বান্ধবীকে এগিয়ে দিতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার মাদরাসা ছাত্রী

ঢাকা, শনিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৮ | ৩ ভাদ্র ১৪২৫

বান্ধবীকে এগিয়ে দিতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার মাদরাসা ছাত্রী

রাজশাহী ব্যুরো ৯:৫৮ অপরাহ্ণ, মে ১৭, ২০১৮

print
বান্ধবীকে এগিয়ে দিতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার মাদরাসা ছাত্রী

রাজশাহীতে এক মাদরাসা ছাত্রীকে হাত মুখ বেঁধে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার জেলার পবা উপজেলায় এ ঘটনা ঘটে। পরে ছাত্রীর বাবা ও স্থানীয়রা গিয়ে ছাত্রীকে উদ্ধার করেন। বিকেলে নির্যাতিতার বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। কাটাখালি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মেহেদী হাসান মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলার বরাত দিয়ে তিনি জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় বান্ধবীকে এগিয়ে দিতে যাচ্ছিল ওই ছাত্রী। ফেরার পথে উষা এগ্রো খামারের কাছে পৌঁছালে ফাকি মিয়ার ছেলে জালাল ও তার কয়েক সহযোগী মেয়েটিকে তুলে নিয়ে যায়। পরে একটি ঘরে সকাল ১০টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত আটকে রেখে হাত মুখ বেঁধে পালাক্রমে ধর্ষণ করা হয়। দুপুরে স্থানীয় লোকজন বুঝতে পেরে এগিয়ে গেলে তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে ধর্ষক জালাল ও তার সহযোগিরা পালিয়ে যায়।

পরে ওই ছাত্রীর বাবা-মাকে জানালে তাদের সহায়তায় সেখানে গিয়ে ছাত্রীকে উদ্ধার করেন তারা।

এ ঘটনায় বিকেল ৫ টার দিকে নির্যাতিতার বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

আসামীদের গ্রেফতারের জন্য ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানান ওসি।

বিএইচএস/এফএম

 
.


আলোচিত সংবাদ