিয়ে আনলেই হলো। এবার পরিবেশন করুন গরম রুটি বা পরোটার সঙ্গে।

৯. কিমা কাঠি কাবাব

উপকরণ:

গরুর মাংসের কিমা আধা কেজি,

ডিম একটি,

পেঁয়াজ বেরেস্তা দুই টেবিল চামচ,

আদা বাটা এক চা চামচ,

রসুন বাটা এক চা চামচ,

ঘি দুই টেবিল চামচ,

কর্নফ্লাওয়ার এক টেবিল চামচ,

কাঁচামরিচ কুচি চার-পাঁচটি।

জয়ফল গুঁড়ো আধা চা চামচ,

জয়ত্রী গুঁড়ো আধা চা চামচ,

কাজুবাদাম বাটা দুই টেবিল চামচ,

কাঁচা পেঁপে বাটা দুই চা চামচ,

লবণ স্বাদ মতো

কাঠি পরিমাণ মতো।

প্রণালি :

প্রথমে একটি বাটিতে গরুর মাংসের কিমা, ডিম, পেঁয়াজ বেরেস্তা, আদা বাটা, রসুন বাটা, ঘি, কর্নফ্লাওয়ার, কাঁচামরিচ কুচি, জয়ফল গুঁড়ো, জয়ত্রী গুঁড়ো, কাজুবাদাম, কাঁচা পেঁপে ও লবণ একসঙ্গে ভালো করে মিশিয়ে নিন। এবার মেরিনেটের জন্য মাংসের মিশ্রণ এক ঘণ্টা ফ্রিজে রেখে দিন।

এরপর কাঠের কাঠির মধ্যে মুঠো করে মাংসের মিশ্রণ লাগিয়ে নিন। প্যানে ঘি গরম করে এগুলো ভাজতে থাকুন। দুই পাশ বাদামি হয়ে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে প্লেটে সাজিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন গরুর মাংসের কাঠি কাবাব।

১০. সুতি কাবাব

উপকরণ:

মিহি কিমা আধা কেজি (ব্লেন্ড করা)

পেঁয়াজ কিউব আধা কাপ

কাঁচা মরিচ কুচি ২ টেবিল চামচ

বেসন ১ কাপ

ধনেপাতা বাটা ২ টেবিল চামচ

টেস্টিং সল্ট আধা চা-চামচ

আদা বাটা ১ চা-চামচ

ডিম ১টা

রসুন বাটা ১ চা-চামচ

লবণ পরিমাণমতো

লাল মরিচের গুঁড়া ১ টেবিল চামচ

কাবাব মসলা ১ চা-চামচ

সাদা সরিষা বাটা ১ চা-চামচ

বাদাম বাটা ১ চা-চামচ

পোস্ত দানা বাটা আধা চা-চামচ

পেঁপে বাটা ১ চা-চামচ

তেল ২ টেবিল চামচ

চর্বিছাড়া মাংস আধা কেজি

প্রণালি: প্রথমে সকল প্রকার মসলা ভালো করে মাখিয়ে এক ঘন্টা রেখে দিতে হবে। চর্বি ছাড়া মাংস পাতলা টুকরা করে সামান্য থেঁতলে নিতে হবে। ১ চা-চামচ কাবাব মসলা, ১ চা-চামচ লবণ ও ১ চা-চামচ টেস্টিং সল্ট একসঙ্গে মিশিয়ে ওই থেঁতলানো মাংসের ওপর দিতে হবে। এবার প্রথমে মাংসের টুকরা দিতে হবে।তারপর মাখানো কিমা দিতে হবে।

আবার টুকরা, তারপর কিমা দিতে হবে।সবার ওপরে মাংসের টুকরা দিয়ে হাতে নিয়ে গোল করে নিতে হবে। তারপর মাংসের গোলাটি সুতা দিয়ে পেঁচিয়ে নিতে হবে। এরপর ওভেনের ট্রে ও কিমার ওপর হালকা তেল মাখিয়ে নিয়ে ওভেনের ট্রেতে কিমাটি রেখে দিতে হবে। ২৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ৩০ মিনিট এবং পরে ১৮০ ডিগ্রিতে ৫ মিনিট রাখতে হবে।

কিমা হয়ে এলে ব্রাশ দিয়ে ওপরে গরম মসলার গুঁড়া মেখে নিতে হবে। গ্যাসের চুলায় তাওয়া বসিয়ে তার ওপর গ্রিল দিয়েও চুলাতে সুতা কাবাব করা যায়। ছবি: প্রথম আলো ব্লগ

১১. কস্তুরি কাবাব

উপকরণ:

