হিমঘরে মা-মেয়ের লাশ, হাসপাতালে স্বামী-সন্তান

ঢাকা, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

হিমঘরে মা-মেয়ের লাশ, হাসপাতালে স্বামী-সন্তান

নওগাঁ প্রতিনিধি ১২:৫৬ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৮, ২০১৯

হিমঘরে মা-মেয়ের লাশ, হাসপাতালে স্বামী-সন্তান

মাকে শেষ বারের মতো দেখে স্বামী সন্তানদের নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি। কিন্তু কে জানত তিনিও চলে যাবেন তার মায়ের মতো না ফেরার দেশে!

সোমবার সকালে একটি বেপরোয়া ট্রাক আদরী বেগম (২৫) ও তার ছয় বছরের শিশু কন্যার প্রাণ কেড়ে নিয়েছে।

সকালে নওগাঁ-রাজশাহী মহাসড়কের ডাক্তারের মোড় বটতলী নামক স্থানে এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটে।

দুর্ঘটনায় আদরী বেগমের স্বামী শহীদ ও আরেক মেয়ে গুরুতর আহত হয়েছেন। বর্তমানে তারা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

নওগাঁ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ-পরিচালক একেএম মুর্শেদ জানান, গতকাল রোববার আদরী বেগমের মা মারা গেছেন। মাকে দেখার জন্য সপরিবারে সদর উপজেলার হাপানিয়া উল্লাসপুর গ্রামে গিয়েছিলেন।  

তিনি জানান, সকালে স্বামী সন্তানদের নিয়ে বাড়ি সদর উপজেলার চকআতিথা ধোপাইপুর যাবার জন্য ওই সড়কের বটতলী নামক স্থানে বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। এমন সময় নওগাঁ থেকে আসা একটি বেপরোয়া ট্রাক তাদেরকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই আদরী বেগম ও তার ছয় বছরের শিশুকন্যা সম্পা মারা যায়।

মুর্শেদ জানান, এ ঘটনায় আদরী বেগমের স্বামী শহীদ ও অপর মেয়ে পারভিন গুরুতর আহত হলে তাদেরকে প্রথমে নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাদেরকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ গ্রামবাসীরা ঘাতক ট্রাককে আটক করতে পারলেও চালক ও হেলপার পালিয়ে যায়। দুর্ঘটনার পর থেকে গ্রামবাসীরা নওগাঁ-রাজশাহী মহাসড়ক অবরোধ করে রেখেছে। ঘটনাস্থলের দুই পাশে যানবাহন চলাচল করতে না পারার কারণে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে পথচারীদের।

নওগাঁ সদর থানার ওসি সোহরাওয়ার্দী হোসেন বলেন, পুলিশ প্রশাসন ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিবেশ শান্ত করার চেষ্টা করছে। আর থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এসবি

আরও পড়ুন...
সকালে সড়কে ঝরল মা-মেয়ের প্রাণ

 

রাজশাহী: আরও পড়ুন

আরও