এইচএসসি পরীক্ষার্থী রাব্বী হত্যার প্রধান আসামি গ্রেফতার

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ জুলাই ২০১৮ | ৪ শ্রাবণ ১৪২৫

এইচএসসি পরীক্ষার্থী রাব্বী হত্যার প্রধান আসামি গ্রেফতার

জয়পুরহাট প্রতিনিধি ১২:৫৭ পূর্বাহ্ণ, মে ১৭, ২০১৮

print
এইচএসসি পরীক্ষার্থী রাব্বী হত্যার প্রধান আসামি গ্রেফতার

অবশেষে নৃশংস হত্যাকাণ্ডের ৬ দিনের মাথায় বুধবার বহুল আলোচিত জয়পুরহাট শহীদ জিয়া কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী ফজলে রাব্বী হত্যার অন্যতম প্রধান আসামি রেজা শেখ ওরফে রেজাকে (২৩) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

 

সাবেক স্কুল ও কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী,সহপাঠি,বন্ধুবান্ধব এবং মা-বাবা সহ স্বজনদের দাবিতে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন শেষ হবার মাত্র আধঘণ্টা পরই ঘাতক রেজা পুলিশের হাতে ধরা পড়ে। গোপন খবরের ভিত্তিতে বুধবার সন্ধ্যায় জয়পুরহাট শহরের বিহারী পাড়া সংলগ্ন সওদাগর পাড়ার নিজ বাড়ির সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গত ১০ মে এ হত্যাকাণ্ডের পর থেকে আত্মগোপন করে পালিয়ে থাকা হত্যাকারী রেজা সন্ধ্যায় তার বাড়িতে আত্মীয়-স্বজনদের সাথে দেখা করতে এলে পুলিশ তাকে ধরে ফেলে।

এ হত্যাকাণ্ডের পর একজনও গ্রেফতার না হওয়ায় প্রধান আসামি- ঘাতক রেজাকে গ্রেফতারের দাবিতে উত্তাল হয়ে উঠে জয়পুরহাটের ছাত্র-জনতা। এ দাবিতে সকালে জয়পুরহাট শহরের আদালত পাড়ার অদূরে প্রধান সড়কে ও বিকালে জয়পুরহাট কেন্দ্রীয় মসজিদ মার্কেটের সামনে জয়পুরহাট পুলিশ লাইন্স একাডেমী ও জয়পুরহাট শহীদ জিয়া কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা পৃথক মানববন্ধন করেন।

মানববন্ধনে রেজাকে গ্রেফতার করে ফাঁসির দাবিতে বক্তব্য রাখেন নিহতের মা লিপি বেগম, বাবা সেলিম রেজা। এছাড়াও আরো বক্তব্য রাখেন ফজলে রাব্বীর স্কুল ও কলেজের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও শুভাকাঙ্খীরা। তারা অবিলম্বে এ নির্মম হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত ঘাতক রেজা সহ দোষীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে ফাঁসির দাবি জানান । বিকালের ওই মানববন্ধন শেষ হবার পর পরই কলেজ ছাত্র ফজলে রাব্বী হত্যার অন্যতম প্রধান আসামি- সন্ত্রাসী রেজাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় পুলিশ।

জানা গেছে, গত ১০মে (বৃহস্পতিবার) রাত ৮টায় দিকে জয়পুরহাট শহরের বিহারী পাড়া সংলগ্ন বঙ্গবন্ধু সড়কে জয়পুরহাট শহীদ জিয়া কলেজের মানবিক বিভাগের ছাত্র এবারের এইচএসসি পরীক্ষার্থী ফজলে রাব্বীকে হত্যার ঘটনা ঘটে। মোটরসাইকেল দিতে রাজি না হওয়ায় শহরের সড়কের ওপর তাকে প্রকাশ্যে হকিস্টিক দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে ওই এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী রেজা ও তার সহযোগী। এ হত্যাকাণ্ডের পর নিহত ফজলে রাব্বীর মা লিপি বেগম বাদী হয়ে জয়পুরহাট থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

উল্লেখ্য, এ হত্যাকাণ্ডের কিছু দিন আগে গ্রেফতারকৃত রেজাকে অপর আরেকটি মামলায় জামিন নিয়ে কারাগার থেকে বের হয়। সে শহরের বিহারী পাড়া সংলগ্ন সওদাগর মহল্লার গিয়াস উদ্দিনের ছেলে।

এসএসএম/এএস

 
.



আলোচিত সংবাদ