গরু অথবা খাসির মাংস হাড় ও চর্বি বাদ দিয়ে পাতলা করে কাটা ১ কেজি

আদা ১ চা-চামচ

ধনেগুঁড়া ১ চা-চামচ

মরিচগুঁড়া ১ চা-চামচ

সয়াসস ২ টেবিল-চামচ

ওয়েস্টার সস ২ টেবিল-চামচ

টমেটো সস ৪ টেবিল-চামচ

লেবুর রস ২ টেবিল-চামচ

কাসুরি মেথিগুঁড়া ১ চা-চামচ

গরম মসলার গুঁড়া ১ চা-চামচ

পোস্তদানাবাটা ১ টেবিল-চামচ

কাজুবাটা ২ টেবিল-চামচ

ঘি ৪ টেবিল-চামচ

লবণ পরিমাণ মতো

দুধ ১ কাপ

প্রণালি: মাংসের সঙ্গে সয়াসস, ওয়েস্টার সস, মরিচগুঁড়া, পেঁয়াজ, আদা, রসুনবাটা, আধা চা-চামচ কাসুরি মেথিগুঁড়া দিয়ে মাখিয়ে ৪ ঘণ্টা রাখতে হবে। ননস্টিক প্যানে ২ টেবিল-চামচ ঘি দিয়ে সব মাংস অল্প আঁচে ঢেকে রান্না করতে হবে। মাঝেমধ্যে নেড়ে দিতে হবে (রান্নার সময় ৩০ মিনিট)। আরেকটি প্যানে ২ টেবিল-চামচ ঘি গরম করে পোস্তদানাবাটা, কাজুবাটা, গোলমরিচের গুঁড়া, টমেটো সস, গরম মসলার গুঁড়া, আধা চা-চামচ কাসুরি মেথি দিয়ে কিছুক্ষণ কষিয়ে দুধ দিতে হবে। ঘন হয়ে এলে আগে থেকে রান্না করা মাংসের ওপর ঢেলে লেবুর রস দিয়ে পরিবেশন করতে হবে।

১২. বিন্দি কাবাব

উপকরণ:

মাংসের কিমা – আধা কেজি

পাউরুটি – ২ টুকরা

আদাবাটা – ১ চা চামচ

লেবুর রস – ১ টেবিল চামচ

লবণ – পরিমাণমতো

গোলমরিচের গুঁড়া – আধা চা চামচ

কর্নফ্লাওয়ার – ১ টেবিল চামচ

সয়াবিন তেল – ১ টেবিল চামচ

এলাচ

দারুচিনি

লবঙ্গ

তেজপাতা – তিন টুকরা

লবণ – স্বাদ মতো

ওপরের সব উপকরণ একত্রে মেখে মাংস ম্যারিনেট করে রাখুন চার ঘণ্টা।

পেঁয়াজ রিং করে কাটা – এক কাপ

পেঁয়াজ বাটা – এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ

গরম মসলা – এক টেবিল চামচ

ঘন নারিকেল দুধ – এক কাপ

ভিনেগার – এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ

টমেটো সস – আধা কাপ

চিনি – এক চা চামচ

কাঁচা মরিচ – পাঁচটি

জয়ফল – আধা চা চামচ

জয়ত্রী – আধা চা চামচ

তেল – আধা কাপ

গ্রেভির জন্য:

ঘি – ৩ টেবিল চামচ

তেল – ৩/৪ টেবিল চামচ

পেঁয়াজবাটা – ২ টেবিল চামচ

আদাবাটা – দেড় টেবিল চামচ

রসুনবাটা – ১ চা চামচ

গরম মসলার গুঁড়া – ১ চা চামচ

পোস্তদানার বাটা – ২ টেবিল চামচ

কাঁচা মরিচ ৪/৫ টি

মরিচগুঁড়া – ১ চা চামচ

জয়ফল, জয়ত্রী গুঁড়া – ১ চা চামচ

লবণ – স্বাদ মতো

জিরাবাটা – ১ চা চামচ

মিষ্টি দই – আধা কাপ

টক দই – আধা কাপ

দারুচিনি – ৪ টুকরা

তেজপাতা – ২টা

কেওড়া – ১ টেবিল চামচ

পেঁয়াজ বেরেস্তা – সিকি কাপ

কিশমিশ – ১ টেবিল চামচ

প্রণালি: কাবাবের সব উপকরণ একসঙ্গে মেখে ছোট ছোট বল বানিয়ে নিন। তেল ও ঘি গরম করে তাতে গরম মসলা ও পেঁয়াজ ভেজে নিন। গ্রেভির সব মসলা দিয়ে কষিয়ে দই দিয়ে কিছুক্ষণ ভুনে নিন। সামান্য পানি দিয়ে মাংসের বলগুলো ছেড়ে দিন। এবার অল্প আঁচে কিছুক্ষণ চুলায় রেখে নামিয়ে নিন।

১৩. আফগানি বিফ কাবাব

উপকরণ :

