বাঘাইছড়ির নদীতে নিখোঁজ কৃষি কর্মকর্তার মরদেহ উদ্ধার

ঢাকা, রবিবার, ২৬ মে ২০১৯ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

বাঘাইছড়ির নদীতে নিখোঁজ কৃষি কর্মকর্তার মরদেহ উদ্ধার

রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি ৭:৫২ অপরাহ্ণ, মে ১৬, ২০১৯

বাঘাইছড়ির নদীতে নিখোঁজ কৃষি কর্মকর্তার মরদেহ উদ্ধার

রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে কাচালং নদীতে মাছ ধরতে নেমে নিখোঁজ হওয়ার ১৫ ঘণ্টা পর অবসরপ্রাপ্ত কৃষি কর্মকর্তা প্রশান্ত কুমার চাকমার (৬২) মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে দীঘিনালা ফায়ার সার্ভিস ও চট্টগ্রাম থেকে আসা নৌ-বাহিনীর ডুবুরি দলের সদস্যরা তার মরদেহ উদ্ধার করে।

এর আগে গত বুধবার সন্ধ্যা ৭টায় কাচালং নদীর মাস্টার পাড়া এলাকায় মাছ ধরতে নেমে নিখোঁজ হন প্রশান্ত কুমার চাকমা। তিনি ওই এলাকার মৃত তনু রায় চাকমার ছেলে। তিনি খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলার উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা ছিলেন।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বুধবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে নদীতে মাছ ধরতে নেমে নিখোঁজ হওয়ার পরপরই মারিশ্যা জোন বিজিবি, বাঘাইছড়ি থানা পুলিশ ও স্থানীয় জনসাধারণ নিখোঁজ কৃষি কর্মকর্তাকে উদ্ধারে কাজ চালায়। রাতে কয়েক ধাপে উদ্ধার কাজ চালানোর পরদিন বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় তার মরদেহ উদ্ধার করে দীঘিনালা ফায়ার সার্ভিস ও চট্টগ্রাম থেকে আসা নৌ-বাহিনীর ডুবুরি দলের সদস্যরা।

বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আহসান হাবীব (জিতু) বলেন, বুধবার সন্ধ্যা ৭টায় খবর পাওয়ার সাথে-সাথেই থানার ওসি সহকারে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যাওয়ার পর দীঘিনালা ফায়ার স্টেশনে কথা বলি। দীঘিনালায় ডুবুরি দল না থাকায় স্থানীয় মৎসজীবীদের মাধ্যমে জাল দিয়ে প্রায় তিনবার চেষ্টা করেও তার মরদেহ উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। আজ সকালে চট্টগ্রাম থেকে আসা ডুবুরি দলের সদস্যরা তার মরদেহ উদ্ধার করে।

বাঘাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল মনজুর জানান, প্রশান্ত কুমার চাকমা তার স্ত্রীর সামনেই কাচালং নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে পা পিছলে পড়ে যান। নিখোঁজ হওয়ার পর অনেক খোঁজাখুজির পর বৃহস্পতিবার সকালে দীঘিনালা ফায়ার সার্ভিস ও চট্টগ্রাম থেকে আসাডুবুরি দলের সদস্যরা মরদেহ উদ্ধার করা করে। আইনে প্রক্রিয়া শেষে পরিবারের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে।

এদিকে নিখোঁজের মরদেহ উদ্ধারের পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আহসান হাবীব (জিতু), বাঘাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল মনজুর, রূপকারী ইউপি চেয়ারম্যান শ্যামল চাকমা। এসময় নিহত পরিবারকে দাহক্রিয়া সম্পন্ন করার জন্য বাঘাইছড়ি উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নগদ আর্থিক সহায়তা দেন।

এইচআর