ভেতরে পরীক্ষা, বাইরে গরু-ছাগলের হাট (ভিডিও)

ঢাকা, ৬ আগস্ট, ২০১৯ | 2 0 1

ভেতরে পরীক্ষা, বাইরে গরু-ছাগলের হাট (ভিডিও)

এইচ এম আলমগীর কবির, সিরাজগঞ্জ ১০:৫০ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ০৬, ২০১৯

প্রাথমিক স্কুলে চলছে পরীক্ষা। ঠিক এই সময়েই বিদ্যালয়ের মাঠে বসেছে গরু-ছাগলের হাট।

সপ্তাহে প্রতি রোববার ঢাকা-নগরবাড়ি মহাসড়কের উল্লাপাড়া উপজেলার পাগলা বোয়ালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বসছে এই হাট।

এতে শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ায় বিঘ্ন ঘটছে। মাঠের ময়লা-আর্বজনার দুর্গন্ধে ক্লাস করা দুষ্কর হয়ে পড়েছে শিক্ষার্থীদের।

এই দুটি স্কুলের পাশে একটি মাদ্রাসাও রয়েছে। তিন প্রতিষ্ঠানে প্রায় সহস্রাধিক শিক্ষার্থী রয়েছে।

পাগলা বোয়ালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনের মাঠ দখল করে বসানো হয়েছে গরু-ছাগলের হাট। উত্তরাঞ্চলে বড় হাটের মধ্যে এটি একটি। বিভিন্ন জেলা থেকে পাইকাররা এখানে আসেন গরু-ছাগল কিনতে।

ঢাকা-নগরবাড়ি মহাসড়কের উল্লাপাড়া উপজেলার পাগলা বোয়ালিয়া হাটের ইজারাদার ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা জহুরুল ইসলাম নান্নুর ভাই সেলিম আহমেদ।

ইাজারার দরপত্রে হাটের স্থান উল্লেখ করা হয়েছে পাগলা মৌজায়। অথচ হাট বসানো হচ্ছে স্কুলের মাঠে বোয়ালিয়া মৌজায়।

অভিভাবকদের অভিযোগ, আগে এই গরুর হাট অন্যত্র বসতো। কিন্তু গত ৪ বছর নিয়মিত বসছে স্কুল মাঠে। হাটবারে স্কুলের সমস্ত কার্যক্রম বন্ধ রেখে পাগলা বোয়ালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অফিস রুমসহ বারান্দায় শত মানুষ জটলা করে। এতে শিক্ষার্থীদের পড়ালেখায় বিঘ্ন হচ্ছে।

পাগলা বোয়ালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান বলেন, ‘হাটের কারণে স্কুলের ম্যানেজিং কমিটি যেভাবে নির্দেশনা দিয়েছে, সেভাবেই পরিচালনা করা হচ্ছে। এর বাইরে আমার আর কিছু বলার নেই।’

পাগলা বোয়ালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলাম নান্নু বলেন, ‘হাটের দিন স্কুল বন্ধ রাখা হয় না। উপজেলা শিক্ষা অফিসারের সঙ্গে আলোচনা করে হাটের দিন সকাল বেলায় ক্লাস নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।’

তবে রোববার স্কুলে পরীক্ষা আর হাটবার একই দিনে হওয়ায় একটু সমস্যা হয়েছে বলে তিনি স্বীকার করেন।

তবে স্কুলের গেট বন্ধ করে, সেখানে গ্রাম পুলিশ পাহারায় রাখা হয়েছে বলেও জানান জহুরুল ইসলাম নান্নু।

হাটের ইজারাদার সেলিম আহমেদ বলেন, ‘হাটটি গতবারও এখানেই ছিল। আমি নতুন ইজারা নিয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘সরকারিভাবে আমাকে জায়গা দিলে সেখানেই হাট বসানো হবে।’

উল্লাপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আরিফুজ্জামান বলেন, ‘সাময়িকভাবে হাটটি স্কুল মাঠে বসেছে। হাটের জন্য জমি কেনার চেষ্টা চলছে। জমি পেলেই স্কুল মাঠে হাট বসানো বন্ধ হবে।’

একে/আইএম

 

পরিবর্তন বিশেষ: আরও পড়ুন

আরও