ডাবল জিপিএ-৫ পাওয়া খাদিজার চিকিৎসক হওয়ার স্বপ্ন অনিশ্চিত

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

ডাবল জিপিএ-৫ পাওয়া খাদিজার চিকিৎসক হওয়ার স্বপ্ন অনিশ্চিত

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি ৬:৪৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৯, ২০১৯

ডাবল জিপিএ-৫ পাওয়া খাদিজার চিকিৎসক হওয়ার স্বপ্ন অনিশ্চিত

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার চককীর্তি ইউনিয়নের রানীবাড়ি এলাকার একটিমাত্র ঘরে বেড়ে উঠেছে খাদিজা। তিন বোন ও দুই ভাইয়ের মধ্যে খাদিজা ৪র্থ। দিনমজুর বাবা জালাল উদ্দীনের আয়ে কোন করমে চলে খাদিজাদের পরিবার।

অভাব অনটনে বেড়ে উঠা খাদিজা বরবরই ছিলো মেধাবী, তাই বাবা মেয়ের লেখাপড়া চালিয়ে নিতে সবসময়ই উৎসাহ দিয়েছেন, কষ্ট হলেও খরচ জুগিয়েছেন। বাবার কষ্টের প্রতিদানও মিলেছে, এবার খাদিজা রংপুর মেডিকেল কলেজে পড়ার সুযোগ পেয়েছে।

মেয়ের এমন সাফল্যে খুশি দিনমজুর বাবা। কিন্তু সেই খুশি ছাপিয়ে এখন জালাল উদ্দীনের কপালে চিন্তার ভাজ। রংপুরে মেয়ের পড়ালেখার খরচ জোগাবেন কিভাবে? বাবার প্রশ্ন, তাহলে কি আমার মেয়ের ডাক্তারি পড়ার স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যাবে?

খাদিজার মা জোসনা বেগম বলেন, নিয়মিত লেখাপড়া করত আমার মেয়ে। সে সবসময়ই বলত, মা আমি ডাক্তার হব। মানুষের সেবা করব। তার পরিশ্রমের ফল পেয়েছে, হয়েছে মেডিকেলে ভর্তির সুযোগ। যদিও পড়ালেখার খরচ কিভাবে চলবে এ নিয়ে আমরা চিন্তায় পড়ে গেছি। তবুও মা হয়ে আশাকরি কোন সুযোগ অবশ্যই আসবে। যেকোনভাবে আমার মেয়ের স্বপ্ন পূরণ হবে।

খাদিজা তার এ সাফল্যের পেছনে তার শিক্ষক ও বাবা মায়ের সবচেয়ে বেশি অবদান রয়েছে বলেও উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, আমাকে কেউ প্রশ্ন করলে আমি সবসময়ই বলতাম ডাক্তার হব। এখন আমার স্বপ্ন পূরণের পথটা রচিত হয়েছে। এখন সেই পথ ধরে সামনে এগিয়ে যেতে চাই। যদিও দারিদ্রতা আমার পথচলায় একটা বড় বাধা। তবুও বিশ্বাস করি সেটিও জয় করে আমি আমার স্বপ্ন পূরণ করতে পারব।

এআরএন/এসএস 
আরও পড়ুন...
খাদিজার ভর্তিতে এগিয়ে এলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের পুলিশ সুপার

 

রাজশাহী: আরও পড়ুন

আরও