দেশের দীর্ঘ পথে যাত্রা শুরু পঞ্চগড় এক্সপ্রেসের

ঢাকা, ২৫ জুন, ২০১৯ | 2 0 1

দেশের দীর্ঘ পথে যাত্রা শুরু পঞ্চগড় এক্সপ্রেসের

পঞ্চগড় প্রতিনিধি ৬:৩৯ অপরাহ্ণ, মে ২৫, ২০১৯

দেশের দীর্ঘ পথে যাত্রা শুরু পঞ্চগড় এক্সপ্রেসের

পঞ্চগড়-ঢাকা রেলপথে শনিবার যুক্ত হলো স্বল্পবিরতির পঞ্চগড় এক্সপ্রেস। দেশের দীর্ঘতম রেলপথে দ্রুতগতির আধুনিক সুবিধাসম্পন্ন এই ট্রেন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

উদ্বোধনী সব আয়োজন সম্পন্ন এবং নানাভাবে সজ্জিত করা হয়েছে নতুন ট্রেনটিকে। এছাড়া স্বাধীনতার আগ থেকে পরিচিত হয়ে ওঠা পঞ্চগড় রেলওয়ে স্টেশনের নামটি পরিবর্তন করে বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম রেলওয়ে স্টেশন নামকরণ করেছে রেল মন্ত্রণালয়।

শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ট্রেনটির উদ্বোধন করেন।

এ প্রান্তে পঞ্চগড় রেলওয়ে স্টেশনে রেলপথমন্ত্রী অ্যাডভোকেট নূরুল ইসলাম সুজনসহ রেল ও প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। পরে রেলমন্ত্রী পঞ্চগড় এক্সপ্রেসে করেই ঢাকার উদ্দেশে রওনা হন।

ঢাকা-পঞ্চগড় রেলপথে প্রথমবারের মতো দ্রুতগতির পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনটি ৫৯৩ কিলোমিটার পথ পাড়ি দেবে ১০ ঘণ্টায়। ট্রেনটি প্রতিদিন দুপুর ১টা ১৫ মিনিটে পঞ্চগড় থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে গিয়ে রাত ১০টা ৩৫ মিনিটে ঢাকা পৌঁছবে। আবার রাত ১২টা ১০ মিনিটে ঢাকা থেকে ছেড়ে সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে পঞ্চগড় পৌঁছবে।

যাত্রাপথে ঠাকুরগাঁও, দিনাজপুর, পাবর্তীপুর ও ঢাকা বিমানবন্দর স্টেশনে ট্রেনটি থামবে। ঢাকা থেকে আসার পথেও এসব স্টেশনে থামবে। ট্রেনটিতে আধুনিক সুযোগ-সুবিধা থাকলেও ভাড়া একতা ও দ্রুতযানের সমান রাখা হয়েছে।

শোভন চেয়ার ৫৫০ টাকা, এসি চেয়ার ১ হাজার ৩৫ টাকা, এসি সিট ১২৬০ টাকা এবং এসি বার্থ ১৮৯২ টাকা। ট্রেনটির ৩০ শতাংশ আসন পঞ্চগড়ের জন্য, ৩০ শতাংশ দিনাজপুর, ২৫ শতাংশ ঠাকুরগাঁও এবং ১৫ শতাংশ পার্বতীপুরের জন্য নির্ধারিত থাকবে। সব মিলে ১২টি কোচ নিয়ে প্রায় এক হাজার যাত্রী পরিবহন করবে ট্রেনটি। ট্রেনটিতে ইন্দোনেশিয়া থেকে আনা আধুনিক সুবিধাসম্পন্ন কোচগুলো যুক্ত করা হয়েছে।

স্বল্পবিরতির পঞ্চগড় এক্সপ্রেস উদ্বোধনের সাথে সাথে স্বাধীনতার আগ থেকে পরিচিত হয়ে ওঠা পঞ্চগড় রেলওয়ে স্টেশনের নামটিও বদলে যাচ্ছে। পঞ্চগড় রেলওয়ে স্টেশনের নামফলক মুছে নতুন নাম দেয়া হয়েছে বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম রেলওয়ে স্টেশন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম আওয়ামী লীগ থেকে নির্বাচিত সাবেক সংসদ সদস্য ও মুক্তিযুদ্ধকালীন ৬নং সেক্টরের বেসামরিক উপদেষ্টা ছিলেন। তিনি বর্তমান রেলমন্ত্রী অ্যাডভোকেট নূরুল ইসলাম সুজনের বড় ভাই।

এইচআর

 

রংপুর: আরও পড়ুন

আরও