আটক ভারতীয় জেলের বিরুদ্ধে দুই মামলা

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

আটক ভারতীয় জেলের বিরুদ্ধে দুই মামলা

রাজশাহী ব্যুরো ২:৩২ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৮, ২০১৯

আটক ভারতীয় জেলের বিরুদ্ধে দুই মামলা

রাজশাহীর চারঘাট সীমান্তে আটক ভারতীয় জেলে প্রনব মন্ডলের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশসহ দুটি মামলা করেছে বিজিবি। অপর মামলায় বাংলাদেশ সীমানায় ঢুকে নিষিদ্ধ সময়ে কারেন্ট জাল দিয়ে মা ইলিশ শিকারের অভিযোগ আনা হয়েছে।

তিনি ভারতের মুর্শিদাবাদ জেলার জলঙ্গী থানার সাহেবনগর ছিড়াচর এলাকার বসন্ত মন্ডলের ছেলে।

চারঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সমিত কুমার কুন্ডু আজ শুক্রবার সকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, দুই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে দুপুর ১২টার দিকে তাকে আদালতের মাধ্যমে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) চারঘাট বিওপির (বর্ডার আউট পোস্ট) হাবিলদার হুমায়ুন কবীর বাদী হয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতেই মামলাটি দায়ের করেন এবং তাকে চারঘাট থানায় হস্তান্তর করেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) রাতে রাজশাহী বিজিবি-১ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল ফেরদৌস জিয়াউদ্দিন মাহমুদ সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে জানান, সীমান্তের শূন্য রেখা অতিক্রম করে অবৈধভাবে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে অনুপ্রবেশ করে তিনজন জেলে মাছ ধরছিল। ওই সময় পদ্মা নদীতে মাছ ধরা নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

জেলেদের মধ্যে প্রনব মন্ডলকে আটক করা গেলেও বাকিরা পালিয়ে যান। এ খবর তারা বিএসএফকে দিলে আটক জেলেকে ছাড়িয়ে নিতে বিএসএফ স্পিড বোট নিয়ে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে। তাদেরকে বলা হয়, পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে জেলেকে ফিরিয়ে দেবার ব্যবস্থা করা হবে। কিন্ত তাতে গুরুত্ব না দিয়ে গুলি ছোড়ে বিএসএফ সদস্যরা।

পরে বিজিবি আত্মরক্ষায় ফাঁকা গুলি ছোড়ে। এর পর বিএসএফ সদস্যরা বিজিবিকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়তে ছুড়তে পিছু হটে এবং নিজেদের সীমানায় চলে যায়।

এর পর সন্ধ্যায় বিজিবি-বিএসএফের পতাকা বৈঠকে বিএসএফ দাবি করেছে, বিজিবির গুলিতে বিএসএফের এক সদস্য নিহত ও একজন আহত হয়েছে। ঘটনাটি অনাকাঙ্খিত। দুই দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী ঘটনাটি তদন্ত করবে বলে জানানো হয়।

বিএইচ/আরপি

 

রাজশাহী: আরও পড়ুন

আরও