‘কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের কোন ধরনের গাফলতি সহ্য করা হবে না’

ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮ | ৩০ কার্তিক ১৪২৫

মেয়রের প্রথম দিন

‘কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের কোন ধরনের গাফলতি সহ্য করা হবে না’

সুশান্ত ভৌমিক,রংপুর ৬:২৩ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২৩, ২০১৮

‘কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের কোন ধরনের গাফলতি সহ্য করা হবে না’

রংপুর সিটি কর্পোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা দায়িত্ব গ্রহনের পর প্রথম দিন সোমবার সকালে তাঁর কার্যালয়ে সিটি কর্পোরেশনের সকল দপ্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সাথে মতবিনিময় করেছেন এবং বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দিয়েছেন। একটি সূত্র জানিয়েছেন, মেয়র মোস্তফা সকালে কার্যালয়ে এসে বসলে সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী আখতার হোসেন আজাদ প্রশাসনিক কর্মকান্ড তুলে ধরেন। অপরদিকে, সিটি কর্পোরেশনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এমদাদ হোসেন এবং নির্বাহী প্রকৌশলী আযম আলী সিটি কর্পোরেশনের বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রম তুলে ধরেন।

এসময় সিটি মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা সকলের উদ্দেশে বলেন, আমি আপনাদের সকলের সহযোগিতা নিয়ে সিটি কর্পোরেশন পরিচালনা করতে চাই। সিটি কর্পোরেশনের কাজে কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের কোন ধরনের গাফলতি সহ্য করা হবে না বলেও তিনি জানিয়ে দেন এবং সকলকে তাদের স্ব স্ব দায়িত্ব নিষ্ঠার সাথে পালন করার জন্য তিনি নির্দেশ প্রদান করেন।

এসময় তিনি প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আখতার হোসেন আজাদকে সিটি কর্পোরেশন পরিচালনায় বিভিন্ন দিক নির্দেশনা প্রদান করেন। এছাড়া তিনি সিটি কর্পোরেশনের প্রত্যেক শাখা অনুয়ায়ী সমস্ত কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা কি কি কাজ করছেন তার তালিকা তৈরী করার নির্দেশনা দিয়েছেন।

এদিকে, রংপুর সিটি কর্পোরেশনের বর্তমানে যেসব উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিচালিত হচ্ছে সেগুলোর কি অবস্থা রয়েছে তা তাকে লিখিতভাবে জানানোর জন্য সিটি কর্পোরেশনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী ও নির্বাহী প্রকৌশলীকে নির্দেশ দিয়েছেন।

সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা এই প্রতিবেদককে বলেন, উন্নয়ন কর্মকান্ডগুলোর বর্তমানে কি অবস্থায় রয়েছে তা তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী ও নির্বাহী প্রকৌশলীর লিখিত প্রতিবেদন পাবার পর তিনি সেগুলো সরেজমিনে পরিদর্শন করে দেখবেন এবং কর্মকান্ড ঠিকমতো পরিচালিত হচ্ছে কিনা তা খতিবে দেখা হবে বলেও তিনি এ প্রতিবেদককে আরো জানিয়েছেন। তবে সিটি কর্পোরেশনের একটি সূত্র নাম না প্রকাশ করার শর্তে জানিয়েছেন, মেয়রের দায়িত্ব নিয়েই সিটি কর্পোরেশনের পরিচালিত উন্নয়ন কার্যক্রমগুলোর বর্তমানে কি অবস্থা তা খতিয়ে দেখার জন্য একটি মহলকে দায়িত্ব দিয়েছেন। ওই মহলের প্রতিবেদন এবং সিটি কর্পোরেশনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী ও নির্বাহী প্রকৌশলীর দাখিলকৃত প্রতিবেদন পরীক্ষা করে সেগুলো সঠিক রয়েছে কিনা তা সিটি মেয়র খতিয়ে দেখবেন বলেও ওই সূত্রটি জানিয়েছেন।

এসভি/এএস