নাটোরে প্ল্যাটফর্মে চাঁদা না পেয়ে যাত্রী-নিরাপত্তা কর্মীদের পেটালো সন্ত্রাসীরা

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

নাটোরে প্ল্যাটফর্মে চাঁদা না পেয়ে যাত্রী-নিরাপত্তা কর্মীদের পেটালো সন্ত্রাসীরা

নাটোর প্রতিনিধি ৯:৪৯ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১২, ২০১৯

নাটোরে প্ল্যাটফর্মে চাঁদা না পেয়ে যাত্রী-নিরাপত্তা কর্মীদের পেটালো সন্ত্রাসীরা

নাটোর রেলওয়ে স্টেশন প্ল্যাটফর্মে চাঁদা না পেয়ে দুই ট্রেন যাত্রীসহ নিরাপত্তা কর্মীদের পিটিয়ে পালিয়েছে স্থানীয় সন্ত্রাসী সজিব ও তার সহযোগীরা। শুক্রবার রাতে নাটোর রেলওয়ে স্টেশন প্লাটফর্মে এই ঘটনা ঘটে।

তবে রেলের নিরাপত্তা কর্মীদের দাবি, সন্ত্রাসীরা শুধু যাত্রীদের মারপিট করেছে আর নিরাপত্তা কর্মীদের ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়।

সন্ত্রাসী হামলায় আহতরা হলেন, যশোর জেলার নওপাড়ার অভয়নগর এলাকার মুক্তার হোসেনের ছেলে জীবন এবং তার সাথে থাকা অপর আহত তার চাচাতো ভাই স্বাধীন।

জীবন জানান, তিনি তার চাচাতো ভাই স্বাধীনকে নিয়ে নওগাঁর আত্রাই এলাকায় একজন গেরস্থের বাড়িতে কামলার কাজ করতেন। কাজ শেষে যশোরে ফেরার উদ্দেশ্যে আহসানগঞ্জ স্টেশন থেকে খুলনাগামী রকেট মেইল ট্রেনে উঠেন। পথে নাটোর স্টেশনে এসে রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনের ক্রসিংয়ের জন্য রকেট মেইল অপেক্ষা করতে থাকে। এই সময় তারা দুই ভাই প্ল্যাটফর্মের সাথে ওভার ব্রিজে দাঁড়িয়ে কোল্ড ড্রিংকস খাচ্ছিলেন।

এমন সময় দুইজন যুবক তাদের কাছে ৫০ টাকা দাবি করে। টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তাদের দুইজনকে তারা প্রথমে চড়-থাপ্পড়, পরে লাথি ও কিল ঘুষি মেরে ওভার ব্রিজ থেকে প্ল্যাটফর্মে ফেলে বেদম মারধর করে। তখন নিরাপত্তাকর্মী এসে তাদেরকে থামায় এবং নিরাপত্তা বিভাগের কক্ষে নিয়ে যায়। কিন্তু সেখান থেকেও তারা সকলকে মারধর করে পালিয়ে যায়।

স্থানীয়রা জানান, শহরের উত্তর বড়গাছার বৌ বাজার এলাকার সুজা মিয়ার ছেলে সজীব বেশ কিছু দিন ধরেই স্টেশনের যাত্রীদের কাছ থেকে চাঁদা নিয়ে আসছে। এ ছাড়া তারা যাত্রীদের মালামাল চুরি করাসহ পকেট মারের সদস্যদের কাছ থেকেও ভাগ নেয়। আজকেও এই যাত্রী দুইজনের কাছে চাঁদা চেয়ে না পেয়ে তাদের ওপর হামলা করে এবং মারপিট করে আহত করে। পরে নিরাপত্তা কর্মী সেলিম এসে সজীবকে আটক করলেও তার সহযোগীরা পালিয়ে যায়। পরে সজিবকে আটকে রেখে থানায় খবর দেওয়ার কথা বললে সজীব নিরাপত্তা কর্মী সেলিমসহ উপস্থিত লোকজনকে মারপিট করে পালিয়ে যায়।

সরেজমিন গিয়ে দেখা গেছে, সন্ত্রাসী হামলায় আহত জীবন এবং স্বাধীনের মুখে হাতে ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে রক্তাক্ত জখম হয়েছে।

এ বিষয়ে নাটোর রেলওয়ে প্ল্যাটফর্মের নিরাপত্তা বিভাগের এএসআই আবু তালিব জানান, তিনি ঘটনার সময় প্ল্যাটফর্মে উপস্থিত ছিলেন না। খবর পেয়ে খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে উপস্থিত হয়ে জানতে পারেন স্টেশনের পূর্ব পাশে অবস্থিত উত্তর বড়গাছার বৌ বাজার এলাকার সুজার ছেলে সজীবসহ তার সহযোগীরা দুই যাত্রীর ওপর হামলা করে আহত করেছে। পরে ঘটনাস্থল থেকে সজীবকে আটক করে থানায় খবর দেয়ার জন্য বললে সজীব নিরাপত্তা কর্মী সেলিমসহ উপস্থিত লোকজনকে মারপিট করে ধাক্কা মেরে সেখান থেকে পালিয়ে যায়। পরে আহত দুই যাত্রীকে নিরাপত্তা অফিসে বসিয়ে লিখিত অভিযোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

আবু তালিব আরও জানান, বিষয়টি জানার সাথে সাথে তিনি নাটোর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে অবগত করেছেন এবং প্রয়োজনীয় সহযোগিতা কামনা করেছেন। এর পর ট্রেন ছাড়ার সময় হয়ে গেলে আহত যাত্রীদ্বয়কে পুনরায় রকেট মেইল ট্রেনে উঠিয়ে দেয়া হয়।

বিএল/আরপি

 

রাজশাহী: আরও পড়ুন

আরও