প্রথমবারের মতো বিদেশে যাচ্ছিলেন নজরুল-আক্তারা দম্পতি

ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৪ আশ্বিন ১৪২৫

প্রথমবারের মতো বিদেশে যাচ্ছিলেন নজরুল-আক্তারা দম্পতি

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি ১১:৪৪ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ১৩, ২০১৮

প্রথমবারের মতো বিদেশে যাচ্ছিলেন নজরুল-আক্তারা দম্পতি

নেপালে ইউএস বাংলার উড়োজাহাজ দুর্ঘটনায় নিহত দম্পতি নজরুল ইসলাম ও আক্তারা বেগমের আদি নিবাস ছিল চাঁপাইনবাবগঞ্জ। গোমস্তাপুর উপজেলার বাঙ্গাবাড়ি ইউনিয়নের বেগুনবাড়ি গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মৃত আব্দুর রহিমের ছেলে নজরুল ইসলাম(৬৫) এবং আক্তারা বেগম(৬০) শিবগঞ্জ উপজেলার ছত্রাজিতপুর ইউনিয়নের মাস্টারপাড়া গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মৃত তোজাম্মেল হকের মেয়ে। তবে দীর্ঘদিন ধরে তারা রাজশাহীর উপশহরে বাস করতেন।

নিহত নজরুল ইসলামের ছোট ভাই রেজাউল করিম জানান, তাদের ভাই ও ভাবি নেপালে বেড়াতে যাচ্ছিলেন।

তিনি জানান, তাদের ভাই নজরুল ইসলাম ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা। তিনি বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক, রাজশাহীর আঞ্চলিক শাখার ব্যবস্থাপক ও ভাবি ছিলেন রাজশাহী সরকারি মহিলা কলেজের শারীরিক শিক্ষক। দুইজনেই অবসর যাপন করছিলেন। প্রথমবারের মতো তারা দুজনে বিদেশে বেড়াতে যাচ্ছিলেন।

তিনি আরো জানান, নজরুল ইসলামের দুই মেয়ে। বড় মেয়ে সানজিদা আক্তার কাকনের বিয়ে হয়েছে। ছোট মেয়ে কনক ঢাকার বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজে শেষ বর্ষের ছাত্রী। তারা দুইজনই ঢাকায় থাকেন।

এদিকে দুর্ঘটনার খবর পেয়ে নজরুল ইসলামের শ্যালক মইনুদ্দীন চিশতী নেপাল গিয়েছেন। নজরুল ইসলাম দম্পতির দাফন গ্রামের বাড়ি গোমস্তাপুরের বাঙ্গাবাড়ি ইউপির বেগুনবাড়ি গ্রামে। নজরুল ইসলামের দাফন বাবা আব্দুর রহিমের কবরের পাশে হবে বলে প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন তার ভাইয়েরা।

সোমবার ১২টা ৫০ মিনিটে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের একটি বিমান কাঠমান্ডুর উদ্দেশ্যে রওনা হয়। এরপর বিমানটি কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিধ্বস্ত হয়।

এতে চার ক্রু-সহ ৭১ জন আরোহী ছিলেন। এরমধ্যে কমপক্ষে ৫০ জন আরোহী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ২১ জন।

এর মধ্যে বাংলাদেশের যাত্রী ছিল ৪৩ জন। তাদের মধ্য থেকে ৯ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

এআরএন/বিএইচ/
আরো পড়ুন...
নেপালের পথে হতাহতদের স্বজনরা
ক্যাপ্টেনকে রানওয়ের ভুল তথ্য দেয়ায় বিমান বিধ্বস্ত!
প্রত্যক্ষদর্শীর বর্ণনায় ইউএস-বাংলা বিমান বিধ্বস্তের মুহূর্ত
বিধ্বস্ত বিমানে ছিলেন রাগিব রাবেয়া মেডিকেল কলেজের অনেক শিক্ষার্থী
বিমানের জানালা ভেঙে প্রাণে বাঁচলেন যে যাত্রী
বিধ্বস্ত বিমানের যাত্রী রুয়েটের শিক্ষিকা, স্বামী হাসপাতালে
আকাশে উড়ে বাবার সঙ্গে না ফেরার দেশে প্রিয়ন্ময়ী
অবতরণের আগে ‘অদ্ভুত আচরণ’ শুরু করে ইউএস বাংলার বিমান
বিধ্বস্ত বিমানে ছিলেন বৈশাখী টিভির সাংবাদিক ফয়সাল
বিধ্বস্ত বিমানে সপরিবারে ছিলেন সুজন কর্মকর্তা বিপাশা
বিধ্বস্ত বিমানের প্রধান বৈমানিক আবিদ বেঁচে আছেন
বিধ্বস্ত বিমানের যাত্রী ছিলেন যারা
পাইলটের শেষ কথা ‘কোনো সমস্যা নেই’
জীবিত ১৯ যাত্রীর তালিকা দিয়েছে ইউএস-বাংলা