নামাজ পড়াই কী তার অপরাধ: আবরারের ছোট ভাই

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

নামাজ পড়াই কী তার অপরাধ: আবরারের ছোট ভাই

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি ৮:৪৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ০৭, ২০১৯

নামাজ পড়াই কী তার অপরাধ: আবরারের ছোট ভাই

বুয়েট ছাত্র আবরার  ফাহাদ পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়তেন। নামাজ পড়াই কী  তার ভাইয়ের অপরাধ এমন প্রশ্ন ছোট ভাই আবরার ফাইয়াজের।

তিনি বলেন, ‘আজ সকাল ১০টার দিকে বাবার কাছে ফোন করেন ফাহাদ ভাইয়ের এক রুমমেট। প্রথমে ফোন করে অসুস্থতার কথা জানালেও কিছুক্ষণ পর ফোন দিয়ে আবরার ফাহাদের মৃত্যুর খবর দেন তিনি। স্কুল জীবন থেকেই আমার বড়ভাই খুব মেধাবী। ইঞ্জিনিয়ার হয়ে বিদেশ যাওয়ার স্বপ্ন ছিল তার। কোন রাজনৈতিক দল বা কোনো সংগঠনের সঙ্গে তার কোনো সম্পৃক্ততা ছিল না। পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়তো। নামাজ পড়াই কী আমার ভাইয়ের অপরাধ?

ছোট ভাই ফাইয়াজ আরও বলেন, ‘ছুটিতে  বাড়িতে এলেই সবসময় বই পড়া নিয়ে ব্যস্ত থাকতেন। মাঝে মাঝে দুই ভাই একসাথে হয়ে রিকশা করে কুষ্টিয়া শহরের অলিগলিতে ঘুড়াঘুড়ি করতাম। এখন আর দুই ভাই একসাথে ঘুড়াঘড়ি করা হবে না ভাবতে বুক ফেটে যাচ্ছে। ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ে বিদেশে পাড়ি দিয়ে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার স্বপ্ন ছিল ফাহাদ ভাইয়ের। মৃত্যু তার সেই স্বপ্নকে পূরণ হতে দিল না। কি অপরাধ ছিলো আমার ভাইয়ের? কেনোই বা ছাত্রলীগের নেতাকমীরা আমার ভাইকে হত্যা করলো? জানি সবকিছুই ম্যানেজ হয়ে যাবে। বিচার আর হবে না বলে সংশয় প্রকাশ করে হু হু কেদেঁ ফেলেন তিনি। নিহত আবরার ফাহাদ কুষ্টিয়া শহরের পিটিআই রোড এলাকার বরককউল্লাহ ছেলে।’

উল্লেখ্য, সোমবার বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শেরে বাংলা হলের আবাসিক ছাত্র আবরার ফাহাদের রহস্যজনক মৃত্যু হয়। তিনি ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বষের ছাত্র। সকালে সহপাঠিরা আবরারকে হলের সিঁড়িতে পড়ে থাকতে দেখে। কয়েকজন সহপাঠী অচেতন অবস্থায় আবরারকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে। পরে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ছাত্রলীগের চারজন নেতাসহ ছয়জনকে আটক করেছে পুলিশ। এছাড়া আবরার হত্যার ঘটনায় দেশের বিশ্ববিদ্যালয় গুলোতে বিক্ষোভ- সড়ক অবরোধ কর্মসূচি পালন করেছেন শিক্ষার্থীরা। তার মৃত্যুতে শুধু পরিবারের সদস্যদের মধ্যে নয়, এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। সারাদেশ ও কুষ্টিয়া জেলাজুড়ে চলছে নানান সমলোচনা।

এমএইচ

 

খুলনা: আরও পড়ুন

আরও