গরুর মাংস – ১ কেজি

পেঁয়াজ মিডিয়াম সাইজের – ১টি

আদা বাটা – আধা টেবিল চামচ

রসুন বাটা – আধা টেবিল চামচ

ব্ল্যাক পেপার – আধা চা চামচ

হোয়াইট পেপার – আধা চা চামচ

লবণ – পরিমাণ মতো

অলিভ অয়েল – এক কাপের তিনের এক অংশ

ডানো ক্রিম – ২ টেবিল চামচ

গরম মসলা গুঁড়ো – ১ টেবিল চামচ

আদা পাউডার – আধা টেবিল চামচ

রসুন পাউডার – আধা টেবিল চামচ

লেবু – ১ টি

প্রণালি : প্রথমে মাংস হালকা থেতলে নিতে হবে। এরপর পেঁয়াজ, লেবুর রস, আদা, রসুন, ক্রিম, অলিভ অয়েল এগুলো একসঙ্গে মিশিয়ে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। এবার মাংসের সঙ্গে পুদিনাসহ বাকি মসলা মেখে নিতে হবে।

মেরিনেট হওয়ার জন্য ১ ঘণ্টা ফ্রিজে রাখুন। ফ্রিজ থেকে বের করে শিকে ভরে কয়লার আগুনে চারপাশ পরিমাণ মতো পুড়িয়ে নিন। খেয়াল রাখতে হবে যেন বেশি সেদ্ধ না হয়।

এবার পুদিনা পাতার সসের সঙ্গে গরম গরম পরিবেশন করুন মজাদার আফগানি বিফ কাবাব।

১৪. টার্কিশ ‘আদানা কাবাব’

উপকরণ :

গরুর মাংস ১ কেজি,

পার্সলে পাতা ৫০ গ্রাম,

রসুন ২০ গ্রাম,

গরুর চর্বি ৫০ গ্রাম,

লবণ ১-২টি চামচ,

পেপরিকা ১ চা চামচ,

কাঁচামরিচ ১০ গ্রাম,

পেঁয়াজ ২টি বড়,

পুদিনা পাতা ১০ গ্রাম,

জিরা ১টি চামচ,

ব্ল্যাক পেপার ১-২ চামচ।

প্রণালি : বিফ ও চর্বি মিশিয়ে পানি ঝরানোর জন্য রেখে দিন। অন্যদিকে পার্সলে, রসুন, কাঁচামরিচ, পেঁয়াজ, পুদিনা পাতা ছুরি দিয়ে কুচিয়ে নিন। এরপর সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। ১৫ মিনিট ফ্রিজে রাখুন। ফ্রিজ থেকে বের করে শিকে ভরে কয়লার আগুনে চারপাশ পরিমাণ মতো পুড়িয়ে নিন। গরম গরম নান বা পরোটার সাথে পরিবেশন করুন।

১৫. বিফ বটি কাবাব রেসিপি

উপকরণ

গরুর মাংসের মোটা টুকরা (আধা কেজি),

টকদই ১/২ কাপ 

আদা বাটা দেঢ় টেবিল চামচ,

রসুন বাটা আধা টেবিল চামচ,,

লবণ (প্রয়োজনমত),

গোলমরিচ গুড়ো ১/৩ চা চামচ,

পেঁয়াজ ২ টি বড় (মোটা টুকরা করে কাটা),

ক্যাপসিয়াম ১ টি  টুকরা করে কাঁটা,

ঘি ও সয়াবিন তেল।

প্রণালি:

গরুর মাংস ধুয়ে নিয়ে ৮ টি মোটা ও ছোট টুকরা করে নিন। মাংসের টুকরা গুলো একটি কাটা চামচ দিয়ে ফুটো করে নিন। এতে মসলা মাংসের মধ্যে ঢুকবে। টকদই, আদা বাটা, রসুন বাটা, লবণ, গোলমরিচ গুড়া দিয়ে মাংসের টুকরা গুলো ভালো করে মাখিয়ে মেরিনেট করুন ১২ ঘণ্টা। অন্তত ৬ ঘন্টা মেরিনেট করতে ববে।

মেরিনেট করা হয়ে গেলে মাংসের টুকরা গুলো কাঠির মধ্যে ঢুকিয়ে এর উপরে ভালো করে ঘি মাখিয়ে বারবিকিউ মেশিনে গ্রিল করে নিন। গ্রিল করতে না চাইলে ফ্রাইং প্যানে ঘি মাখিয়ে ভেজে নিতে পারেন। মাংস ঠিকমত গ্রিল/ ভাজা হলেই আপনার কাবাব তৈরী। পেঁয়াজ ও ক্যাপসিকাম হাল্কা তেলে ভেজে নিয়ে কাবাবের সাথে পরিবেশন করুন মজাদার এই বটি কাবাব। সুত্র: উর্বশী

ইসি/

 

রেসিপি ও রেস্তোরা: আরও পড়ুন

আরও