লালমনিরহাটে ছাত্রীকে যৌন নিপীড়ন: সেই প্রধান শিক্ষক বরখাস্ত

ঢাকা, সোমবার, ২০ মে ২০১৯ | ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

লালমনিরহাটে ছাত্রীকে যৌন নিপীড়ন: সেই প্রধান শিক্ষক বরখাস্ত

লালমনিরহাট প্রতিনিধি ৯:৩৬ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৭, ২০১৯

লালমনিরহাটে ছাত্রীকে যৌন নিপীড়ন: সেই প্রধান শিক্ষক বরখাস্ত

লালমনিরহাটের আদিতমারীতে ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের দায়ে গ্রেপ্তার হওয়া সেই প্রধান শিক্ষক লুৎফর রহমানকে (৫০) সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

তিনি আদিতমারী উপজেলার বড়াবাড়ি এমএইচ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। গত সোমবার তাকে এ অভিযোগে গ্রেপ্তার করে জেলা কারাগারে পাঠায় পুলিশ।

লালমনিরহাট জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম সাময়িকভাবে বরখাস্তের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বুধবার সন্ধ্যায় ই-মেইলে পাওয়া রংপুর বিভাগীয় উপ-পরিচালক আবদুল ওয়াহাব স্বাক্ষরিত একটি চিঠিতে বড়াবাড়ি এমএইচ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক লুৎফর রহমানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। গ্রেপ্তারের দিন থেকে তার বরখাস্ত আদেশ কার্যকর করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, উপজেলার বড়াবাড়ি এমএইচ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক লুৎফর রহমান ওই বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের নানা ছলনায় প্রায়ই যৌন হয়রানি করতেন। কয়েক দিন আগেও ওই বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর কাছে টাকা আছে কি না তা দেখার জন্য তার শরীরে হাত দিয়ে দ্রুত বাথরুমে আসতে বলেন প্রধান শিক্ষক লুৎফর রহমান। ওই শিক্ষার্থী শিক্ষকের কথা অনুযায়ী বাথরুমে যান। সেখানে ছাত্রীটিকে টাকার লোভ দেখান প্রধান শিক্ষক।

ওই শিক্ষার্থী স্কুল থেকে বাড়িতে ফিরে পুরো ঘটনা তার পরিবারকে জানায়। পরে প্রতিকার চেয়ে ছাত্রীর পরিবার সোমবার আদিতমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আসাদুজ্জামানের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন। ছাত্রীর মা-ও একই অভিযোগ দেন আদিতমারী থানায়। এর পর ওইদিন বিকেলে পুলিশ বুড়িরহাট এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে সেই মামলায় জেলা কারাগারে পাঠায়।

এমএ

আরও পড়ুন...
ছাত্রীকে যৌন হয়রানির দায়ে প্রধান শিক্ষক কারাগারে